মালিকা পুখরাজ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
মালিকা পুখরাজ
প্রাইড অফ পারফরম্যান্স
Malika Pukhraj (1912-2004) in 1920s.jpg
১৯২০-এর দশকে কাশ্মীরে মালিকা পুখরাজ
প্রাথমিক তথ্য
জন্ম১৯১২
হামিরপুর সিধর, জম্মু ও কাশ্মীর, ব্রিটিশ ভারত (বর্তমান জম্মু ও কাশ্মীর, ভারত)
উদ্ভবকাশ্মীর
মৃত্যু৪ ফেব্রুয়ারি ২০০৪ (৯২ বছর বয়সে)
লাহোর, পাঞ্জাব, পাকিস্তান
ধরনলোকসঙ্গীতগজল
পেশাগায়িকা
লেবেলরেডিও পাকিস্তান
অল-ইন্ডিয়া রেডিও

মালিকা পুখরাজ (উর্দু: ملكہ پکھراج ‎‎) (১৯১২ - ২০০৪) ছিলেন পাকিস্তানের একজন অত্যন্ত জনপ্রিয় গজললোকসঙ্গীত শিল্পী। তিনি জনসাধারণের কাছে "মালিকা" নামে পরিচিত ছিলেন যার অর্থ "রাণী"। তিনি হাফিজ জলন্ধরির নাজম গান গেয়ে ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করেন। এছাড়া তাঁর আভি তো ম্যায়ঁ জওয়ান হুঁ (আমি এখনও তরুণ) গানটি শুধু পাকিস্তানিরাই নয়, বরং ভারতেরও লক্ষ লক্ষ শ্রোতা এটি উপভোগ করে থাকেন।[১] তাঁর অন্যান্য জনপ্রিয় গানগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল লো ফির বসন্ত আঈ, কুলি কুতুবের পিয়া বাজ পিয়ালা পিয়া যায় না, ফয়েজ আহমেদ ফয়েজের মেরে কাতিল মেরে দিলদার মেরে পাস রহো ইত্যাদি।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

মালিকা পুখরাজ হেমিরপুর সিদ্ধারের এক শিল্পী পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন।[২] তাঁর জন্মের সময় আখনুর অঞ্চলের প্রখ্যাত আধ্যাত্মিক সাধক বাবা রোটি রাম 'মাঝোব' তাঁর নাম রাখেন "মালিকা"। আর "পুখরাজ" (অর্থ: হলুদ নীলকান্তমণি) নামটি রেখেছিলেন তাঁর ফুফু যিনি নিজেও একজন পেশাদার সঙ্গীত ও নৃত্যশিল্পী ছিলেন।[৩][৪]

মালিকা পুখরাজ কিংবদন্তি সংগীতশিল্পী ওস্তাদ বড়ে গোলাম আলী খানের পিতা ওস্তাদ আলী বকশ কাসুরির কাছ থেকে সঙ্গীতের বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেছিলেন।[তথ্যসূত্র প্রয়োজন]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

নয় বছর বয়সে মালিকা জম্মুতে গিয়েছিলেন এবং মহারাজা হরি সিংহের রাজ্যাভিষেক অনুষ্ঠানে সঙ্গীত পরিবেশন করেছিলেন। হরি সিং তাঁর কণ্ঠস্বরে এতই মুগ্ধ হয়েছিলেন যে তিনি তাঁকে তাঁর দরবারে গায়িকা হিসাবে নিয়োগ করেছিলেন।[৫] মালিকা সেখানে আরও নয় বছর সঙ্গীত পরিবেশনের কাজ করেন।[৪]

১৯৪০ এর দশকে তিনি ছিলেন ভারতের একজন সুপরিচিত পেশাদার গায়িকা। ১৯৪৭ সালে ভারত ভাগের পর তিনি পাকিস্তানের লাহোরে চলে আসেন এবং সেখানে তিনি আরো বেশি জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন। মূলত, রেডিও পাকিস্তানে সুরকার কালে খানের সাথে সঙ্গীত পরিবেশন করেই তিনি এই খ্যাতি অর্জন করেন। তাঁর কণ্ঠস্বর পাহাড়ী অঞ্চলের লোকসঙ্গীত (পাহাড়ী গান)-এর জন্য বেশি উপযুক্ত।[তথ্যসূত্র প্রয়োজন]

১৯৮০ সালে তিনি পাকিস্তানের রাষ্ট্রপতির কাছ থেকে প্রাইড অফ পারফরম্যান্স পুরস্কার গ্রহণ করেন। ১৯৭৭ সালে অল ইন্ডিয়া রেডিওর (যেখানে মালিকা ১৯৪৭ সালের ভারতভাগের পূর্ব পর্যন্ত কাজ করতেন) সুবর্ণ জয়ন্তী উদ্‌যাপন উপলক্ষে তাঁকে ভারতে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল এবং সেখানে তাঁকে লিজেন্ড অব ভয়েস পুরস্কারে ভূষিত করা হয়েছিল।[৬] মালিকা পুখরাজ সং সাং ট্রু নামক উপন্যাসে তাঁর স্মৃতিকথাগুলো লিপিবদ্ধ করেছেন।

২০০৪ সালের ৪ঠা ফেব্রুয়ারি মালিকা পুখরাজ পাকিস্তানের লাহোরে মৃত্যু বরণ করেন। তাঁর শবযাত্রা ওয়েস্ট ক্যানেল ব্যাংকে তাঁর বাসভবন থেকে শুরু হয় এবং তাঁর বড় ছেলের বাড়িতে জানাযা অনুষ্ঠিত হয়। এরপর তাঁকে লাহোরের শাহ জামাল কবরস্থানে সমাহিত করা হয়।[৭]

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

মালিকা পুখরাজ শাব্বির হুসেন নামক পাঞ্জাবের এক জুনিয়র সরকারি অফিসার সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। তাঁদের মোট ছয় সন্তান ছিল। এদের মধ্যে তাহিরা সৈয়দ পাকিস্তানি সঙ্গীত শিল্পী হিসেবে খ্যাতি লাভ করেন।[৮][৯]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. https://www.youtube.com/watch?v=6F87TnnTdpw, "Abhi tau mein jawan hoon" song on YouTube by Malika Pukhraj, uploaded 10 May 2010. Retrieved 1 February 2016
  2. Prof RL Kaul, Kashmir and Jammu: A History pub Jammu: Indar V Press, 1955, p. 102
  3. http://www.dawn.com/news/783586/abhi-to-main-jawan-hoon&sa, Malika Pukhraj article on Dawn, Karachi newspaper. Retrieved 1 February 2016
  4. Biography, Biography of Malika Pukhraj on tripod.com website. Retrieved 1 February 2016
  5. Unparalleled queen of gayaki ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ২৩ জুন ২০০৪ তারিখে The Hindu, published 4 June 2004. Retrieved 1 February 2016
  6. http://www.thehindu.com/fr/2004/06/04/stories/2004060401970600.htm, Malika Pukhraj 'Biography', Unparalleled queen of gayaki, published 4 June 2004, The Hindu newspaper. Retrieved 1 February 2016
  7. http://www.radio.gov.pk/newsdetail/342/57, Death Anniversary of Malika Pukhraj, Radio Pakistan News website, published 4 February 2015. Retrieved 1 February 2016
  8. http://www.dawn.com/news/783586/abhi-to-main-jawan-hoon&sa, Biography of Malika Pukhraj on Dawn, Karachi newspaper, published 4 February 2013. Retrieved 1 February 2016
  9. https://www.youtube.com/watch?v=m9TG8Dhusg4, Tahira Syed 'Profile' on YouTube, uploaded 9 January 2012. Retrieved 1 February 2016