নীলন্ত রত্নায়েকে

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
নীলন্ত রত্নায়েকে
නිලන්ත රත්නායක
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামনীলন্ত লক্ষীত কিতসিরি রত্নায়েকে
জন্ম২২ নভেম্বর, ১৯৬৮
কলম্বো, শ্রীলঙ্কা
ব্যাটিংয়ের ধরনবামহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি ফাস্ট-মিডিয়াম
ভূমিকাবোলার
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ৫৬)
২৪ মার্চ ১৯৮৯ বনাম পাকিস্তান
শেষ ওডিআই১০ ফেব্রুয়ারি ১৯৯০ বনাম পাকিস্তান
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা ওডিআই
ম্যাচ সংখ্যা
রানের সংখ্যা -
ব্যাটিং গড় -
১০০/৫০ -/-
সর্বোচ্চ রান -
বল করেছে ১৬.৫
উইকেট
বোলিং গড় ৪৯.০০
ইনিংসে ৫ উইকেট -
ম্যাচে ১০ উইকেট -
সেরা বোলিং ১/৩৯
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং -/-
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১

নীলন্ত লক্ষীত কিতসিরি রত্নায়েকে (সিংহলি: නිලන්ත රත්නායක; জন্ম: ২২ নভেম্বর, ১৯৬৮) কলম্বো এলাকায় জন্মগ্রহণকারী সাবেক শ্রীলঙ্কান আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার। শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৮০-এর দশকের শেষদিকে সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্যে শ্রীলঙ্কার পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন।[১]

ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটে সিংহলীজ স্পোর্টস ক্লাবের প্রতিনিধিত্ব করেন। দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতি ফাস্ট-মিডিয়াম বোলিং করতেন। এছাড়াও, ডানহাতে নিচেরসারিতে ব্যাটিং করতেন নীলন্ত রত্নায়েকে

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

১৯৮৭-৮৮ মৌসুম থেকে ১০৯০-৯০ মৌসুম পর্যন্ত নীলন্ত রত্নায়েকে’র প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবন চলমান ছিল।

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে দুইটিমাত্র ওডিআইয়ে অংশগ্রহণ করেছেন নীলন্ত রত্নায়েকে। উভয় খেলাই পাকিস্তান সফরে খেলেছিলেন। ২৪ মার্চ, ১৯৮৯ তারিখে শারজায় পাকিস্তান দলের বিপক্ষে একদিনের আন্তর্জাতিকে অভিষেক ঘটে তার। ১০ ফেব্রুয়ারি, ১৯৯০ তারিখে ব্রিসবেনে একই দলের বিপক্ষে সর্বশেষ ওডিআইয়ে অংশ নেন তিনি। তাকে কোন টেস্টে অংশগ্রহণ করার সুযোগ দেয়া হয়নি।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Nilantha Ratnayake"Cricinfo। ESPN। সংগ্রহের তারিখ ২৫ মে ২০১৪ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]