পানামা পেপার্স

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
সরাসরি যাও: পরিভ্রমণ, অনুসন্ধান
যে সকল রাষ্ট্র, রাষ্ট্রপ্রধান ও তারকাদের অর্থ পাচারের ঘটনা ফাঁস হয়েছে ৩ এপ্রিল ২০১৬।[১]

পানামা পেপার্স[২] প্রকাশ করেছে ১১.৫ মিলিয়ন গোপন নথি, যেখানে ২১৪,০০০ এর বেশি কম্পানির নাম উঠে এসেছে। আর এটি জার্মান দৈনিক জিটডয়েচ সাইতং প্রকাশ করেছে ৩ এপ্রিল ২০১৬ খ্রিষ্টব্দে। যে পাঁচটি দেশের রাষ্ট্রপ্রধানের নাম আছে, সে দেশ গুলো হলো– আর্জেন্টিনা, আইসল্যান্ড, সৌদি আরব, ইউক্রেনসংযুক্ত আরব আমিরাত। এই তালিকায় আরও স্থান পেয়েছে, ব্রাজিল, চিলি, ফ্রান্স, ভারত, মালয়েশিয়া, মেক্সিকো, পাকিস্তান, পেরু, রোমানিয়া,অস্ট্রেলিয়া, আজারবাইজান, বাংলাদেশ, চিন, কলম্বিয়া, সাইপ্রাস, ইউরোপীয় ইউনিয়ন, মিশর, ইসরায়েল, নিউজিল্যান্ড, নরওয়ে, পানামা, সিঙ্গাপুর, সুইডেন, থাইল্যান্ড, তিউনিসিয়া, যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, স্পেন, সিরিয়া, যুক্তরাজ্য সহ বেশ কটি দেশের সরকার প্রধান, রাষ্ট্রপ্রধান, ক্রিয়াবিদ, চলচিত্র অভিনেতা, রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, ব্যবসায়ীদের নাম।

ফাঁস[সম্পাদনা]

কমপক্ষে এক বছর পরে পানামা পেপার ফাঁস হয় এপ্রিল ২০১৬। [৩] মোসাক ফনসেকা নামক আইনি প্রতিষ্ঠানটি নির্দিষ্ট ফি নেয়ার মাধ্যমে মক্কেলদের বেনামে বিভিন্ন ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলে। এর মাধ্যমে তারা সম্পদ গোপন এবং কর ফাঁকি দিয়ে ওই অপ্রদর্শিত আয়কে বৈধ উপায়ে ব্যবহারের সুযোগ পান। মোসাক ফনসেকার বিপুলসংখ্যক নথি ফাঁস হওয়ার পর জানাজানি হয়, এই প্রতিষ্ঠান প্রভাবশালী বিদেশীদের অর্থ পাচার, আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞার আওতায় থাকা ব্যক্তিদের অর্থ বিনিয়োগ ও কর ফাঁকি দিতে সহায়তা করেছে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ধনী ও ক্ষমতাবান ব্যক্তি থেকে শুরু করে রাষ্ট্রপ্রধান পর্যন্ত কিভাবে কর ফাঁকি দিয়ে সম্পদ গোপন করেন এবং কিভাবে অর্থ পাচার করেন তা উন্মোচিত হয়েছে নথিগুলো ফাঁস হওয়ার পর। জার্মান দৈনিক জিটডয়েচ সাইতং সর্ব প্রথম এই নথি গুলো হাতে পায়। পরে তারা বলেছে ফাঁস হওয়া ১ কোটি ১৫ লাখ নথির সব নথি প্রকাশ করা হবে না। [৪]

জড়িত ব্যক্তি[সম্পাদনা]

আর্জেন্টিনার রাষ্ট্রপতি মরিসিও মাকরি

চিনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের পরিবার, পাক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফেরও নামও। আইসল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী, ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট, সৌদি আরবের রাজার নামও রয়েছে পানামা পেপারে। এছাড়া ফুটবলার লিওনেল মেসি বলিউড অভিনেতা অমিতাভ বচ্চনের নাম।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের আমির (রাষ্ট্রপ্রধান) খলিফা বিন জায়েদ আল নাহিয়ান


তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিসংযোগ[সম্পাদনা]