ইশারা অমরসিংহ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ইশারা অমরসিংহ
ඉෂාර අමරසිංහ
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামমেরেন্না কোরালাগে ডন ইশারা অমরসিংহ
জন্ম (1978-03-05) ৫ মার্চ ১৯৭৮ (বয়স ৪২)
কলম্বো, শ্রীলঙ্কা
উচ্চতা৬ ফুট ০ ইঞ্চি (১.৮৩ মিটার)
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি ফাস্ট-মিডিয়াম
ভূমিকাবোলার
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
একমাত্র টেস্ট
(ক্যাপ ১০৮)
৩ এপ্রিল ২০০৮ বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ১৩১)
১৮ মে ২০০৭ বনাম পাকিস্তান
শেষ ওডিআই১০ এপ্রিল ২০০৮ বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
১৯৯৭/৯৮বার্গার রিক্রিয়েশন ক্লাব
১৯৯৮/৯৯কোল্টস ক্রিকেট ক্লাব
২০০০/০১ - ২০০২/০৩নন্দেস্ক্রিপ্টস ক্রিকেট ক্লাব
২০০৩/০৪কোল্টস ক্রিকেট ক্লাব
২০০৪/০৫গালে ক্রিকেট ক্লাব
২০০৫/০৬ - বর্তমানকোল্টস ক্রিকেট ক্লাব
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট ওডিআই এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ৯৬ ৭৪
রানের সংখ্যা ৩০০ ৪০
ব্যাটিং গড় ৬.৫২ ৬.৬৬
১০০/৫০ ০/০ ০/০ ০/০ ০/০
সর্বোচ্চ রান ০* ৫* ৪৬ ৫*
বল করেছে ১৫০ ৪২৬ ১১,৪৯৬ ২,৯৪৭
উইকেট ২৪২ ৯১
বোলিং গড় ১০৫.০০ ৪০.৩৩ ২৩.৭৬ ২৪.৩২
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট - -
সেরা বোলিং ১/৬২ ৩/৪৪ ৫/১২ ৫/৪৪
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ০/– ১/– ২৯/– ১০/–
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ২৩ জুলাই ২০২০

মেরেন্না কোরালাগে ডন ইশারা অমরসিংহ (সিংহলি: ඉෂාර අමරසිංහ; জন্ম: ৫ মার্চ, ১৯৭৮) কলম্বো এলাকায় জন্মগ্রহণকারী সাবেক শ্রীলঙ্কান আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার। শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ২০০০-এর দশকের শেষদিকে সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্যে শ্রীলঙ্কার পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন।[১][২][৩]

ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটে বার্গার রিক্রিয়েশন ক্লাব, কোল্টস ক্রিকেট ক্লাব, নন্দেস্ক্রিপ্টস ক্রিকেট ক্লাব ও ওয়েয়াম্বা দলের প্রতিনিধিত্ব করেন। দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতি ফাস্ট-মিডিয়াম বোলার হিসেবে খেলতেন। এছাড়াও, ডানহাতে নিচেরসারিতে মাঝারিসারিতে ব্যাটিং করতেন ইশারা অমরসিংহ

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট[সম্পাদনা]

নালন্দা কলেজ কলম্বোয় পড়াশুনো সম্পন্ন করেছেন তিনি। ১৯৯৭-৯৮ মৌসুম থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত ইশারা অমরসিংহ’র প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবন চলমান ছিল। ছয় ফুট উচ্চতাবিশিষ্ট প্রসারিত বাহু নিয়ে ফাস্ট বোলার হিসেবে আবির্ভূত হয়েছিলেন ইশারা অমরসিংহ। পেস করানোয় দক্ষ ছিলেন। তবে, খেলোয়াড়ী জীবনের অধিকাংশ সময়ই বলে নিখুঁত ভাব বজায় রাখতে পারেননি।

১৯৯৯ সাল থেকে শ্রীলঙ্কা এ দলের নিয়মিত সদস্যের মর্যাদাপ্রাপ্ত হন। ঐ মৌসুমে অসাধারণ খেলা উপহার দিয়েছিলেন তিনি। কলম্বো কোল্টসের সদস্যরূপে প্রিমিয়ার লীগের ১২ খেলায় অংশ নিয়ে ৫৮ উইকেট পান।ঘরোয়া ক্রিকেটে সুন্দর খেলা প্রদর্শনের স্বীকৃতিস্বরূপ এ দলের সদস্যরূপে দক্ষিণ আফ্রিকা গমনের পর ইংল্যান্ড যান। জাতীয় দলের ফাস্ট-বোলিং কোচ চম্পকা রামানায়েকে ও এ দলের কোচ চণ্ডিকা হাথুরুসিংহা’র সাথে আবদ্ধ স্থানে অনুশীলনে নিখুঁত নিশানায় বোলিংয়ের ত্রুটি দূরীকরণ হয়।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট[সম্পাদনা]

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে একটিমাত্র টেস্ট ও আটটিমাত্র একদিনের আন্তর্জাতিকে অংশগ্রহণ করেছেন ইশারা অমরসিংহ। ৩ এপ্রিল, ২০০৮ তারিখে পোর্ট অব স্পেনে স্বাগতিক ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। এটিই তার একমাত্র টেস্টে অংশগ্রহণ ছিল। এরপর আর তাকে কোন টেস্টে অংশগ্রহণ করতে দেখা যায়নি। অন্যদিকে, ১৮ মে, ২০০৭ তারিখে আবুধাবিতে পাকিস্তান দলের বিপক্ষে একদিনের আন্তর্জাতিকে অভিষেক ঘটে তার। ১০ এপ্রিল, ২০০৮ তারিখে পোর্ট অব স্পেনে স্বাগতিক ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের বিপক্ষে সর্বশেষ ওডিআইয়ে অংশ নেন তিনি।

২০০২ সালে শ্রীলঙ্কা দলের সাথে ইংল্যান্ড গমন করেন। তবে, জাতীয় দলে খেলার জন্যে তাকে আরও পাঁচ বছর ধৈর্য্যের প্রহর গুণতে হয়। এরজন্যে কার্যতঃ আংশিকভাবে ঐ সফরে পিঠের আঘাতপ্রাপ্তি দায়ী ছিল। ২০০৭ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপকে ঘিরে ৩০-সদস্যবিশিষ্ট শ্রীলঙ্কার প্রাথমিক দলে অন্তর্ভূক্ত হন। তবে, বিশ্বকাপের মূল দলে তাকে রাখা হয়নি।

২০০৮ সালের শুরুতে অস্ট্রেলিয়া গমনের সুযোগ পান। দিলহারা ফার্নান্দো’র স্থলাভিষিক্ত হন। ঐ মৌসুমে একটি টেস্ট ও কয়েকটি ওডিআইয়ে অংশ নেন। কিন্তু, ভালোমানের খেলা উপহার দিতে না পারায় তাকে জাতীয় দল থেকে উপেক্ষিত হতে হয়।

খুব সম্ভবতঃ লাসিথ মালিঙ্গা’র পর শ্রীলঙ্কার দ্বিতীয় দ্রুততম বোলারের মর্যাদা লাভ করেছেন। তবে, ক্যারিবীয় দ্বীপপুঞ্জে তিনি নিজেকে মেলে ধরতে পারেননি। বিশ্বকাপের পর আবুধাবিতে পাকিস্তানের বিপক্ষে খেলেন। সিরিজের প্রথম ওডিআইয়ে অভিষেক ঘটে। কিন্তু, কোন উইকেট লাভে ব্যর্থতার পরিচয় দেন। কিন্তু, ২০০৮ সালের সিবি সিরিজে বেশ ভালো খেলেন। ৩৫.৭৫ গড়ে ৮ উইকেট দখল করেন তিনি।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. List of Sri Lanka Test Cricketers
  2. "Sri Lanka – Test Batting Averages"। ESPNCricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২২ জুলাই ২০২০ 
  3. "Sri Lanka – Test Bowling Averages"। ESPNCricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২২ জুলাই ২০২০ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]