পাকিস্তান

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(পাকিস্তানের ভূগোল থেকে ঘুরে এসেছে)
اسلامی جمہوریۂ پاکستان
ইস্‌লামী জুম্‌হূরিয়াতে পাকিস্তান্‌
ইসলামী প্রজাতন্ত্রী পাকিস্তান
পতাকা রাষ্ট্রীয় এমব্লেম
নীতিবাক্য
ইত্তেহাদ, তানজিম, ইয়াক্বিন-ই-মুহ্‌কাম  (উর্দূ)
"একতা, নিয়মানুবর্তিতা ও বিশ্বাস"
জাতীয় সঙ্গীত
কোয়ামি তারানা
রাজধানী ইসলামাবাদ
৩৩°৪০′ উত্তর ৭৩°১০′ পূর্ব / ৩৩.৬৬৭° উত্তর ৭৩.১৬৭° পূর্ব / 33.667; 73.167
বৃহত্তম শহর করাচি
রাষ্ট্রীয় ভাষাসমূহ উর্দু, ইংরেজি
সরকার অর্ধ-রাষ্ট্রপতি শাসিত প্রজাতন্ত্র
 -  রাষ্ট্রপতি আসিফ জারদারি
 -  প্রধানমন্ত্রী ইউসুফ গিলানী
গঠন
 -  স্বাধীনতা যুক্তরাজ্য থেকে 
 -  ঘোষিত আগস্ট ১৪ ১৯৪৭ 
 -  ইসলামী প্রজাতন্ত্র মার্চ ২৩ ১৯৫৬ 
আয়তন
 -  মোট ৮০৩,৯৪০ বর্গকিমি (৩৬তম)
৩৪০,৪০৩ বর্গমাইল 
 -  জলভাগ (%) ৩.১
জনসংখ্যা
 -  ২০০৭ আনুমানিক ১৫৬,৭৭০,০০০[১] (৬ষ্ঠ)
 -  ঘনত্ব ২০৬ /বর্গ কিমি (৫৩তম)
৫৩৪ /বর্গমাইল
জিডিপি (পিপিপি) ২০০৭ আনুমানিক
 -  মোট $৪৭৫.৬ বিলিয়ন (২৫তম)
 -  মাথাপিছু $৩,০০৪.৫ (১২৮তম)
জিনি (২০০২) ৩০.৬ (মধ্যম
এইচডিআই (২০০৬) ০.৫৩৯ (মধ্যম) (১৩৪তম)
মুদ্রা রুপি (Rs.) (পিকেআর)
সময় স্থান পিএসটি (ইউটিসি+৫)
 -  গ্রীষ্মকালীন (ডিএসটি) পর্যবেক্ষণ করা হয় না (ইউটিসি+৬)
ইন্টারনেট টিএলডি .পিকে
কলিং কোড ৯২
১. আজাদ কাশ্মীর এবং উত্তরাঞ্চলসমূহ ধরা হয়নি।

পাকিস্তান তথা ইসলামী প্রজাতন্ত্রী পাকিস্তান (উর্দু ভাষায়: اسلامی جمہوریۂ پاکستان ইস্‌লামী জুম্‌হূরিয়াতে পাকিস্তান্‌) দক্ষিণ এশিয়ায় অবস্থিত একটি দেশ। দেশটি দক্ষিণ এশিয়া, দক্ষিণ-পশ্চিম এশিয়া এবং মধ্য এশিয়ার সংযোগস্থলে অবস্থিত। পাকিস্তান ভারতীয় উপমহাদেশের অংশ। দেশটির প্রায় হাজার কিলোমিটার লম্বা সৈকতরেখা আছে। এর দক্ষিণদিকে (আরব সাগর)। পশ্চিমে রয়েছে আফগানিস্তানইরান, পূর্বে ভারত, এবং উত্তর-পূর্বে চীনের তিব্বতশিঞ্চিয়াং এলাকাগুলো। ইসলামাবাদ পাকিস্তানের রাজধানী। করাচি দেশটির বৃহত্তম শহর।


নামকরন[সম্পাদনা]

ফার্সি, সিন্ধি, ও উর্দু ভাষায়, "পাকিস্তান" নামটির অর্থ "পবিত্রদের দেশ"। নামটি আসে পাকিস্তানের তৎকালীন পশ্চিম অংশের পাঁচটি রাজ্যের নাম থেকে:

প - পাঞ্জাব
আ - আফগানিয়া (নর্থ-ওয়েস্ট ফ্রন্টির প্রভিন্স)
ক - কাশ্মীর
স - সিন্ধ
তান - বালুচিস্তান

১৯৩৪ সালে চৌধুরী রহমত আলী তাঁর "নাও অর নেভার" (Now or Never) পুস্তিকায় এই নামটির প্রস্তাব রাখেন, । [২]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

প্রারম্ভিক এবং মধ্যযুগীয় সময়কাল[সম্পাদনা]

প্রাচীন সিন্ধু অঞ্চল যা মোটামুটি বর্তমান পাকিস্তানের দক্ষিণ-পশ্চিম অংশ ছাড়া বাকিটা নিয়ে গঠিত, প্রাচীন কালে নব্য প্রস্তর যুগীয় মেহেরগড় সহ অনেক উন্নত সভ্যতার উৎপত্তিস্থল ছিল। ব্রোঞ্জ যুগে (২৮০০- ১৮০০খ্রিষ্টপূর্বাব্দ) সিন্ধু সভ্যতায় হরপ্পামহেঞ্জো-দাড়ো নামে দুটি উন্নত নগর ছিল। [৩][৪]
বৈদিক যুগে (১৫০০ - ৫০০খ্রিষ্টপূর্বাব্দ) ইন্দো আর্যদের মাধ্যমে এখানে হিন্দুদের গোড়াপত্তন হয়, যা পরবর্তীতে পুরো এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে।[৫][৬] মুলতান শহর হিন্দুদের গুরুত্বপূর্ণ তীর্থযাত্রা কেন্দ্রে পরিণত হয়।

ঔপনিবেশিক আমল[সম্পাদনা]

স্বাধীনতা এবং আধুনিক পাকিস্তান[সম্পাদনা]

১৯৪৭ সালে ভারতীয় উপমহাদেশ বিভাজনের মাধ্যমে ভারতপাকিস্তান এ' দুটি দেশের জ‌ন্ম হয়।

রাজনীতি[সম্পাদনা]

পাকিস্তানের রাজনীতি বর্তমানে একটি অর্ধ-রাষ্ট্রপতিশাসিত যুক্তরাষ্ট্রীয় প্রজাতন্ত্র কাঠামোয় সম্পাদিত হয়, যদিও অতীতে বিভিন্ন সময়ে সংসদীয় ও রাষ্ট্রপতি শাসিত ব্যবস্থার প্রচলন ছিল। রাষ্ট্রপতি হলেন রাষ্ট্রের প্রধান। সরকারপ্রধান হলেন প্রধানমন্ত্রী। রাষ্ট্রের নির্বাহী ক্ষমতা সরকারের উপর ন্যস্ত। আইন প্রণয়নের ক্ষমতা প্রধানত আইনসভার উপর ন্যস্ত।

২০০৮ সাল থেকে পাকিস্তানের বর্তমান রাষ্ট্রপতি হলেন আসিফ আলি জারদারি। আর একই সাল থেকে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী হলেন ইউসাফ রাজা গিলানি।

প্রশাসনিক অঞ্চলসমূহ[সম্পাদনা]

পাকিস্তানের মূল ভূখণ্ডটি কয়েকটি প্রশাসনিক অঞ্চলে বিভক্ত। যথা-

ভূগোল[সম্পাদনা]

পাকিস্তানকে তিনটি প্রধান ভৌগোলিক অঞ্চলে ভাগ করা যায়: উত্তরের উচ্চভূমি, সিন্ধু নদের অববাহিকা (যেটিকে পাঞ্জাব ও সিন্ধু প্রদেশে উপবিভক্ত করা যায়) এবং বেলুচিস্তান মালভূমি।

অর্থনীতি[সম্পাদনা]

জনসংখ্যা[সম্পাদনা]

ভাষাসমূহ[সম্পাদনা]

পাকিস্তানে প্রচলিত ভাষাসমূহ
ইন্দো-আর্য ভাষা ইরানীয় ভাষা দ্রাবিড় ভাষা
দার্দীয় ভাষা চীনা-তিব্বতী ভাষা বিচ্ছিন্ন ভাষা

পাকিস্তানের সরকারী ভাষা ইংরেজি এবং জাতীয় ভাষা উর্দু। এছাড়াও দেশটিতে পাঞ্জাবি, সিন্ধি, সারাইকি, পাশতু, বেলুচি, ব্রাহুই ইত্যাদি ভাষা প্রচলিত। অনেক ভাষাই ইন্দো-ইউরোপীয় ভাষাপরিবারের বিভিন্ন শাখার অন্তর্গত। উর্দু, পাঞ্জাবি ও সিন্ধি -আর্য ভাষাসমূহ, পশতু ও বেলুচি ইরানীয় ভাষাসমূহ, ব্রাহুই দ্রাবিড় ভাষাসমূহের অন্তর্গত। এছাড়া উত্তর ও উত্তর-পশ্চিমে বিভিন্ন দার্দীয় ভাষা যেমন খোওয়ার ও শিনা প্রচলিত।

জাতীয় পতাকা[সম্পাদনা]

FIAV 011000.svg অনুপাত: ২:৩

পাকিস্তানের জাতীয় পতাকার নকশা প্রণয়ন করেন সৈয়দ আমিরুদ্দিন কেদোয়াই। এই নকশাটি অল ইন্ডিয়া মুসলিম লীগের ১৯০৬ সালের পতাকার উপর ভিত্তি করে তৈরি করা হয়। পাকিস্তান স্বাধীনতা লাভ করার ৩ দিন আগে ১৯৪৭ সালের ১১ই আগস্ট তারিখে এই পতাকাটির নকশা গৃহীত হয়।

পতাকাটিকে পাকিস্তানে সাব্‌জ হিলালি পারচাম বলা হয়। উর্দু ভাষার এই বাক্যটির অর্থ হলো "নতুন চাঁদ বিশিষ্ট সবুজ পতাকা"। এছাড়াও এটাকে "পারচাম-ই-সিতারা আও হিলাল" অর্থাৎ "চাঁদ ও তারা খচিত পতাকা" বলা হয়ে থাকে।

তাৎপর্য[সম্পাদনা]

পতাকাটির খুঁটির বিপরীত দিকের গাঢ় সবুজ অংশটি ইসলাম ধর্মের প্রতীক। খুঁটির দিকে সাদা অংশ রয়েছে, যা পাকিস্তানে বসবাসরত সংখ্যালঘু অমুসলিমদের প্রতীক। পতাকার মধ্যস্থলে রয়েছে একটি সাদা নতুন চাঁদ, যা প্রগতির প্রতীক; এবং একটি পাঁচ কোনা তারকা, যা ইসলামের পাঁচটি স্তম্ভের প্রতীক।

আকার ও ব্যবহার[সম্পাদনা]

আকার[সম্পাদনা]

  • বিভিন্ন অনুষ্ঠানে ব্যবহারের জন্য. ২১' x ১৪', ১৮' x ১২', ১০' x ৬-২/৩' বা ৯' x ৬ ১/৪.
  • ভবনে ব্যবহারের জন্য. ৬' x ৪' or ৩' x ২'.
  • গাড়িতে ব্যবহারের জন্য ১২" x ৮".
  • টেবিলে ব্যবহারের জন্য ৬ ১/৪" x ৪ ১/৪".

যেসব অনুষ্ঠানে পতাকা উড্ডয়ন করা হয়[সম্পাদনা]

যেসব দিনে পতাকা অর্ধনমিত রাখা হয়[সম্পাদনা]

সংস্কৃতি[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Estimate of Pakistan Economic Survey of 2006-2007, prepared by the Ministry of Finance
  2. Text of the Now or Never pamphlet, issued on January 28, 1933
  3. Robert Arnett (15 July 2006)। India Unveiled। Atman Press। পৃ: 180–। আইএসবিএন 978-0-9652900-4-3। সংগৃহীত 23 December 2011 
  4. Meghan A. Porter। "Mohenjo-Daro"। Minnesota State University। আসল থেকে 22 December 2011-এ আর্কাইভ করা। সংগৃহীত 15 January 2010 
  5. Marian Rengel (2004)। Pakistan: a primary source cultural guide। New York, NY: The Rosen Publishing Group Inc। পৃ: 58–59,100–102। আইএসবিএন 0-8239-4001-2। সংগৃহীত 23 October 2011 
  6. "Britannica Online – Rigveda"। Encyclopædia Britannica। সংগৃহীত 16 December 2011 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]