বিষয়বস্তুতে ঝাঁপ দিন

"লেন মাডকস" পাতাটির দুইটি সংশোধিত সংস্করণের মধ্যে পার্থক্য

বট নিবন্ধ পরিষ্কার করেছে। কোন সমস্যায় এর পরিচালককে জানান।
(সম্প্রসারিত রূপ!)
(বট নিবন্ধ পরিষ্কার করেছে। কোন সমস্যায় এর পরিচালককে জানান।)
 
== খেলোয়াড়ী জীবন ==
[[গিল ল্যাংলি|গিল ল্যাংলি’র]] সাথে গ্লাভস ভাগাভাগি করে নিতেন লেন মাডকস। ল্যাংলি আহত হলে তিনি তাঁরতার স্থলাভিষিক্ত হতেন। কিন্তু, [[ডন টলন]] এবং [[ওয়ালি গ্রাউট|ওয়ালি গ্রাউটের]] কাছ থেকে প্রচণ্ড চাপের মুখোমুখি হতে হতো তাঁকে।তাকে। অস্ট্রেলিয়ার অন্যতম [[অস্ট্রেলীয় টেস্ট উইকেট-রক্ষকদের তালিকা|সেরা গ্লাভসম্যান]] হওয়া স্বত্ত্বেও তিনি মাত্র সাতটি টেস্টে অংশ নিতে পেরেছিলেন।
 
১৯৫৬ সালে ম্যানচেস্টারের [[ওল্ড ট্রাফোর্ড ক্রিকেট গ্রাউন্ড|ওল্ড ট্রাফোর্ডে]] অনুষ্ঠিত স্বাগতিক [[ইংল্যান্ড ক্রিকেট দল|ইংল্যান্ডের]] প্রথিতযশা [[বোলিং (ক্রিকেট)|বোলার]] জিম লেকারের টেস্টে এক [[ইনিংস|ইনিংসের]] সবকটি [[উইকেট]] লাভের দশম ব্যাটসম্যান হিসেবে [[লেগ বিফোর উইকেট|এলবিডব্লিউতে]] আউট হলে তাঁকেতাকে মাঠ ছেড়ে চলে আসতে হয়। ‘লেকারের খেলা’ নামে পরিচিত ঐ টেস্টে ১৯ উইকেট দখল করেছিলেন [[জিম লেকার]]। বলাবাহুল্য, ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের কাছে তাঁরতার দল ঐ টেস্টে পরাজিত হয়েছিল।
 
== অবসর ==
প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট থেকে অবসর নেয়ার পর ক্রিকেট প্রশাসকের ভূমিকায় অবতীর্ণ হন তিনি। কিন্তু, [[দি অ্যাশেজ#1950 to 1980|১৯৭৭]] সালের [[অ্যাশেজ সিরিজের তালিকা|অ্যাশেজ]] সফরে ৩-০ ব্যবধানে সিরিজ পরাজিত হয় অস্ট্রেলিয়া। এছাড়াও, তাঁরতার ব্যবস্থাপকীয় কর্মপন্থা নির্ধারণের ফলে [[বিশ্ব সিরিজ ক্রিকেট|বিশ্ব সিরিজ ক্রিকেটে]] দ্বিধাবিভক্ত হয়ে পড়ে তাঁরতার নিজ দল।<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি | ইউআরএল = http://www.espncricinfo.com/magazine/content/story/562558.html| শিরোনাম = Len Maddocks counts his blessings| প্রথমাংশ = Brydon | শেষাংশ= Coverdale| লেখক-সংযোগ = Brydon Coverdale| তারিখ=26 April 2012}}</ref>
 
রিচার্ড মাডকস নামে তাঁরতার এক ভাই রয়েছে। তাঁরতার পুত্র ইয়ান মাডকসও রিচার্ডের পদাঙ্ক অনুসরণ করে ভিক্টোরিয়ার পক্ষে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট খেলেছেন। ২২ আগস্ট, ২০১৫ তারিখে তৎকালীন উদ্বোধনী বামহাতি ব্যাটসম্যান [[আর্থার মরিস|আর্থার মরিসের]] দেহাবসানের পর তিনিই সর্বাপেক্ষা বয়ষ্ক অস্ট্রেলীয় টেস্ট ক্রিকেটার ছিলেন।<ref>{{ওয়েব উদ্ধৃতি|ইউআরএল=http://stats.espncricinfo.com/ci/content/records/283742.html |শিরোনাম=List of oldest living Test players |প্রকাশক=Stats.espncricinfo.com |তারিখ= |সংগ্রহের-তারিখ=22 August 2015}}</ref> পরের মাসে হ্যারল্ড স্ট্যাপলটনের মৃত্যুর পর ও স্বীয় মৃত্যুর পূর্ব-পর্যন্ত তিনিই ছিলেন অস্ট্রেলিয়ার প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে জীবিত ব্যক্তি।<ref>(24 September 2015). [http://www.cricket.com.au/news/harold-stapleton-passes-away-australia-oldest-first-class-cricketer-cricket-nsw/2015-09-24 "Australia's oldest cricketer dies, aged 100"] – cricket.com.au. Retrieved 29 February 2016.</ref>
 
== তথ্যসূত্র ==
১,৮৫,২০১টি

সম্পাদনা