ফারাক্কা সুপার থার্মাল পাওয়ার স্টেশন

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ফারাক্কা সুপার থার্মাল পাওয়ার স্টেশন
দেশ ভারত
অবস্থাননবারুন, মুর্শিদাবাদ, পশ্চিমবঙ্গ, ভারত
স্থানাঙ্ক২৪°৪৬′১৫″ উত্তর ৮৭°৫৩′২৭″ পূর্ব / ২৪.৭৭০৯২৩২° উত্তর ৮৭.৮৯০৮০৬৪° পূর্ব / 24.7709232; 87.8908064স্থানাঙ্ক: ২৪°৪৬′১৫″ উত্তর ৮৭°৫৩′২৭″ পূর্ব / ২৪.৭৭০৯২৩২° উত্তর ৮৭.৮৯০৮০৬৪° পূর্ব / 24.7709232; 87.8908064
অবস্থাসক্রিয়
কমিশনের তারিখজানুয়ারি ১৯৮৬
নির্মাণ ব্যয়প্রথম পর্যায়: ৭৩০.৯৩ কোটি টাকা
দ্বিতীয় পর্যায়: ২,৪৫৩.২৯ কোটি টাকা
মালিকএনটিপিসি
পরিচালকএনটিপিসি
তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র
প্রধান জ্বালানিকয়লা
বিদ্যুৎ উত্পাদন
কর্মক্ষম একক৬ টি
নামফলক ধারণক্ষমতা২১০০ মেগাওয়াড

ফারাক্কা সুপার থার্মাল পাওয়ার স্টেশন হল পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের মুর্শিদাবাদ জেলার নবারুন গ্রামে অবস্থিত একটি কয়লা ভিত্তিক তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র। বিদ্যুৎ কেন্দ্রটি ১৯৮৬ সালে চালু হয়। বর্তমানে এই বিদ্যুৎ কেন্দ্রের মোট উৎপাদন ক্ষমতা ২,১০০ মেগাওয়াট। এনটিপিসি দ্বারা এটি বিদ্যুৎ কেন্দ্র পরিচালিত হয়। বিদ্যুৎ কেন্দ্রে বিদ্যুৎ উৎপাদনের জন্য মোট ৬ টি ইউনিট রয়েছে।

এই বিদ্যুৎ কেন্দ্র থেকে বিদ্যুৎ পশ্চিমবঙ্গ, বিহার, ঝাড়খণ্ড, ওড়িশা, সিকিম, আসাম এবংত্রিপুরা রাজ্যে সরবরাহ করা হয়।[১]

অবস্থান[সম্পাদনা]

ফারাক্কা সুপার থার্মাল পাওয়ার স্টেশন বা ফারাক্কা তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রটি মুর্শিদাবাদ জেলার নবারুণ গ্রামে ফিডার খালের ডান তীরে অবস্থিত। বিদ্যুৎ কেন্দ্রটির ভৌগলিক হল ২৪°৪৬′১৫″ উত্তর ৮৭°৫৩′২৭″ পূর্ব / ২৪.৭৭০৯২৩২° উত্তর ৮৭.৮৯০৮০৬৪° পূর্ব / 24.7709232; 87.8908064। এটি জেলা সদর বহরমপুর থেকে ৯০ কিলোমিটার উত্তর-পশ্চিম দিকে এবং কলকাতা শহর থেকে ২৮৩ কিলোমিটার উত্তর দিকে অবস্থিত।[২]

ইতিহাস[সম্পাদনা]

পরিকাঠাম[সম্পাদনা]

উৎপাদন ক্ষমতা[সম্পাদনা]

কেন্দ্রটির মোট উৎপাদন ক্ষমতা ২,১০০ মেগাওয়াট। [১]

ধাপ ইউনিটের ক্রমিক সংখা উৎপাদন ক্ষমতা স্থাপনের তারিখ
প্রথম ২০০ জানুয়ারি ১৯৮৬
প্রথম ২০০ ডিসেম্বর ১৯৮৬
প্রথম ২০০ আগস্ট ১৯৮৭
প্রথম ৫০০ সেপ্টেম্বর ১৯৯২
দ্বিতীয় ৫০০ ফ্রেবুয়ারি ১৯৯৪
তৃতীয় ৫০০ এপ্রিল ২০১২
মোট ২,১০০

কয়লার যোগান[সম্পাদনা]

বিদ্যুত কেন্দ্রটিতে কয়লার যোগান দেয় ইস্টনার্স কোল লিমিটেড ।[৩] রাজমহল কয়লা খনি থেকে এখানে কয়লা আনা হয়।[৪] এছাড়া কিছু পরিমান উন্নতমানুর কয়ালা আমদানি করা হয় ইন্দনেশিয়া থেকে।এই কয়লা প্রথমে বড় জাহজে করে হলদিয়া বন্দর বা স্যান্ডহেড-এ আনা হয় এর পর জিন্দাল আইটিএফ সংস্থা বার্জ-এ কয়লা বহন করে জাতীয় জলপথ ১ দ্বারা হলদিয়া থেকে কয়লা ফারাক্কা বন্দর-এ পৌচ্ছানো হয়।এর পর কয়লা ফারাক্কা বিদ্যুৎ কেন্দ্রে যায়।[৫]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]