জো ট্রাভার্স

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
জো ট্রাভার্স
জো ট্রাভার্স.jpg
ক্রিকেট তথ্য
ব্যাটিংয়ের ধরনবামহাতি
বোলিংয়ের ধরনস্লো-লেফট আর্ম অর্থোডক্স
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
একমাত্র টেস্ট
(ক্যাপ ৮৪)
২৮ ফেব্রুয়ারি ১৯০২ বনাম ইংল্যান্ড
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ৩৭
রানের সংখ্যা ১০ ৭৬০
ব্যাটিং গড় ৫.০০ ১৬.৫২
১০০/৫০ ০/০ ০/২
সর্বোচ্চ রান ৭৭
বল করেছে ৪৮
উইকেট ১১৭
বোলিং গড় ১৪.০০ ৩১.৩৯
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট
সেরা বোলিং ১/১৪ ৯/৩০
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ১/০ ২৫/০
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ১৫ জুলাই ২০১৮

যোসেফ প্যাট্রিক ফ্রান্সিস ট্রাভার্স (ইংরেজি: Joe Travers; জন্ম: ১০ জানুয়ারি, ১৮৭১ - মৃত্যু: ১৫ সেপ্টেম্বর, ১৯৪২) দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়ার অ্যাডিলেডে জন্মগ্রহণকারী প্রথিতযশা অস্ট্রেলীয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার ছিলেন। ১৯০২ সালে স্বল্পকালীন সময়ের জন্য অস্ট্রেলিয়া দলের পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেন। সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে একটিমাত্র টেস্টে অংশগ্রহণের সুযোগ হয় তাঁর। ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটে দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়ার প্রতিনিধিত্ব করেছেন আইক ট্রাভার্স নামে পরিচিত জো ট্রাভার্স। দলে তিনি মূলতঃ স্লো-লেফট আর্ম অর্থোডক্স বোলিং করতেন। পাশাপাশি নিচেরসারিতে বামহাতে ব্যাটিংয়ে অভ্যস্ত ছিলেন।

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

১৯০০-০১ মৌসুমের শেফিল্ড শিল্ড প্রতিযোগিতায় নাটকীয়ভাবে খেলার উত্তরণ ঘটান। দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়ার সদস্যরূপে দুই খেলায় ২১ উইকেট পেয়েছিলেন। তন্মধ্যে, ভিক্টোরিয়ার বিপক্ষে ৯/৩০ বোলিং পরিসংখ্যান দাঁড় করান। এরফলে ভিক্টোরিয়া দল মাত্র ৭৬ রানে গুটিয়ে যায়।

পরের বছর ইংল্যান্ডের বিপক্ষে পঞ্চম টেস্ট শুরু হবার পূর্বমুহূর্তে আঘাতে জর্জরিত জে. ভি. সন্ডার্সের স্থলাভিষিক্ত হন। খেলায় তিনি মাত্র আট ওভার বোলিং করে ১৪ রান দিয়ে একটি উইকেট পেয়েছিলেন। ২৮ ফেব্রুয়ারি, ১৯০২ তারিখে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে জো ট্রাভার্সের। খেলায় তিনি সর্বমোট ১০ রান তুলেন। এছাড়াও একটি ক্যাচ তালুবন্দী করেছিলেন। এরপর আর তাঁকে অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে খেলতে দেখা যায়নি। তবে, শেফিল্ড শিল্ডে খেলা চালিয়ে যেতে থাকেন। এরপর থেকে তাঁর বোলিংয়ের ক্রমাবনতি লক্ষ্য করা গেলেও ব্যাটিংয়ের উত্তরণ সবিশেষ লক্ষণীয় ছিল।

অবসর[সম্পাদনা]

ক্রিকেট খেলা থেকে অবসর গ্রহণ করার পর কোচের দায়িত্ব পালন করে সুখ্যাতি অর্জন করেন তিনি। জানা যায় যে, ডন ব্র্যাডম্যানকে দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়ার সদস্যরূপে অন্তর্ভুক্তি করতে প্রত্যক্ষভাবে কাজ করেছেন জো ট্রাভার্স। ট্রাভার্স ভেবেছিলেন যে, ব্র্যাডম্যানের উপস্থিতির কারণে টেনিসের জনপ্রিয়তা বৃদ্ধি পাবে। এছাড়াও, ব্র্যাডম্যানকে বার্ষিক ৭৫০ পাউন্ড-স্টার্লিং বেতন প্রদানের পরামর্শ দিয়েছিলেন তিনি।

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

ক্রিকেট খেলার পাশাপাশি অস্ট্রেলীয় রুলস ফুটবল খেলেও সুনাম কুড়িয়েছেন তিনি। ১৮৯০-এর দশকে সাউথ অস্ট্রেলিয়ান ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনে (সাফা) নরউডের প্রতিনিধিত্ব করেছেন।[১]

১৫ সেপ্টেম্বর, ১৯৪২ তারিখে ৭২ বছর বয়সে দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়ার অ্যাডিলেডে জো ট্রাভার্সের দেহাবসান ঘটে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. The Register News-Pictorial , "Two-Day Stars Of Other Days", 8 June 1929. p. 38

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]