অজয় লালচেতা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
অজয় লালচেতা
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামঅজয় ব্রজলাল লালচেতা
জন্ম (1983-10-22) ২২ অক্টোবর ১৯৮৩ (বয়স ৩৫)
পরবন্দর, গুজরাত, ভারত
ব্যাটিংয়ের ধরনবাম-হাতি
বোলিংয়ের ধরনধীর বাম হাত অর্থোডক্স
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টি২০আই অভিষেক
(ক্যাপ 15)
২১ নভেম্বর ২০১৫ বনাম হংকং
শেষ টি২০আই১৭ ফেব্রুয়ারী ২০১৯ বনাম স্কটল্যান্ড
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টি২০আই টি২০
ম্যাচ সংখ্যা ১৮
রানের সংখ্যা ৩৭ ৪৪
ব্যাটিং গড় ১৮.৫০ ২২.০০
১০০/৫০ ০/০ ০/০
সর্বোচ্চ রান ১৬ ১৬
বল করেছে ২১৩ ৪০৫
উইকেট ১৪
বোলিং গড় ৩৯.৮৩ ৩২.৫০
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট n/a n/a
সেরা বোলিং ১/১৩ ২/১৩
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৩/– ৪/–
উৎস: ইএসপিএন ক্রিকইনফো, ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০১৯

অজয় ব্রজলাল লালচেতা (গুজরাটি: અજય લાલચતા; জন্ম ২২ অক্টোবর ১৯৮৩ পরবন্দর, সৌরাষ্ট্র রাজ্যে) একজন ভারতীয় বংশোদ্ভুত ওমানী ক্রিকেটার। ওমানে অভিবাসনের পূর্বে লালচেতা ভারতে অনুর্ধ বয়সী ক্রিকেট খেলেছে। ওমানের হয়ে ক্রিকেটে অভিষেক হয় ২০১১ সালের এসিসি টুয়েন্টি২০ কাপ প্রতিযোগিতার মধ্য দিয়ে। সে ২০১২ সালে সংযুক্ত আরব আমিরাতে আইসিসি বিশ্ব টুয়েন্টি২০ বাছাইপর্বে ৫টি ম্যাচ খেলে, যার সবকটি পূর্ণ টি২০ মর্যাদা সম্পন্ন।

প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

লালচেতা সৌরাষ্ট্র অনুর্ধ দলের প্রতিনিধি হয়ে অনেকগুলো মৌসুমে খেলেন। তিনি একজন বামহাতি ব্যাটসম্যান ও বাম-হাতি অর্থোডক্স স্পিনার। সে ১৫ বছর বয়সে বিজয় মার্চেন্ট ট্রফিতে সৌরাষ্ট্র অনুর্ধ-১৬ দলের হয়ে ১৯৯৮ সালে অভিষেক করে। উক্ত প্রতিযোগিতা দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১৮৭ রান সংগ্রহ করেন, আর সৌরাষ্ট্রের হয়ে মহেশ ভাটিয়া করেন সর্বোচ্চ ২০৪ রান।[১] যেখানে মহারাষ্ট্র অনুর্ধ-১৬ এর বিপক্ষে তার সর্বাধিক রান ছিল ৮৭।[২] ভারতের ঘরোয়া প্রতিযোগিতায় সি কে নাইডু ট্রফিতে সৌরাষ্ট্র অনুর্ধ-১৯ ও অনুর্ধ-২২ এর হয়ে লালচেতা'র শেষ খেলা ছিল ২০০৫ সালে।[৩]

ওমানে অবদান[সম্পাদনা]

ওমানএ অভিবাসনের পর, লালচেতা ওমান জাতীয় দলের হয়ে অভিষেক ম্যাচটি খেলেন সংযুক্ত আরব আমিরাতে অনুষ্ঠিত ২০১১ এসিসি টুয়েন্টি২০ কাপ প্রতিযোগিতায়। উক্ত প্রতিযোগিতায় ওমান তৃতীয় স্থান অধিকার করে এবং ২০১২ আইসিসি বিশ্ব টুয়েন্টি২০ বাছাইপর্বএর যোগ্যতা লাভ করে। লালচেতা উক্ত প্রতিযোগিতায় ১২.০০ বোলিং গড়ে ৮টি উইকেট লাভ করে।[৪]

আফগানিস্তানের বিপক্ষে ৩.৩ ওভারে ১৩ রান দিয়ে ৪টি উইকেট লাভ করে।[৫] বিশ্ব টুয়েন্টি২০ বাছাইপর্বে ওমান তাদের সবগুলো খেলায় পরাজিত হয়ে গ্রুপ বি'র সর্বশেষ দল হিসাবে প্রতিযোগিতা সমাপ্ত করে। কিন্তু ১৫তম স্থান নির্ধারণী খেলায় ডেনমার্ককে পরাজিত করে।[৬]

আন্তর্জাতিক জীবন[সম্পাদনা]

টুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে লালচেতা অভিষেক করে ২০১৫ সালের ২১ নভেম্বর হংকং এর বিপক্ষে।[৭] ২০১৬ আইসিসি বিশ্ব ক্রিকেট লীগ পঞ্চম বিভাগ খেলার জন্য সুলতান আহমেদ এর পরিবর্তে লালচেতাকে ওমান জাতীয় ক্রিকেট দলএর অধিনায়ক নির্বাচন করা হয়। [৮][৯][১০]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Batting and Fielding in Vijay Merchant Trophy 1998/99 (Ordered by Runs) – CricketArchive. Retrieved 1 February 2015.
  2. Saurashtra Under-16s v Maharashtra Under-16s, Vijay Merchant Trophy 1998/99 (West Zone) – CricketArchive. Retrieved 1 February 2015.
  3. Miscellaneous Matches played by Ajay Lalcheta (53) – CricketArchive. Retrieved 1 February 2015.
  4. Bowling in Asian Cricket Council Twenty20 Cup 2011/12 (Ordered by Wickets) – CricketArchive. Retrieved 1 February 2015.
  5. Afghanistan v Oman, Asian Cricket Council Twenty20 Cup 2011/12 (Group A) – CricketArchive. Retrieved 1 February 2015.
  6. ICC World Twenty20 Qualifier 2011/12 – CricketArchive. Retrieved 1 February 2015.
  7. "Hong Kong tour of United Arab Emirates, 1st T20I: Hong Kong v Oman at Abu Dhabi, Nov 21, 2015"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২১ নভেম্বর ২০১৫ 
  8. Ajay Lalcheta to captain Oman in World Cricket League Division 5
  9. OOman cricket: Injured Amir Ali out, Noorul Riaz in
  10. Lalcheta to lead Oman in World Cricket League

বাহিরের সংযোগ[সম্পাদনা]