তানজানিয়ার ভূগোল

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
তানজানিয়া ভূগোল
Tanzania sat.JPG
মহাদেশআফ্রিকা
অঞ্চলপূর্ব আফ্রিকা
স্থানাঙ্ক৬°০০′ দক্ষিণ ৩৫°০০′ পূর্ব / ৬.০০০° দক্ষিণ ৩৫.০০০° পূর্ব / -6.000; 35.000
আয়তন৩০তম
 • মোট৯,৪৫,০৮৭ কিমি (৩,৬৪,৯০০ মা)
 • স্থলভাগ৯৩.৫১%
 • জলভাগ৬.৪৯%
উপকূলরেখা১,৪২৪ কিমি (৮৮৫ মা)
সীমানা৪,১৬১ কিমি (২,৫৮৬ মা)
সর্বোচ্চ বিন্দুমাউন্ট কিলিমাঞ্জারো
৫,৮৯৫ মিটার (১৯,৩৪১ ফু)
সর্বনিম্ন বিন্দুভারত মহাসাগর
০ মিটার (০ ফু)
দীর্ঘতম নদীরুফিজি নদী
৬০০ কিমি (৩৭০ মা)
বৃহত্তম হ্রদভিক্টোরিয়া হ্রদ ৫৯,৯৪৭ কিমি (২৩,১৪৬ মা)
এক্সক্লুসিভ অর্থনৈতিক অঞ্চল২,৪১,৮৮৮ কিমি (৯৩,৩৯৩ মা)
তানজানিয়ার মানচিত্র
তানজানিয়ার অবস্থান

তানজানিয়া অনেকগুলো হ্রদ, জাতীয় উদ্যান এবং আফ্রিকার সর্বোচ্চ পর্বত মাউন্ট কিলিমাঞ্জারো (৫,৮৯৫ মি অথবা ১৯,৩৪১ ফু) নিয়ে গঠিত। উত্তর-পূর্ব তানজানিয়া পাহাড়ি হলেও মধ্যাঞ্চল তৃণভূমিতে আচ্ছাদিত একটি বড় মালভূমির অংশ। উগান্ডা এবং কেনিয়ার সাথে থাকা এর উত্তর সীমান্তে ভিক্টোরিয়া হ্রদের দক্ষিণাংশ পড়েছে। প্রশাসনিকভাবে, তানজানিয়া ৩০টি অঞ্চলে বিভক্ত,[১] যার ২৫টি মূল ভূখণ্ডে এবং ৩টি উঙ্গুজায় (অনানুষ্ঠানিকভাবে জাঞ্জিবার দ্বীপ নামে পরিচিত) ও ২টি পেম্বা দ্বীপে

পরিসংখ্যান[সম্পাদনা]

তানজানিয়ার সড়ক যোগাযোগ মানচিত্র

অবস্থান: আফ্রিকার পূর্বাংশে ভারত মহাসাগরের প্রান্তে কেনিয়ামোজাম্বিকের মধ্যে।

ভৌগোলিক স্থানাংক: ৬°০০′ দক্ষিণ ৩৫°০০′ পূর্ব / ৬.০০০° দক্ষিণ ৩৫.০০০° পূর্ব / -6.000; 35.000

মহাদেশ: আফ্রিকা।

আয়তন:[২]
টীকা: মাফিয়া, পেম্বাউঙ্গুজা সহ।

  • মোট: ৯,৪৭,৩০০ বর্গকিলোমিটার (৩,৬৫,৮০০ মা);
  • স্থল: ৮,৮৫,৮০০ বর্গকিলোমিটার (৩,৪২,০০০ মা);
  • জল: ৬১,৫০০ বর্গকিলোমিটার (২৩,৭০০ মা)।

স্থল সীমানা:[২]

জলসীমা: ১,৪২৪ কিলোমিটার (৮৮৫ মা)।[২]

সমুদ্রসীমা:

  • বিশেষ অর্থনৈতিক এলাকা: ২,৪১,৮৮৮ কিমি (৯৩,৩৯৩ মা) এবং ২০০ নটিক্যাল মাইল (৩৭০.৪ কিমি; ২৩০.২ মা);
  • টেরিস্ট্রিয়াল সমুদ্রসীমা: ১২ নটিক্যাল মাইল (২২.২ কিমি; ১৩.৮ মা)।[২]

ভূলেখ: উপকূলীয় এলাকায় সমতলভূমি; মধ্যাঞ্চল মালভূমি; উত্তর ও দক্ষিণাংশ উচ্চভূমি।[২]

ভূমি-রেখা:[২]

প্রাকৃতিক সম্পদ: জলবিদ্যুত, টিন, ফসফেট, আকরিক লৌহ, কয়লা, হীরক, জেমস্টোন, স্বর্ণ, প্রাকৃতিক গ্যাস, নিকেল[২]

ভূমির ব্যবহার:

  • আবাদযোগ্য ভূমি: ১২.২৫%;[২]
  • স্থায়ী শষ্য: ১.৭৯%;[২]
  • অন্যান্য: ৮৫.৯৬% (২০১১)।

সেচের আওতাভূক্ত ভূমি: ১,৮৪৩ বর্গকিলোমিটার (৭১২ মা) (২০০৩)।[২]

মোট নবায়নযোগ্য পানি সম্পদ: ৯৬.২৭ ঘনকিলোমিটার (২৩.১০ মা) (২০১১)।

প্রাকৃতিক দূর্যোগ:

  • বর্ষাকালে মালভূমির কেন্দ্রস্থলে বন্যার প্রাদুর্ভাব; খরা;
  • অগ্ন্যুত্পাত: সীমিত অগ্ন্যুত্পাত কার্যক্রম সংগঠিত হয়; ও১ ডোইনো লেঙ্গি (উচ্চতা - ২,৯৬২ মিটার (৯,৭১৮ ফু)) সাম্প্রতিক সময়ে লাভা উদ্গিরণ করেছে; কিউও এবং মেরু সহ অন্যান্যগুলোর অগ্ন্যুত্পাত কার্যক্রম সংগঠিত হওয়ার ঐতিহাসিক তথ্য আছে।[২]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Regions of Tanzania"Statoids। সংগ্রহের তারিখ ১০ আগস্ট ২০২১ 
  2. "The World Factbook - Tanzania"। U.S. Central Intelligence Agency। সংগ্রহের তারিখ ১০ আগস্ট ২০২১ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]