অশ্লীলতা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

অশ্লীলতা (ইংরেজি: Obscenity) হল একটি পরিভাষা, যা এমন সব শব্দ, চিত্র ও কার্যক্রমকে বোঝাতে ব্যবহৃত হয় যেগুলো সমসাময়িক অধিকাংশ মানুষের যৌন নৈতিকতার দৃষ্টিতে অপরাধ বা দোষ হিসেবে বিবেচিত।[১] উক্ত শব্দটি প্রায়শই আইনগত দৃষ্টিকোণ হতে ব্যবহৃত হয়। এর মূল ইংরেজি শব্দ অবসিনিটি এসেছে ল্যাটিন শব্দ অবসেনাস থেকে, যার অর্থ "দোষ্ট, ঘৃণিত, রুচিহীন"।

এমনকি যদিও উক্ত শব্দটি দীর্ঘ সময় ব্যাপী যৌনতা-বিষয়ক সংজ্ঞা হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে এসেছে, তবু বর্তমান সময়ে "উস্কামিমুলক ঘৃণ্য কাজ" অর্থেও (যেমন obscene profit বা নোংরা মুনাফা, obscenity of war বা যুদ্ধের নোংরামি ইত্যাদি) শব্দটির ব্যবহার দেখা যায়। সাধারণভাবে এটি অভিশাপ অর্থে ব্যবহৃত হতে পারে, অথবা এমন যে কোন কিছুকে বোঝাতে ব্যবহৃত হতে পারে যা নিষিদ্ধ, অশালীন, ঘৃনিত বা বিরক্তিকর।

অশ্লীল হিসেবে বিবেচিত বিষয়াদির সংজ্ঞা নির্ভর করে উক্ত পরিভাষাটি যে সংস্কৃতিতে ব্যবহৃত হচ্ছে তার উপর। বিভিন্ন সম্প্রদায় ও ব্যক্তির কাছে "কোনটি অশ্লীল এবং কোনটি শালীন" তার ধারণা ভিন্ন হয়ে থাকে। তাছাড়া সময়ের সাথে সাথে অশ্লীল হিসেবে বিবেচিত বস্তুর সংজ্ঞাও পরিবর্তিত হয়। একটি সময়ে অশ্লীল হিসেবে বিবেচিত বিষয় অপর এক সময়ে আর অশ্লীল বলে গণ্য হয় না।

বহু সংস্কৃতিতে অশ্লীল বিষয়কে সংজ্ঞায়িত করে আইন প্রস্তুত করা হয়েছে।[২][৩][৪][৫][৬][৭] উক্ত সংজ্ঞানুযায়ী অশ্লীলতা সংবলিত বিষয়বস্তু বা উপাদানকে বাধাদান বা নিয়ন্ত্রণ করার জন্য প্রায়শই সেন্সরশিপ দপ্তরকে ব্যবহার করা হয়ঃ এই সকল বাধাদানকৃত বিষয়বস্তুতে সাধারণত পর্নোগ্রাফিক উপাদান অন্তর্ভুক্ত থাকে।[৮][৯][১০][১১]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

টীকা[সম্পাদনা]

  1. Merriam-Webster Online, accessed September 2010.
  2. Miller v. California, 413 U.S. 15, 24 (1972).
  3. Abramson, Larry (২৭ সেপ্টেম্বর ২০০৫)। "Federal Government Renews Effort to Curb Porn"Morning Edition (NPR)। সংগৃহীত ১১ এপ্রিল ২০১২ 
  4. Gellman, Barton (২০ সেপ্টেম্বর ২০০৫)। "Recruits Sought for Porn Squadn"The Washington Post। সংগৃহীত ১১ এপ্রিল ২০১২ 
  5. "Red Rose Stories Closed by FBI"XBiz। ৭ অক্টোবর ২০০৫। সংগৃহীত ১১ এপ্রিল ২০১২ 
  6. Ward, Paula Reed (2008-08-07) Woman pleads guilty to obscenity for child-sex story site. Pittsburgh Post-Gazette Retrieved 2011-05-08.
  7. Hudson, David (১৯৯৮-১০-২৮)। "Wisconsin high court could strike down obscenity law"First Amendment Center। সংগৃহীত ২০১১-০১-১৩ 
  8. Huston, William: "Under Color of Law, Obscenity vs. the First Amendment", Nexus Journal, Vol 10 (2005): 75:82.
  9. "Obscene, Indecent and Profane Broadcasts"। FCC। সংগৃহীত ২০১৩-০৮-১৭ 
  10. "Sex and violence - Censorship - actor, film, movie, show, cinema, scene"। Filmreference.com। সংগৃহীত ২০১৩-০৮-১৭ 
  11. Saeed Kamali Dehghan (18 January 2012) "Iran confirms death sentence for 'porn site' web programmer" The Guardian. Retrieved 21 December 2014.

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

আরও পড়ুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]

}