ময়ূরী (অভিনেত্রী)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

মুনমুন আক্তার লিজা (মঞ্চ নাম ময়ূরী হিসাবে বেশি পরিচিত) হচ্ছেন একজন বাংলাদেশী চলচ্চিত্র অভিনেত্রী। তিনি প্রায় ৩০৯টি চলচ্চিতে অভিনয় করেছেন।[১] চলচ্চিত্রে অশ্লীলতা ও নগ্নতার জন্য তিনি সমালোচিত। ২০০৭ সালের পর থেকে চলচ্চিত্রে আর দেখা যায়নি তাকে।[২]

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

ময়ূরীর প্রকৃত নাম মুনমুন আক্তার লিজা। নবম শ্রেণিতে অধয়নকালীন তিনি চলচ্চিত্র শিল্পের সঙ্গে জড়িয়ে পরেন।

তিনি ২০০৭ সালে রেজাউল করিম মিলন নামে একজন উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যানের সঙ্গে পরিণয়সূত্র আবদ্ধ হন। তাদের মাইমুনা সাইবা অ্যাঞ্জেল নামে এক কন্যা সন্তান রয়েছে। ২০১৫ সালে তার স্বামী মারা গেলে,[১] ২০১৭ সালে শফিক জুয়েল নামে একজনকে বিয়ে করেন তিনি। তিনি ২০১৯ সালের ২৩ ফেব্রুয়ারি শেখ সাদ মুহাম্মদ ইনসাফ নামে দ্বিতীয় সন্তানের জন্ম দেন।[৩]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

ময়ূরী ১৯৯৮ সালে মৃত্যুর মুখে চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে চলচ্চিত্রে প্রবেশ করেন। তিনি মাহমুদ নামে একজন প্রযোজকের হাত ধরে চলচ্চিত্রে আসেন। নারগিস আক্তার পরিচালিত চার সতীনের ঘর চলচ্চিত্রে অভিনেতা আলমগীরের স্ত্রীর ভূমিকায় অভিনয় করে খ্যাতি অর্জন করেন।[১]

কর্মজীবনে নিউ অপেরা সার্কাস নামে একটি সার্কাস দলের সদস্য ছিলেন তিনি।

সমালোচনা[সম্পাদনা]

ময়ূরী খোলামেলা পোশাক, অশালীন অভিনয় ইত্যাদি কারণে ব্যাপক সমালোচিত হন। তাকে অশ্লীল চলচ্চিত্রের নায়িকা বলা হয়ে থাকে।

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "ময়ূরী (Moyuri) - বাংলা মুভি ডেটাবেজ"বাংলা মুভি ডেটাবেজ (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৮-০২-০৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০২-০৬ 
  2. sylnewsbd.com। "নায়িকা ময়ূরী থেকে খাদিজা ইসলাম"sylnewsbd.com (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৮-০২-২৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০২-০৬ 
  3. jugantor.com। "মাদ্রাসা শিক্ষককে বিয়ে করলেন চিত্রনায়িকা ময়ূরী"jugantor.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-০২-০৬