মুনমুন (অভিনেত্রী)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
মুনমুন
জন্ম
মুনমুন

বাসস্থানঢাকা, বাংলাদেশ
জাতীয়তাবাংলাদেশী
পেশাঅভিনেত্রী
কার্যকাল১৯৯৭–বর্তমান

মুনমুন বাংলাদেশের চলচ্চিত্র ইতিহাসের একজন জনপ্রিয় অভিনেত্রী।[১] তিনি প্রায় ৮৫টি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন।[২][৩] ২০০৩ সালের পর চলচ্চিত্রের মাঝে অশ্লীলতা বা নগ্নতা জেঁকে বসে আর ঠিক তখন মুনমুন চলচ্চিত্র শিল্প থেকে দূরে সরে যেতে থাকেন। এরপর তাকে বিভিন্ন সময় সার্কাস এ অভিনয় ও নৃত্য পরিবেশনা করতে দেখা যায়। ২০১৭ সালে তিনি আবার বাংলা চলচ্চিত্রে অভিনয় করতে ফিরে আসেন। মিজানুর রহমান মিজান পরিচালিত “রাগী” চলচ্চিত্রে একটি খল চরিত্রে অভিনয় করেছেন।[৪] "রাগী" ছাড়াও তিনি ৩-৪ টি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন নতুন করে। এর আগে ২০০৭ সালে আবার চলচ্চিত্রে ফিরে আসার চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু সেই সময় মাত্র ২টি চলচ্চিত্রে কাজ করে আবার দূরে চলে যান।

প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

মুনমুনের জন্ম ইরাকে। তবে তার পৈত্রিক নিবাস বাংলাদেশের চট্টগ্রামে। তার বাবা ও মায়ের বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটার পর তাদের অর্থকষ্টে পড়তে হয়েছিলো।[১]

শিক্ষা[সম্পাদনা]

মুনমুন উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করার পর আর পড়াশোনা করতে পারেন নি।[১]

চলচ্চিত্র[সম্পাদনা]

১৯৯৭ সালে এহতেসাম দাদুর মাধ্যমে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পে হাতেখড়ি হয় মুনমুনের।[৫] তিনি এহতেসামের সহকারী হিসেবে কাজ করতে এসেছিলেন। কিন্তু এহতেসাম তার অভিনয়ে দক্ষতা দেখে নায়িকা হওয়ার প্রস্তাব দেন। এহতেসাম পরিচালিত মৌমাছি চলচ্চিত্রে অভিষেক হয় মুনমুনের। কিন্তু চলচ্চিত্রটি ব্যবসায়িকভাবে লাভ করতে পারেনা। এতে মুনমুনকে ক্যারিয়ারের শুরুতেই থেমে যেতে হয়। এরপর তাকে কোন পরিচালক চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য প্রস্তাব দিতো না। এই সময় নৃত্যশিল্পী ও নৃত্যপরিচালক মাসুম বাবুলের সাথে সখ্যতা গড়ে উঠে মুনমুনের। মাসুম বাবুলের মাধ্যমে মুনমুন আবার বিভিন্ন চলচ্চিত্রে অভিনয়ের সুযোগ পান।[৬] পরিচালক দেলোয়ার জাহান ঝন্টূ পরিচালিত শক্তির লড়াই চলচ্চিত্রে মুনমুন অনবদ্য অভিনয় করে দর্শকের মন জয় করেন। মালেক আফসারী পরিচালিত মৃত্যুর মুখে তার একটি দারুন ব্যাবসা সফল চলচ্চিত্র। এছাড়াও, রানী কেনো ডাকাত, লংকাকাণ্ড, জানের জান, শত্রু সাবধান, জল্লাদ, রক্তের অধিকার প্রমুখ চলচ্চিত্রে অভিনয় করে চলচ্চিত্র অঙ্গনে ব্যাপক সাড়া ফেলেন ।

জুটি[সম্পাদনা]

মুনমুন বাংলাদেশের চলচ্চিত্রে অধিকাংশ নায়কের সাথে অভিনয় করেছেন। তার সাথে শাকিব খানের জুটি একসময় খুব জনপ্রিয় হয়েছিলো। শাকিব খানের প্রথম ব্যবসা সফল চলচ্চিত্র “বিষে ভরা নাগীন” এ নায়িকা ছিলেন মুনমুন। এরপর এই জুটিকে প্রায় ১৪টি চলচ্চিত্রে দেখা গেছে।[৭]

বিখ্যাত চলচ্চিত্র[সম্পাদনা]

  • বিষে ভরা নাগিন
  • দুই নাগিন
  • নিষিদ্ধ নারী
  • মৃত্যুর মুখে
  • রানী কেনো ডাকাত
  • লংকাকাণ্ড
  • জানের জান
  • শত্রু সাবধান
  • জল্লাদ
  • রক্তের অধিকার

সমালোচনা[সম্পাদনা]

বাংলাদেশী সাংবাদিকদের দৃষ্টিতে মুনমুন হলেন একজন অন্যতম বিতর্কিত নায়িকা। ২০০০ সালের দশকে বাংলাদেশি চলচ্চিত্রে নগ্নতা ব্যাপক ভাবে বৃদ্ধি পেয়েছিলো। এই সময়ে মুনমুন অভিনীত বেশ কিছু চলচ্চিত্রে নগ্নতা দেখা যায়। তবে মুনমুন কে কোন চলচ্চিত্রে নগ্ন ভাবে অভিনয় বা নৃত্য করতে দেখা যায় নাই । এই সময়ে মুনমুন ছিলেন একজন প্রথম সারির নায়িকা। তাকে হেয় বা সমালোচিত করতে একটি মহল তার নামের পাশে অশ্লীল শব্দের ব্যাবহার করা শুরু করে। তার নামের সাথে ঐ মহলের সংশ্লিষ্টরা "বি" গ্রেডের কিছু নায়িকার নাম জুড়ে দেয়াও শুরু করে। এসব দেখে মুনমুন চলচ্চিত্র ছেড়ে দেবার সিদ্ধান্ত নেন। এখানে জানিয়ে রাখা ভালো, মুনমুন সার্কাস এ অভিনয় এর পাশাপাশি নৃত্য পরিবেশন করেছেন কিন্তু তিনি কোন দিনই যাত্রায় অভিনয় করেন নি। । [৪]

সার্কাস[সম্পাদনা]

বাংলাদেশের চলচ্চিত্র থেকে দূরে সরে যাওয়ার পর মুনমুন অর্থকষ্টে ভোগেন। তিনি এই সময় আয় করার জন্য বিভিন্ন জেলা শহরে আয়োজিত বানিজ্য মেলাতে আসা সার্কাস অনুষ্ঠানে দ্বৈত নৃত্য পরিবেশনা শুরু করেন আর তিনি সাথে নেন পুরুষ নৃত্য শিল্পী । সাধারণত শীতকালে বাংলাদেশের গ্রাম ও মফস্বলে এই সার্কাস আয়োজন করা হয়ে থাকে। ২০১৭ সালের এক হিসেবে তিনি সে বছর শীতের মৌসুমে বাংলাদেশের ৪০টি জেলায় প্রায় ৬০টি সার্কাস এ অংশগ্রহণ করেছেন।[৮]

ব্যবসা[সম্পাদনা]

বর্তমানে মুনমুন গার্মেন্টস ব্যাবসার সাথে জড়িত। ঢাকার উত্তরায় তিনি একটি গার্মেন্টস প্রতিষ্ঠা করেছেন।[৬]

পরিবার[সম্পাদনা]

মুনমুন মোট ২ বার বিয়ে করেছেন। তার প্রথম বিয়ে হয় ২০০৩ সালে সিলেটের একজন ব্যাবসায়ির সাথে। তার সাথে তিনি যুক্তরাজ্যে চলে যান। ২০০৬ সালে তার প্রথম বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটে। ২০১০ সালে দ্বিতীয় বিয়ে করেন চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট একজন উদীয়মান নায়ক ও প্রযোজককে। এখন তার দুই পুত্র সন্তান রয়েছে। দুজন সন্তানকেই তিনি ইংরেজী মাধ্যমে পড়াশুনা করাচ্ছেন। [৬]

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "মুনমুন (Munmun) - বাংলা মুভি ডেটাবেজ"বাংলা মুভি ডেটাবেজ। ২০১৮-০১-২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০২-০৬ 
  2. "আবারো চলচ্চিত্রে ফিরছেন মুনমুন | বিনোদন | ABnews24"abnews24.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০২-০৬ 
  3. "বাজে পোশাকের কারণে অভিনয় ছেড়েছিলাম : মুনমুন"NTV Online। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০২-০৬ 
  4. "নায়িকা মুনমুন এখন খলনায়িকা | বিনোদন | The Daily Ittefaq"। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০২-০৬ 
  5. "কখনো যাত্রায় নাচিনি : মুনমুন"। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০২-০৬ 
  6. "অশ্লীল যৌনাবেদনময়ী নায়িকা মুনমুন, ময়ূরী এবং পলি এখন কোথায়? - Bdkhobor24.com"। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০২-০৬ 
  7. Kantho, Kaler। "মুনমুন-শাকিব জুটি বেঁধে করেছেন ১৪টি ছবি | কালের কণ্ঠ"Kalerkantho। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০২-০৬ 
  8. "কেমন আছেন নায়িকা মুনমুন ও ময়ূরী?"কেমন আছেন নায়িকা মুনমুন ও ময়ূরী?। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০২-০৬