ফাহিম মুনতাসির

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ফাহিম মুনতাসির
ক্রিকেট তথ্য
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি অফ ব্রেক
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট ওডিআই
ম্যাচ সংখ্যা
রানের সংখ্যা ৫২
ব্যাটিং গড় ৮.৬৬ ৩.০০
১০০/৫০ -/- -/-
সর্বোচ্চ রান ৩৩
বল করেছে ৫৭৬ ১৬৯
উইকেট -
বোলিং গড় ৬৮.৪০ -
ইনিংসে ৫ উইকেট -/- - /-
ম্যাচে ১০ উইকেট -/- -/-
সেরা বোলিং ৩/১৩১ - /-
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ১/- ২/-
উৎস: ক্রিকইনফো, ৯ মে ২০১৭

ফাহিম মুনতাসির রহমান (জন্ম: ১ নভেম্বর, ১৯৮০) ময়মনসিংহে জন্মগ্রহণকারী বাংলাদেশের সাবেক আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার।[১] বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতে অফ ব্রেক বোলিংয়ে পারদর্শিতা দেখিয়েছেন। এছাড়াও, ডানহাতে ব্যাটিংয়ে পারদর্শিতা দেখিয়েছেন। ২০০১ থেকে ২০০২ সাল পর্যন্ত খুবই স্বল্পকালের জন্য বাংলাদেশ দলের পক্ষে ৩টি টেস্ট ও ৩টি ওডিআইয়ে অংশগ্রহণ করেছেন ফাহিম মুনতাসির

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

১৯৯৮-৯৯ মৌসুমে ঢাকা বিভাগের পক্ষে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। ২০০১ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তার ওডিআই অভিষেক ঘটে। কিন্তু তিনটি ওডিআইয়ে অংশ নিলেও কোন উইকেট লাভে ব্যর্থ হন তিনি। এরপর সফরকারী পাকিস্তানের বিপক্ষে ৯ জানুয়ারি, ২০০২ তারিখে টেস্ট অভিষেক ঘটে তার। ঢাকার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত দুই টেস্ট সিরিজের প্রথম টেস্টের প্রথম ইনিংসে দুই বল খেলে ওয়াকার ইউনুসের বলে শূন্য রানে বোল্ড হলেও দ্বিতীয় ইনিংসে দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩৩ রান তুলে দানিশ কানেরিয়ার শিকারে পরিণত হলেও একটি ছক্কা হাঁকান। তবে পাকিস্তানের একমাত্র ইনিংসে বল হাতে কোন উইকেট পাননি। ঐ খেলায় তার দল সর্বমোট তিন টেস্টে অংশ নিয়ে সর্বমোট পাঁচ-উইকেট পেয়েছিলেন।

২০০৭ সাল পর্যন্ত ঘরোয়া ক্রিকেটে তার দৃপ্ত পাদচারণা ছিল। এরপর তিনি ক্রিকেট থেকে অবসর নেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]