শীবা চাড্ডা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
শীবা চাড্ডা
Sheeba Chaddha.jpg
২০১০ সালে শীবা চাড্ডা
জন্ম১৯৭২ (বয়স ৪৮–৪৯)
মাতৃশিক্ষায়তনহাঁস রাজ কলেজ
পেশাঅভিনেত্রী
কর্মজীবন১৯৯৮–বর্তমান

শীবা চাড্ডা (জন্ম: ১৯৭২) হলেন একজন ভারতীয় চলচ্চিত্র, মঞ্চ এবং টেলিভিশন অভিনেত্রী[১]

শীবা ১৯৭২ সালে ভারতের দিল্লিতে জন্মগ্রহণ করেছেন[২] এবং সেখানেই তিনি তার শৈশব অতিবাহিত করেছেন। তিনি দিল্লিতে থাকাকালীন মঞ্চ নাটকের প্রতি আগ্রহী হয়ে উঠেছিলেন এবং মঞ্চ নাটকের বেশ কয়েকটি ওয়ার্কশপে অংশগ্রহণ করা শুরু করেছিলেন।[৩] তিনি দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে হাঁস রাজ কলেজ থেকে ইংরেজি সাহিত্য বিভাগ হতে স্নাতক সম্পন্ন করেছেন।[৪]

১৯৯৮ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত জনপ্রিয় বলিউড চলচ্চিত্র দিল সে.. -এ অভিনয়ের মধ্য দিয়ে শীবা চাড্ডা চলচ্চিত্র জগতে আত্মপ্রকাশ করেছিলেন। অতঃপর শীবা বেশ কয়েক বছর ধরে, হাম দিল দে চুকে সনম (১৯৯৯), পারজানিয়া (২০০৭), দিল্লি ৬ (২০০৯), লাক বাই চান্স (২০০৯) এবং তালাশ (২০১২)-এর মতো চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন।[৫] ২০১১ সালে অভিনেতা ঋতুরাজ সিংয়ের সাথে তিনি প্রকাট হেট ইয়াদ নামক একটি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছিলেন। এই চলচ্চিত্রটি ফ্লোরেন্স ইন্ডিয়ান ফিল্ম ফেস্টিভালের রিভার টু রিভার-এ স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র বিভাগে শ্রোতাদের ভোটে পুরস্কার অর্জন করেছিল।[১] ২০১২ সালে তালাশ নামক হিন্দি চলচ্চিত্রে তিনি নির্মলা নামক একজন যৌনকর্মীর চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন; উক্ত চলচ্চিত্রে তিনি বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা আমির খানের সাথে কাজ করার সুযোগ পেয়েছিলেন। ২০১৫ সালে তিনি শরত কাতারিয়ার দম লাগা কে হায়শা-এ নায়ন তারা তিওয়ারী (বুয়াজী)-এর চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন; যেটি সমালোচকদের দ্বারা প্রশংসিত হয়েছিল।

২০০২ সালে জি টিভিতে প্রচারিত লাভ ম্যারেজ নামক টেলিভিশন ধারাবাহিকে অভিনয় করার মাধ্যমে তিনি টেলিভিশন জগতে অভিষেক করেছিলেন। তারপরে ২০০৭ সালে তিনি কস্তুরিয়া-এ একজন স্বনামধন্য ব্যবসায়ীর চরিত্রে অভিনয় করে পুনরায় টেলিভিশন জগতে ফিরে আসেন।[২] অতঃপর তিনি না আনা ইস দেশ লাডো (২০০৯-১২), কিতনি মহব্বত হ্যায় (২০০৯), কাহানী সাত ফেরো কি (২০০৭), লাভ ম্যারেজ (২০০১-১৩) এবং লাখো মে এক (২০১২)-এর মতো টেলিভিশন ধারাবাহিকে অভিনয় করেছেন।[৩] ২০১২ সালের জুন মাসে, তিনি জি টিভিতে জনপ্রিয় টেলিভিশন ধারাবাহিক হিটলার দিদি-এ অভিনয় করার প্রস্তাব পেয়েছিলেন; যেখানে তিনি দুলারী চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন।[৬]

২০০৭ সালে, তিনি রজত কাপুরের সি ক্লাউন নামক একটি মঞ্চ নাটক অভিনয় করেছেন।[২] অতঃপর তিনি ২০১০ সালে অতুল কুমারের দ্য ব্লু মগ-এ অভিনয় করেছেন; যেখানে তিনি রজত কাপুর, মুনিশ ভরদ্বাজ, বিনয় পাঠক, কঙ্কনা সেন শর্মা এবং রণবীর শুরের সাথে অভিনয় করেছেন।[৭] তিনি বর্তমানে একটি ইন্টারনেট ভিত্তিক টেলিভিশন ধারাবাহিক দ্য পার্মানেন্ট রুমমেটস-এ অভিনয় করছেন, যেটি দ্য ভাইরাল ফিভারের (টিভিএফ) ব্যানারে নির্মিত।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Dipti Nagpaul D'souza (১৫ মার্চ ২০১২)। "Language no bar"Indian Express। সংগ্রহের তারিখ ১৫ জুলাই ২০১৩..renowned theater artiste Sheeba Chaddha 
  2. Kimi Dangor (১১ জুন ২০০৭)। "Back with a bang: Sheeba Chadha"। India Today। ১ জুন ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৫ জুলাই ২০১৩ 
  3. "Sheeba's brotherly love!"। The Times Of India। ৬ অক্টোবর ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ১৫ জুলাই ২০১৩ 
  4. "Sheeba Chadha — artist details"। MumbaiTheatreGuide। ৩ মার্চ ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৫ জুলাই ২০১৩ 
  5. "Essaying conflicts"The Hindu। ১১ ফেব্রু ২০১০। সংগ্রহের তারিখ ১৫ জুলাই ২০১৩ 
  6. "Sheeba Chaddha enters Hitler Didi"। Sify.com News। ১৯ জুন ২০১২। ১৭ নভেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৫ জুলাই ২০১৩ 
  7. Piyasree Dasgupta (৩১ মার্চ ২০১০)। "Memory Central"Indian Express। সংগ্রহের তারিখ ১৫ জুলাই ২০১৩ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]