আয়শা কাপুর

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
আয়শা কাপুর
Ayesha kapur.jpg
২০১২ সালের স্থিরচিত্রে আয়শা কাপুর
জন্ম
আয়শা গিউলিয়া কাপুর

(1994-09-13) ১৩ সেপ্টেম্বর ১৯৯৪ (বয়স ২৫)
পেশাঅভিনেত্রী

আয়শা কাপুর (জন্ম ১৩ই সেপ্টেম্বর, ১৯৯৪)[১] ভারতীয় চলচ্চিত্রের একজন শিশু চরিত্র অভিনেত্রী, যিনি বলিউড চলচ্চিত্র ব্ল্যাক এ অভিনয়ের জন্য সর্বাধিক পরিচিত।[২] তিনি "সেরা পার্শ্ব অভিনেত্রী" বিভাগে অনেক পুরস্কার পেয়েছেন। এটি করতে গিয়ে, তিনি দ্বিতীয় কনিষ্ঠ ব্যক্তি (দর্শিল সাফারি পরবর্তীতে এ রেকর্ডটি ভেঙ্গে দেন) হিসেবে ফিল্মফেয়ার পুরস্কার -এর জন্য মনোনীত হন এবং জয় লাভ করেন এবং বর্তমানে সবচেয়ে কনিষ্ঠতম ব্যক্তি হিসেবে জি সিনে পুরস্কার এবং আইফা পুরস্কার অর্জন করেছেন।

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

আয়শা কাপুর ভারতের অরুভি, পুদুচেরি তে বাস করেন। তাঁর মা জ্যাকুলিন একজন জার্মান নাগরিক এবং তাঁর বাবা দীলিপ কাপুর একজন পাঞ্জাবী ব্যবসায়ী যিনি হাইডসাইন নামক চামড়াজাত পণ্যের দোকান চেইনের মালিক।[৩] যেটি ২৪টি দেশে তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। আয়শার এক ভাই আছে, যার নাম মিলন এবং তাঁর বাবার ও তাঁর ১ম স্ত্রীর সন্তান। তাঁর দুই সৎভাই আছে যাদের নাম আকাশ এবং বিকাশ।[৪]

২০০৫ সালে, আয়শা কাপুর "ব্ল্যাক" ছবিতে বধির-অন্ধ মেয়ে মিশেল ম্যাকনেলি চরিত্রে অভিনয় করার জন্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। চিত্রগ্রহণের খাতিরে, তাঁকে ইশারা ভাষা শিখতে হয়েছিল।[৫] "ব্ল্যাক" ছবির পরিচালক সঞ্জয় লীলা বনশালি তাঁর একটি ভিডিও সাক্ষাতকারে তরুণ অভিনেত্রীর অভিনয়ের প্রশংসা করে বলেন: “ছোট আয়েশা কাপুর ঠিকঠাক অভিনয় করেছেন। তিনি আমার জন্য সত্যিকারের আবিষ্কারে পরিণত হয়েছিলেন।" তাঁর সাথে একমত হয়েছিলেন শীর্ষস্থানীয় অভিনেতা অমিতাভ বচ্চন এবং রানি মুখার্জি। বচ্চন উল্লেখ করেছিলেন যে "তার অভিনয় (আয়শা কাপুরের) একজন পেশাদার অভিনেত্রীর মতো মনে হতে পারে, যার সিনেমায় কাজ করার ব্যাপক অভিজ্ঞতা রয়েছে"।

অভিনেত্রীর অভিষেকের কাজ সমালোচকদের মধ্যে একটি ইতিবাচক প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করে। তিনি "ব্ল্যাক" চলচ্চিত্রের পার্শ্ব চরিত্রে অভিনয় করে সেরা অভিনেত্রীর জন্য ভারতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ফিল্মফেয়ার পুরস্কার জিতেছিলেন। ইতিহাসের এই পুরস্কারের কনিষ্ঠতম জয়ী হয়েছিলেন কাপুর, তবে ২০০৮ সালে তাঁর এই রেকর্ডটি ভেঙে দেন দর্শিল সাফারি।

২০০৬ সালে তিনি আদেশ শ্রীবাস্তব পরিচালিত সানা নামক একটি ছোট নাটকে অভিনয় করেন, যেটির কেন্দ্রীয় চরিত্রে ছিলেন শাবানা আজমি, সীমা বিশ্বাসের মতো জনপ্রিয় অভিনেত্রীরা। [৬]

২০০৯ সালে আয়শা কাপুর, পীযূষ ঝা পরিচালিত "সিকান্দার" ছবিতে প্রধান নারী চরিত্রে অভিনয় করেন। অভিনেত্রীর মতে, তিনি পর্দায় ফিরতে চাননি, তবে চিত্রনাট্য পড়ে সিকান্দারে চরিত্রে অভিনয় করতে রাজি হন।[৭]

২০১০ সালে, কাপুর তাঁর নিজস্ব ব্র্যান্ডের আনুষাঙ্গিক আয়শা চালু করেছিলেন।[৮] প্রতিষ্ঠানটি গহনা, আনুষাঙ্গিক এবং পোশাক আইটেমের খুচরা বিক্রি করে থাকে।[৯]

চলচ্চিত্রের তালিকা[সম্পাদনা]

টীকা
Films that have not yet been released এখনও মুক্তি না পাওয়া চলচ্চিত্রগুলোকে বোঝায়
বছর শিরোনাম চরিত্র মন্তব্য
২০০৫ ব্ল্যাক মিশেল ম্যাকনেলি (ছোট)
২০০৯ সিকান্দার নাসরিন


তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. N, Patcy (2 February 2005)। "'I don't think I look like Rani'"Rediff। সংগ্রহের তারিখ ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৪ 
  2. "Ayesha Kapoor refuses Preity Zinta - Sify.com"Sify। 7 May 2008। ১৪ মে ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৮ মে ২০১০ 
  3. "Ayesha Kapoor: The stunning 9-year old in `Black` - Sify.com"Sify। ৩ ফেব্রুয়ারি ২০০৫। ৬ ফেব্রুয়ারি ২০০৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৮ মে ২০১০ 
  4. Ramani, Priya (30 August 2008)। "Dilip Kapur: The French Connection"LiveMint। সংগ্রহের তারিখ ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৪ 
  5. Jha S. (03.02.2005)। "Ayesha Kapoor: The stunning 9-year old in `Black`" (ইংরেজি ভাষায়)। Sify। 2013-02-06 তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ 2013-01-29  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |তারিখ= (সাহায্য)
  6. https://www.imdb.com/title/tt5521914/?ref_=nmbio_mbio
  7. Mishra S. (26.06.2006)। "No kidding! Ayesha, Parzan come together for Sikandar" (ইংরেজি ভাষায়)। CNN-IBN। 2013-02-06 তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ 2013-01-29  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |তারিখ= (সাহায্য)
  8. Delhi N. (18.11.2010)। "Keep it funky: Ayesha Kapur" (ইংরেজি ভাষায়)। Hindustan Times। 2013-02-06 তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ 2013-01-29  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |তারিখ= (সাহায্য)
  9. http://franchisingtime.com/blog/ayesha-accessories-franchise-business-opportunity-india/

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]