খলিফা বিন জায়েদ আল নাহিয়ান

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
খলিফা বিন জায়েদ আল নাহিয়ান
Khalifa Bin Zayed Al Nahyan-CROPPED.jpg
খলিফা বিন জায়েদ আল নাহিয়ান (১৯৯৭ খৃঃ)
সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাষ্ট্রপতি
কাজের মেয়াদ
৩ নভেম্বর ২০০৪ – ১৩ মে ২০২২
প্রধানমন্ত্রীমাকতুম বিন রশিদ আল মাকতুম
মোহাম্মদ বিন রশিদ আল মাকতুম
পূর্বসূরীমাকতুম বিন রশিদ আল মাকতুম
আবুধাবির আমির
কাজের মেয়াদ
২ নভেম্বর ২০০৪ – ১৩ মে ২০২২
পূর্বসূরীজায়েদ বিন সুলতান আল নাহিয়ান
উত্তরসূরীমোহাম্মদ বিন জায়েদ আল নাহিয়ান
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম(১৯৪৮-০৯-০৭)৭ সেপ্টেম্বর ১৯৪৮
আল আইন, ট্রুশিয়াল রাষ্ট্র
(বর্তমান সংযুক্ত আরব আমিরাত)
মৃত্যু১৩ মে ২০২২(2022-05-13) (বয়স ৭৩)
দাম্পত্য সঙ্গীশামসা বিনতে সুহাইল আল মাযরুয়ী
সন্তানসুলতানমুহাম্মদ সহ মোট ৮ জন
পিতামাতাজায়েদ বিন সুলতান আল নাহিয়ান (পিতা)
হাসসা বিনতে মুহাম্মদ আল নাহিয়ান (মাতা)
ধর্মইসলাম

শেখ খলিফা বিন জায়েদ বিন সুলতান আল নাহিয়ান (আরবি: خليفة بن زايد بن سلطان آل نهيان‎‎‎ ৭ সেপ্টেম্বর ১৯৪৮ – ১৩ মে ২০২২) ছিলেন একাধারে সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাষ্ট্রপতি বা রইস, আবুধাবির আমীর এবং রাষ্ট্রীয় সামরিক বাহিনীর প্রধান।[১] একজন প্রখ্যাত দানবীর খলিফা বিন জায়েদ বিন সুলতান আল নাহিয়ান নিজের সম্পদ হতে দুঃস্থ্যদের সহায়তায় এ পর্যন্ত ৪৬০ মিলিয়ন মার্কিন ডলারেরও অধিক ব্যয় করেছেন।[২]

তিনি দুবাইয়ের আমীর পদে আসীন হন ২০০৪ সালে। অতপর, তার পিতা জায়েদ বিন সুলতান আল নাহিয়ানের মৃত্যু হলে তিনি এ সংযুক্ত রাষ্ট্রের প্রধান হিসাবে দায়িত্বভার গ্রহণ করেন। ইতিপূর্বে যুবরাজ থাকাকালে তার পিতা অসুস্থ্যতার কারণে ১৯৯০ সালের শেষ দিক হতেও তিনি রাষ্ট্রপ্রধানের ন্যায় দায়িত্ব পালন করেন। তিনি আবুধাবী ইনভেষ্টমেন্ট অথরিটিরও চেয়ারম্যান হিসাবে দায়িত্বের নিয়োজিত রয়েছেন যা ৬০০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার বা ততোধিক সমূল্যের সম্পদের ব্যবস্থাপনা করে থাকে। ধারণা করা হয় যে, অত্র আল নাহিয়ান পরিবারের মোট সম্পদের পরিমাণ প্রায় ১৫০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।[৩]

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

খলিফা ১৯৪৮ সালের ৭ সেপ্টেম্বর চুক্তিবদ্ধ রাষ্ট্রের (বর্তমান আবুধাবির) আল আইন শহরের কস্‌র আল-মুওয়াইজি'তে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ছিলেন জায়েদ বিন সুলতান আল নাহিয়ানহাসসা বিনতে মুহাম্মদ আল নাহিয়ানের বড় ছেলে।[৪][৫] তিনি রয়্যাল মিলিটারি অ্যাকাডেমি স্যান্ডার্সের শিক্ষার্থী ছিলেন।[৬]

মৃত্যু[সম্পাদনা]

শেখ খলিফা ২০২২ সালের ১৩ মে, ৭৩ বছর বয়সে মৃত্যুবরণ করেন।[৭] তার মৃত্যুতে সংযুক্ত আরব আমিরাতে ৩ দিনের সাধারণ ছুটি সহ মোট ৪০ দিনের রাষ্ট্রীয় শোক ঘোষণা করা হয়, যাতে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখা হবে।[৮]

আমিরাতের পাশাপাশি আরও বেশ কিছু রাষ্ট্রে শোক পালনের ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। জর্ডান[৯] ও কুয়েত[১০] ৪০ দিনের রাষ্ট্রীয় শোক পালনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। বাহরাইন,[১১] লেবানন,[১২] ওমান,[১৩] মৌরিতানিয়া,[১৪] কাতার[১৫] ও পাকিস্তানে[১৬] ৩ দিনের রাষ্ট্রীয় শোক ঘোষণা করা হয়েছে। বাংলাদেশ[১৭] ও ভারতে[১৮] পালিত হচ্ছে এক দিনের রাষ্ট্রীয় শোক।

সম্মাননা[সম্পাদনা]

  •  ব্রাজিল: কলার অব দ্য অর্ডার অব সাউদার্ন ক্রস (১২ নভেম্বর ২০২১)[১৯]
  •  স্পেন:
    • নাইট গ্র্যান্ড ক্রস অব দ্য অর্ডার অব ইসাবেলা দ্য ক্যাথলিক (৪ ডিসেম্বর ১৯৮১)[২০]
    • নাইট গ্র্যান্ড ক্রস উইথ কলার অব দ্য অর্ডার অব সিভিল মেরিট (২৩ মে ২০০৮)[২১]
  •  যুক্তরাজ্য:
    • সম্মানসূচক নাইট গ্র্যান্ড ক্রস অব দ্য মোস্ট অনারেবল অর্ডার অব দ্য বাথ (২৫ নভেম্বর ২০১০)[২২]
    • সম্মানসূচক নাইট গ্র্যান্ড ক্রস অব দ্য মোস্ট ডিস্টিঙ্গুইশড অর্ডার অব সেন্ট মাইকেল অ্যান্ড সেন্ট জর্জ
  •  নেদারল্যান্ডস: নাইট গ্র্যান্ড ক্রস অব দ্য অর্ডার অব দ্য নেদারল্যান্ডস লায়ন (৮ জানুয়ারি ২০১২)[২৩]
  •  দক্ষিণ কোরিয়া: গ্র্যান্ড অর্ডার অব মুগুংওয়া (২১ নভেম্বর ২০১২)[২৪]
  •  ইউক্রেন: অর্ডার অব প্রিন্স ইয়ারোস্লভ দ্য ওয়াইজ ১ম শ্রেণি (২৬ নভেম্বর ২০১২)[২৫]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Khalifa bin Zayed Al-Nahyan"ফোর্বস। সংগ্রহের তারিখ ২৬ জুন ২০১২ 
  2. Zayed Day: A celebration of philanthropy
  3. Pendleton, Devon (১১ মার্চ ২০০৯)। "The Gulf's Newest Billionaire"ফোর্বস। সংগ্রহের তারিখ ১১ এপ্রিল ২০১৩ 
  4. "Sheikha Hessa, mother of Sheikh Khalifa, dies"দ্য ন্যাশনাল। সংযুক্ত আরব আমিরাত। সংগ্রহের তারিখ ৩০ মে ২০২২ 
  5. "The UAE President"যুবরাজের দরবার। সংগ্রহের তারিখ ৩০ মে ২০২২ 
  6. "Things You Didn't Know About Khalifa bin Zayed"ইউএই ভয়েস (ইংরেজি ভাষায়)। ২১ মে ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ৩০ মে ২০২২ 
  7. "President Sheikh Khalifa dies aged 73"দ্য ন্যাশনাল (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২২-০৫-১৩। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০৫-১৩ 
  8. "UAE President Sheikh Khalifa bin Zayed passes away"গালফ নিউজ (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০৫-১৩ 
  9. "Jordan's King Abdullah declares 40 days of mourning for UAE's Sheikh Khalifa"দ্য ন্যাশনাল (ইংরেজি ভাষায়)। ১৩ মে ২০২২। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০৫-১৪ 
  10. "UAE President Khalifa bin Zayed Al Nahyan passes away"কুয়েত টাইমস (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০৫-১৪ 
  11. "Bahrain mourns Sheikh Khalifa bin Zayed, announces mourning and flags at half-mast"سكاي نيوز عربية (আরবি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০৫-১৩ 
  12. "Lebanon declares official mourning for Sheikh Khalifa bin Zayed and flags at half-mast for 3 days"www.albayan.ae (আরবি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০৫-১৩ 
  13. "سلطنة عمان تعلن الحداد 3 أيام على روح الشيخ خليفة بن زايد"العين الإخبارية (আরবি ভাষায়)। ২০২২-০৫-১৩। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০৫-১৩ 
  14. "Mauritania declared three days of national mourning"العين الإخبارية (আরবি ভাষায়)। ২০২২-০৫-১৩। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০৫-১৩ 
  15. "The Emir of Qatar mourns Sheikh Khalifa bin Zayed"صحيفة الخليج (আরবি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০৫-১৩ 
  16. "Pakistan announces three days national mourning over demise of Sheikh Khalifa bin Zayed Al-Nahyan"রেডিও পাকিস্তান (ইংরেজি ভাষায়)। 
  17. "সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রেসিডেন্টের মৃত্যুতে শনিবার বাংলাদেশে রাষ্ট্রীয় শোক দিবস"ভয়েস অফ আমেরিকা বাংলা। ১৩ মে ২০২২। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০৫-১৪ 
  18. "আমিরশাহীর রাষ্ট্রপতির মৃত্যুতে শনিবার রাষ্ট্রীয় শোক ভারতে, হবে না কোনও সরকারি অনুষ্ঠান"টিভি৯ বাংলা। ২০২২-০৫-১৩। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০৫-১৪ 
  19. "Bolsonaro condecora líderes do Oriente Médio antes de viagem à região"noticias.uol.com.br (পর্তুগিজ ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-১১-১২ 
  20. "Otras disposiciones" (PDF)Boletín Oficial del Estado (ইংরেজি ভাষায়)। ১৯৮১-১২-০৪। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৩-০৯ 
  21. "REAL DECRETO 890/2008" (PDF)Boletín Oficial del Estado (ইংরেজি ভাষায়)। ২০০৮-০৫-২৭। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৫-২৮ 
  22. "Khalifa, Queen Elizabeth II exchange orders"গালফ নিউজ (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১০-১১-২৬। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৫-২৮ 
  23. "Khalifa welcomes HM Queen Beatrix of Netherlands"Khaleej Times (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১২-০১-০৮। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৫-২৮ 
  24. "Korean leader hails UAE achievements"Khaleej Times (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১২-১১-২২। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৫-২৮ 
  25. "Янукович і Президент ОАЕ обмінялися орденами" (ইউক্রেনীয় ভাষায়)। ২৬ নভেম্বর ২০২২। সংগ্রহের তারিখ ১৩ মে ২০২২