সদাশিব পাতিল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সদাশিব পাতিল
সদাশিব পাতিল.jpg
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামসদাশিব রাওজী পাতিল
জন্ম(১৯৩৩-১০-১০)১০ অক্টোবর ১৯৩৩
কোলাপুর, মহারাষ্ট্র, ব্রিটিশ ভারত
মৃত্যু১৫ সেপ্টেম্বর ২০২০(2020-09-15) (বয়স ৮৬)
কোলাপুর, মহারাষ্ট্র, ভারত
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি ফাস্ট-মিডিয়াম
ভূমিকাঅল-রাউন্ডার
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
একমাত্র টেস্ট
(ক্যাপ ৭৯)
২ ডিসেম্বর ১৯৫৫ বনাম নিউজিল্যান্ড
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
১৯৫২/৫৩ - ১৯৬৩/৬৪মহারাষ্ট্র
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ৩৬
রানের সংখ্যা ১৪ ৮৬৬
ব্যাটিং গড় - ২৭.০৬
১০০/৫০ -/- -/-
সর্বোচ্চ রান ১৪* ৬৯
বল করেছে ১৩৮ ৫৭৫৩
উইকেট ৮৩
বোলিং গড় ২৫.৫০ ৩০.৬০
ইনিংসে ৫ উইকেট -
ম্যাচে ১০ উইকেট - -
সেরা বোলিং ১/১৫ ৫/৩৮
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ১/- ২০/-
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ১ ফেব্রুয়ারি ২০২০

সদাশিব রাওজী পাতিল (এই শব্দ সম্পর্কেউচ্চারণ ; মারাঠি: सदाशिव पाटील; জন্ম: ১০ অক্টোবর, ১৯৩৩ - মৃত্যু: ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০) তৎকালীন ব্রিটিশ ভারতের মহারাষ্ট্রের কোলাপুর এলাকায় জন্মগ্রহণকারী সাবেক ভারতীয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার ছিলেন। ভারত ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৫৫ সালে সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্যে ভারতের পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন।

ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর ভারতীয় ক্রিকেটে মহারাষ্ট্র দলের প্রতিনিধিত্ব করেন। দলে তিনি মূলতঃ অল-রাউন্ডার হিসেবে খেলতেন তিনি। ডানহাতি ফাস্ট-মিডিয়াম বোলিংয়ের পাশাপাশি নিচেরসারিতে ডানহাতে কার্যকরী ব্যাটিংশৈলী প্রদর্শন করেছেন সদাশিব পাতিল[১][২]

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

১৯৫২-৫৩ মৌসুম থেকে ১৯৬৩-৬৪ মৌসুম পর্যন্ত সদাশিব পাতিলের প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবন চলমান ছিল। মহারাষ্ট্রের পক্ষে ৩৬টি প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট খেলায় অংশ নিয়েছেন। ১৯৫২ থেকে ১৯৬৪ সময়কালে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছিলেন সদাশিব পাতিল। ২৬.৮৪ গড়ে ৮৫৯ রান ও ৩০.৬০ গড়ে ৮৩ উইকেট পেয়েছিলেন।

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে একটিমাত্র টেস্টে অংশগ্রহণ করেছেন সদাশিব পাতিল। ২ ডিসেম্বর, ১৯৫৫ তারিখে মুম্বইয়ে সফরকারী নিউজিল্যান্ড দলের বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। এটিই তার একমাত্র টেস্টে অংশগ্রহণ ছিল। এরপর আর তাকে কোন টেস্টে অংশগ্রহণ করতে দেখা যায়নি।

দল নির্বাচকমণ্ডলীর সভাপতি থাকাকালে লালা অমরনাথ অনেক উদীয়মান তরুণ ক্রিকেটারদের জাতীয় দলে অন্তর্ভুক্ত করেন। কিন্তু, সদাশিব পাতিলের টেস্টে অংশগ্রহণ বেশ সীমিত পর্যায়ের ছিল। তবে, বোম্বেতে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে খেলায় তিনি মন্দ খেলেননি। ১৪ রানে অপরাজিত ছিলেন। উভয় ইনিংসে জন রিডের উইকেট পান। খেলায় ২৩ ওভার বোলিং করে ৫১ রান খরচায় ২ উইকেট লাভ করেন। ঐ খেলায় তার দল জয় পেয়েছিল। তাসত্ত্বেও তাকে আর কোন টেস্টে অংশগ্রহণের সুযোগ দেয়া হয়নি। নিচেরসারিতে কার্যকরী ব্যাটসম্যান ছিলেন।

১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০ তারিখে মহারাষ্ট্রের কোলাপুর এলাকায় ৮৬ বছর বয়সে সদাশিব পাতিলের দেহাবসান ঘটে।[৩]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Player Profile: Sadashiv Patil"Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২৫ জানুয়ারি ২০১০ 
  2. "Player Profile: Sadashiv Patil"। CricketArchive। সংগ্রহের তারিখ ২৫ জানুয়ারি ২০১০ 
  3. "Sadashiv Patil, the former India allrounder, dies aged 86"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]