ঊষা কিরণ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ঊষা কিরণ
স্থানীয় নাম
ऊषा किरण
জন্ম(১৯২৯-০৪-২২)২২ এপ্রিল ১৯২৯
মৃত্যু৯ মার্চ ২০০০(2000-03-09) (বয়স ৭০)
পেশাঅভিনেত্রী
কার্যকাল১৯৪৯–২০০০
উপাধিমুম্বইয়ের শেরিফ
দাম্পত্য সঙ্গীমনোহর খের
সন্তানতানবী আজমী (কন্যা)
অদ্বৈত খের (পুত্র)
পুরস্কারফিল্মফেয়ার পুরস্কার (১৯৫৫)

ঊষা কিরণ হিন্দি: ऊषा किरण; ২২ এপ্রিল ১৯২৯ - ৯ মার্চ ২০০০) ছিলেন একজন ভারতীয় চলচ্চিত্র অভিনেত্রী। চার দশকের চলচ্চিত্র জীবনে তিনি তিন শতাধিক হিন্দি ও মারাঠি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। তার অভিনীত উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্রসমূহ হল দাগ (১৯৫২), পতিতা (১৯৫৩), বাদবাঁ (১৯৫৪), বাবর্চি (১৯৭২), চুপকে চুপকে (১৯৭৫), ও মিলি (১৯৭৫)। বাদবাঁ চলচ্চিত্রে তার অভিনয়ের জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেত্রী বিভাগে ফিল্মফেয়ার পুরস্কার অর্জন করেন। তিনি ১৯৯৬ থেকে ১৯৯৭ সালে মুম্বইয়ের শেরিফ ছিলেন। অভিনেত্রী তানবী আজমী তার কন্যা।[১]

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

ঊষা কিরণ ১৯২৯ সালের ২২শে এপ্রিল[২] তৎকালীন ব্রিটিশ ভারতের (বর্তমান ভারত) হায়দ্রাবাদে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা বলকৃষ্ণ বিষ্ণু মারাঠে ও মাতা রাধা। তিনি তার পিতা মাতার পাঁচ কন্যার মধ্যে দ্বিতীয়।

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

ঊষা এম.জি. রাংনেকরের মারাঠি মঞ্চনাটক আশির্বাদ দিয়ে তার অভিনয় জীবন শুরু করেন।[৩] তিনি উদয় শঙ্করের নৃত্য-নাট্যধর্মী চলচ্চিত্র কল্পনা (১৯৪৮)-এ ছোট একটি চরিত্রে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে হিন্দি চলচ্চিত্র শিল্পে আগমন করেন। ১৯৫০-এর দশকে তিনি দাগ (১৯৫২), পতিতা (১৯৫৩), বাদবাঁ (১৯৫৪), অউলাদ (১৯৫৪) ও মুসাফির (১৯৫৭)-এর মত কয়েকটি জনপ্রিয় চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। বাদবাঁ ছবিতে তার কাজের জন্য তিনি ফিল্মফেয়ার পুরস্কারের অংশ হিসেবে প্রথমবারের মত প্রদত্ত শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেত্রী বিভাগে পুরস্কৃত হন।[৪] এছাড়া এই দশকে তিনি মারাঠি চলচ্চিত্র চলচ্চিত্রে গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেন।[৫] ১৯৬০-এর দশকে তিনি নজরানা (১৯৬১) ও কাবুলিওয়ালা (১৯৬১) চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। এই সময়ে অন্তঃসত্ত্বা হলে তিনি অভিনয় থেকে বিরতি নেন এবং সন্তান লালন পালনে মনযোগী হন। প্রায় এক দশক পর তিনি হৃষিকেশ মুখোপাধ্যায়ের বাবর্চি (১৯৭২) চলচ্চিত্রে কাজ করেন এবং পরবর্তী কালে চুপকে চুপকে (১৯৭৫), ও মিলি (১৯৭৫) চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন।[৫]

তার অভিনীত উল্লেখযোগ্য মারাঠি চলচ্চিত্রসমূহ হল জাসাচ তাসে, পোস্টাটলি মুলগি, দূর বাকর, স্ত্রী জন্ম হি তুজি কাহানী, কন্যাদান (যার জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী বিভাগে মহারাষ্ট্র সরকার পুরস্কার লাভ করেন), গরিব গারচি লেককাঞ্চনজঙ্গা[৪]

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

ঊষা ডাক্তার মনোহর খেরের সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছিলেন। খের মুম্বইয়ের এলটিএমএমজি হাসপাতালের ডিন ছিলেন। তাদের দুই সন্তান হলেন তানবী আজমী ও অদ্বৈত খের। তানবী একজন টেলিভিশন ও চলচ্চিত্র অভিনেত্রী, যিনি অভিনেত্রী শাবানা আজমীর ভাই চিত্রগ্রাহক বাবা আজমীর সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন। অন্যদিকে অদ্বৈত একজন সাবেক মডেল, যিনি বর্তমানে নাশিকে বসবাস করছেন। তার স্ত্রী উত্তরা মহাত্রে খের ১৯৮২ সালের ফেমিনা মিস ইন্ডিয়া খেতাবধারী। তাদের দুই কন্যা সংস্ক্রুতি খের ও অভিনেত্রী সৈয়ামি খের[৬]

ঊষা ২০০০ সালের ৯ই মার্চ ৭১ বছর বয়সে মহারাষ্ট্রের নাশিকে মৃত্যুবরণ করেন। অমরধাম ক্রিমেটোরিয়ামে তার শেষকৃত্য অনুষ্ঠিত হয়।[২]

চলচ্চিত্রের তালিকা[সম্পাদনা]

বছর চলচ্চিত্রের শিরোনাম চরিত্র টীকা
১৯৪৮ কল্পনা
১৯৪৯ গরীবী
১৯৫২ দাগ পুষ্প
১৯৫৩ পতিতা রাধা
১৯৫৪ বাদবাঁ মোহনিয়া বিজয়ী: শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেত্রী বিভাগে ফিল্মফেয়ার পুরস্কার
অউলাদ
১৯৫৭ মুসাফির উমা
১৯৫০ বল জো জো রে'
১৯৫৯ শিকলেলি বাইকো
১৯৬০ কন্যাদান বিজয়ী: শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী বিভাগে মহারাষ্ট্র সরকার পুরস্কার
১৯৬১ নজরানা গীতা
কাবুলিওয়ালা রমা, মিনির মা
১৯৭২ বাবর্চি শোভা শর্মা
১৯৭৫ চুপকে চুপকে সুমিত্রা শর্মা
মিলি শরদা খান্না

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Usha Kiran dead"ট্রিবিউন ইন্ডিয়া (ইংরেজি ভাষায়)। মুম্বই। ৯ মার্চ ২০০০। সংগ্রহের তারিখ ১১ মে ২০১৯ 
  2. "Usha Kiran dead"দ্য হিন্দু (ইংরেজি ভাষায়)। ৯ মার্চ ২০০০। সংগ্রহের তারিখ ১১ মে ২০১৯ 
  3. Mass media 2001। তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়। গবেষণা, তথ্যসূত্র, ও প্রশিক্ষণ বিভাগ। ভারত সরকার ২০০১। আইএসবিএন ৮১-২৩০-০৯৪২-৯। পৃ. ১৫২।
  4. "Remembering Usha Kiran, one of the finest actresses in Hindi and Marathi cinema, on her 88th birth…"মিডিয়াম (ইংরেজি ভাষায়)। ২২ এপ্রিল ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১১ মে ২০১৯ 
  5. সেতা, কেয়ুর (৯ মার্চ ২০১৭)। "Tanvi Azmi remembers mother Usha Kiran as a strong, practical woman"সিনেস্তান (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১১ মে ২০১৯ 
  6. "Saiyami Kher goes back to her roots for Mauli -"মুভিফাইড (ইংরেজি ভাষায়)। ১৪ নভেম্বর ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ১১ মে ২০১৯ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]