ভার্টিগো (চলচ্চিত্র)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
ভার্টিগো
Vertigomovie restoration.jpg
সল বাসের অঙ্কিত পোস্টার
পরিচালকঅ্যালফ্রেড হিচকক
প্রযোজকঅ্যালফ্রেড হিচকক
চিত্রনাট্যকার
  • অ্যালেক কোপেল
  • স্যামুয়েল এ. টেইলর
উৎসপিয়ের বোইলো
তোমা নারসেজাক কর্তৃক 
দঁত্র লে মোর্ত
শ্রেষ্ঠাংশে
সুরকারবার্নার্ড হারমান
চিত্রগ্রাহকরবার্ট বার্কস
সম্পাদকজর্জ টমাজিনি
প্রযোজনা
কোম্পানি
অ্যালফ্রেড জে. হিচকক প্রডাকশন্স
পরিবেশকপ্যারামাউন্ট পিকচার্স
মুক্তি
  • ৯ মে ১৯৫৮ (1958-05-09)
দৈর্ঘ্য১২৮ মিনিট
দেশমার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
ভাষাইংরেজি
নির্মাণব্যয়$২.৫ মিলিয়ন
আয়$৭.৩ মিলিয়ন[১]

ভার্টিগো (ইংরেজি: Vertigo, অনুবাদ 'শিরঘূর্ণন') হল অ্যালফ্রেড হিচকক রচিত ও পরিচালিত ১৯৫৮ সালের মার্কিন নোয়া মনস্তাত্ত্বিক রোমহর্ষক চলচ্চিত্র। এটি বোইলো-নারসেজাকের ১৯৫৪ সালের উপন্যাস দঁত্র লে মোর্ত অবলম্বনে নির্মিত। চলচ্চিত্রটির চিত্রনাট্য রচনা করেছেন অ্যালেক কোপেল ও স্যামুয়েল এ. টেইলর। এতে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেছেন জেমস স্টুয়ার্ট, যাকে একজন সাবেক গোয়েন্দা পুলিশ জন "স্কটি" ফার্গুসন চরিত্রে দেখা যায়। স্কটি তার দায়িত্ব পালনকালে একটি ঘটনার পর উচ্চতাভীতি ও শিরঘূর্ণনের কারণে নির্ধারিত সময়ের পূর্বেই অবসরে যেতে বাধ্য হন। স্কটিকে তার পরিচিত গ্যাভিন এলস্টার তাকে সাম্প্রতিক সময়ে অদ্ভুত আচরণ করা গ্যাভিনের স্ত্রী ম্যাডেলিনের (কিম নোভাক) পিছনে তদন্ত করা জন্য ব্যক্তিগত তদন্তকারী হিসেবে নিয়োগ দেন।

কুশীলব[সম্পাদনা]

  • জেমস স্টুয়ার্ট - জন "স্কটি" ফার্গুসন
  • কিম নোভাক - জুডি বার্টন ও ম্যাডেলিন এলস্টার
  • বারবারা বেল গেডেস - মার্জরি "মিজ" উড
  • টম হেলমোর - গ্যাভিন এলস্টার
  • হেনরি জোন্স - করোনার
  • রেমন্ড বেইলি - স্কটির ডক্টর
  • এলেন কর্বি - ম্যাকিট্রিক হোটেলের ব্যবস্থাপক
  • কনস্ট্যান্টিন শেইন - বইয়ের দোকানের মালিক পপ লেইবেল
  • লি প্যাট্রিক - ম্যাডেলিনের ভুল উঠে পড়া গাড়ির মালিক

মুক্তি[সম্পাদনা]

ভার্টিগো চলচ্চিত্রটির উদ্বোধনী প্রদর্শনী হয় ১৯৫৮ সালের ৯ই মে সান ফ্রান্সিস্কোর ম্যাসন অ্যান্ড গ্রে'র (বর্তমানে অগাস্ট হল নাইটক্লাব) স্টেজ ডোর থিয়েটারে।[২] $২,৪৭৯,০০০ ব্যয়ের নির্মিত চলচ্চিত্রটি মুক্তির পর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে $২.৮ মিলিয়ন আয় করে,[৩][৪][৫] যা অ্যালফ্রেড হিচককের অন্যান্য চলচ্চিত্রের তুলনায় অনেক কম।[২]

অনুপ্রাণিত কর্ম[সম্পাদনা]

  • কলঙ্গরাই বিলাক্কম, ভার্টিগো অবলম্বনে নির্মিত ১৯৬৫ সালের তামিল চলচ্চিত্র।[৬]
  • ওয়ান অন টপ অব দ্য আদার, লুসিও ফুলকি পরিচালিত ১৯৬৯ সালের জিয়ালো চলচ্চিত্র, যার অধিকাংশ ভার্টিগো থেকে অনুপ্রাণিত।[৭]
  • অবসেশন, ব্রায়ান দে পালমা পরিচালিত ১৯৭৬ সালের চলচ্চিত্র, যার অধিকাংশই ভার্টিগো থেকে অনুপ্রাণিত, এমনকি তার ১৯৮৪ সালের রোমহর্ষক বডি ডাবল চলচ্চিত্রটিও ভার্টিগোরিয়ার উইন্ডো চলচ্চিত্রের সমন্বিত গল্প থেকে নেওয়া।
  • হাই এংজাইটি, মেল ব্রুক্স পরিচালিত ১৯৭৭ সালের চলচ্চিত্র। এটি অ্যালফ্রেড হিচককের উৎকণ্ঠাধর্মী চলচ্চিত্রসমূহের ব্যঙ্গ, বিশেষ করে ভার্টিগো চলচ্চিত্রের।[৮]
  • সান্স সোলেইল, ক্রিস মার্কারের ১৯৮৩ সালের এই ভিডিও প্রবন্ধে এই চলচ্চিত্রের সূত্র ব্যবহার করা হয়।[৯]
  • "কারলোত্তা ভালদেজ", হার্ভি ড্যাঞ্জারের ১৯৯৭ সালের হোয়ার হ্যাভ অল দ্য মেরিমেকার্স গন? অ্যালবামের একটি গান, যেটাতে এই চলচ্চিত্রের কাহিনিসংক্ষেপ বিবৃত হয়েছে।[১০]
  • "লাস্ট কাপ অব সরো", জোসেফ কানের ১৯৯৭ সালের ফেইথ নো মোর-এর মিউজিক ভিডিও। এতে গায়ক মাইক প্যাটনকে স্কটি ফার্গুসন চরিত্রে এবং জেনিফার জেসন লেইকে ম্যাডেলিন চরিত্রে দেখা যায়।[১১]
  • দ্য টেস্টামেন্ট অব জুডিথ বার্টন, ওয়েন্ডি পাওয়ার্স ও রবিন ম্যাকলিওডের ২০১২ সালের উপন্যাস, যেটাতে কিভ নোভাকের অভিনীত চরিত্রের পূর্বের গল্প বলা হয়।[১২]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Vertigo (1958)"বক্স অফিস মোজো। সংগ্রহের তারিখ ১৮ জুন ২০২০ 
  2. ওইলার ২০০০, পৃ. ১৭৪
  3. মোনাকো ২০১০, পৃ. ১৫৩
  4. লেভ ২০০৬, পৃ. ২০৩-৪
  5. ক্যানিং ২০১০
  6. "The Illustrated Weekly of India" (ইংরেজি ভাষায়)। অক্টোবর ৯, ১৯৮৭। সংগ্রহের তারিখ ১৯ জুন ২০২০গুগল বুকস-এর মাধ্যমে। 
  7. শিপকা ২০১১, পৃ. ১০৭।
  8. প্যারিস ২০০৮, পৃ. ২২১
  9. "markertext.com : Chris Marker : Sans Soleil"মার্কারটেক্সট (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৯ জুন ২০২০ 
  10. "Harvey Danger: Where Have All The Merrymakers Gone?" (ইংরেজি ভাষায়)। স্পুটনিক মিউজিক। ৮ জুলাই ২০০৯। সংগ্রহের তারিখ ১৯ জুন ২০২০ 
  11. Faith No More (১৯৯৭)। "Last Cup of Sorrow"ইউটিউব। সংগ্রহের তারিখ ১৯ জুন ২০২০ 
  12. টমসন, ডেভিড (জুন ১০, ২০১২)। "Haunted by Hitchcock's 'Vertigo'"San Francisco Chronicle (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৯ জুন ২০২০ 

উৎস[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]