আমজাদ এম মুহাম্মদ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
আমজাদ এম মুহাম্মদ
উপাধিমুফতি, কাজী, ইমাম এবং ইসলামি পন্ডিত
ব্যক্তিগত
জন্ম
ধর্মইসলাম
জাতীয়তা যুক্তরাজ্য
যুগএকবিংশ শতাব্দীর দর্শন
আখ্যাসুন্নি
ব্যবহারশাস্ত্রহানাফি
আন্দোলনদেওবন্দি
প্রধান আগ্রহকুরআন, শরিয়াহ, হাদিস, ফিকহ, তাফসির, পশ্চিমা সংখ্যালঘু মুসলিম, ফিকহ আল-আকালিয়াত, ইসলামী অর্থনীতি, উসুল আল ফিকহ, ফতোয়া, ইসলামে নীতি
উল্লেখযোগ্য ধারণাপশ্চিমা সংখ্যালঘো মুসলিম বিচার ব্যবস্থা, শরিয়া হার্মিনিউটিক্স, ওয়েস্টার্ন ফিকহ আল নওয়াজিল, ফিকহ অফ মুনসাইটিং
যেখানের শিক্ষার্থীদারুল উলুম জামিয়া খাতামুন নাবিয়ীন
ব্র্যাডফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়
মুসলিম নেতা
ওয়েবসাইটwww.irtis.org.uk

আমজাদ এম মুহাম্মদ (উর্দু: امجد محمد‎) একজন ব্রিটিশ ইসলামি পণ্ডিত যিনি "ব্রিটিশ অলিভ ফাউন্ডেশনের" ডিন এবং প্রধান পণ্ডিত। তিনি ফিকহ, শরিয়া, অঙ্গদান,[১] চন্দ্রদর্শন, পশ্চিমা মুসলিম সংখ্যালঘুদের জন্য বিচারব্যবস্থা, পশ্চিমাদের মধ্যে মুসলিম শিক্ষা,[২] উসুল আল-ফিকহ এবং ইসলামি অর্থনীতি বিষয়ে ব্যাপক ভাবে বক্তৃতা দিয়েছেন। তিনি একাধিক শরিয়া ও ফতোয়া বোর্ডে বক্তব্য প্রদান করেন[৩] এবং ইসলামি ব্যাংকিং বা আর্থিক অনুসরনকারী বিভিন্ন আর্থিক প্রতিষ্ঠানে উপদেষ্টা পদে অধিষ্ঠিত আছেন।[৪]

দৃষ্টিভঙ্গি[সম্পাদনা]

তার প্রধান উদ্দেশ্য সংখ্যালঘুদের বিচার ব্যবস্থা (ফিকহ আল-আকালিয়াত) এবং ঐতিহ্য বা শরিয়া ভিত্তিক হারমেনিউটিক্সের ধারণার উপর।[৫] তার রচিত মুসলিম ইন নন-মুসলিম ল্যান্ডস: এ লিগেল স্টাডি উইথ অ্যাপ্লিকেশন বইটিতে ব্রিটিশ মুসলিমদের সমন্বয়, ঐক্য ও বিচ্ছিন্নতার ব্যখ্যা তুলে ধরেছেন। এই গবেষণার যুক্তি ছিল যে, ইসলাম মুসলমানদেরকে আদিবাসী জনসংখ্যা থেকে বিচ্ছিন্ন করে এবং 'একটি রাষ্ট্রের মধ্যে আরেকটি রাষ্ট্র গঠন করে' এই ধারণাটি মিথ্যা। বরং ইসলামি আইন আসলে সমাজের মানুষ দেরকে ঐক্যবদ্ধ করে।[৬]

ফতোয়া[সম্পাদনা]

ক্রিপ্টোকারেন্সি ওয়ানকয়েন বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ ক্রিপ্টো-স্ক্যাম হিসেবে বিবেচিত হয়। ওয়ানকয়েন দাবি করেছিল যে, তার কাছে একটি শরিয়াভিত্তিক প্রমাণপত্র চাইলে মুফতি আমজাদ মুহাম্মদকে অবিশ্বাসী মুসলিম বিনিয়োগকারীরা প্রশ্ন তুলতে শুরু করে। ওয়ানকয়েনের সাবধানতা অবলম্বনের পর তিনি ফতোয়া জারি করে বলেন যে, মুসলমানদের ওয়ানকয়েনে বিনিয়োগ করা উচিত নয়।[৭] এর জবাবে ওয়ানকয়েন দাবি করে যে, তারা তাদের টি অ্যান্ড সিএস পরিবর্তন করেছে, কিন্তু তারপরেও তিনি মুসলমানদের বিনিয়োগ না করার পরামর্শ দিয়েছেন। কারণ কোন ক্রিপ্টোকারেন্সি এক্সচেঞ্জে ওয়ানকয়েনকে পাওয়া যায়নি।[৮][৯][১০][১১][১২]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Our Bodies Belong to God, So What? God's Ownership vs. Human Rights in the Muslim Organ Transplantation Debate" (PDF)  line feed character in |শিরোনাম= at position 36 (সাহায্য)
  2. 5Pillars (২০১৯-০৮-২৮)। "Why did Muslim faith leaders issue a statement opposing pro-LGBT lessons at schools?"5Pillars। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১১-০২ 
  3. "Markaz al-Iftāʾ wa'l-Qaḍā"Wifaqul Ulama (Britain) (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৯-০৯-২৫। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১১-০২ 
  4. "Team"IRTIS (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১১-০২ 
  5. "Difference of Opinion: Where Do We Draw the Line? | Yaqeen Institute"Yaqeen Institute for Islamic Research (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১১-০২ 
  6. "Muslims in non-Muslim Lands – THE ISLAMIC TEXTS SOCIETY" (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১১-০২ 
  7. "Cryptocurrency: OneCoin, Bitcoin"Wifaqul Ulama (Britain) (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৬-১২-০২। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১১-০২ 
  8. "How the world's biggest crypto-scam targeted British Muslims | The Spectator" 
  9. Desk, News (অক্টোবর ৩০, ২০১৯)। "Pakistanis lost millions of dollars in OneCoin scam" 
  10. https://www.youtube.com/watch?v=yhYdFDiySGU&utm_content=buffer93725&utm_medium=social&utm_source=twitter.com&utm_campaign=buffer  |শিরোনাম= অনুপস্থিত বা খালি (সাহায্য)
  11. https://www.forexfraud.com/news/daily-fraud-update-23rd-october/  |শিরোনাম= অনুপস্থিত বা খালি (সাহায্য)
  12. https://www.youtube.com/watch?v=95w0NJJlA3w  |শিরোনাম= অনুপস্থিত বা খালি (সাহায্য)