চাপড়ামারি বন্যপ্রাণ অভয়ারণ্য

স্থানাঙ্ক: ২৬°৫২′২৯″ উত্তর ৮৮°৫১′১৮″ পূর্ব / ২৬.৮৭৪৬৪২৪° উত্তর ৮৮.৮৫৫১০১৯° পূর্ব / 26.8746424; 88.8551019
উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
চাপড়ামারী বন্যপ্রাণ অভয়ারণ্য
Chapramari.jpg
চাপড়ামারী ওয়াচ টাওয়ার থেকে দৃশ্য
মানচিত্র চাপড়ামারী বন্যপ্রাণ অভয়ারণ্যের অবস্থান দেখাচ্ছে
মানচিত্র চাপড়ামারী বন্যপ্রাণ অভয়ারণ্যের অবস্থান দেখাচ্ছে
মানচিত্র চাপড়ামারী বন্যপ্রাণ অভয়ারণ্যের অবস্থান দেখাচ্ছে
মানচিত্র চাপড়ামারী বন্যপ্রাণ অভয়ারণ্যের অবস্থান দেখাচ্ছে
অবস্থানজলপাইগুড়ি, পশ্চিমবঙ্গ, ভারত
নিকটবর্তী শহরমালবাজার, ময়নাগুড়ি, জলপাইগুড়ি
স্থানাঙ্ক২৬°৫২′২৯″ উত্তর ৮৮°৫১′১৮″ পূর্ব / ২৬.৮৭৪৬৪২৪° উত্তর ৮৮.৮৫৫১০১৯° পূর্ব / 26.8746424; 88.8551019
স্থাপিত১৯৯৮
কর্তৃপক্ষভারত সরকার, পশ্চিমবঙ্গ সরকার

চাপড়ামারী বন্যপ্রাণ অভয়ারণ্য হলো ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের জলপাইগুড়ি জেলায় অবস্থিত একটি বন্যপ্রাণ অভয়ারণ্য। ১৯৭৬ সালে এটি অভয়ারণ্য হিসেবে পরিচিতি লাভ করে।[১] এটি গোরুমারা জাতীয় উদ্যানের পাশে অবস্থিত।[২] এটি ভারতের পশ্চিমবঙ্গের উত্তরাংশের চালসা এবং লাটাগুড়ি থেকে ৩০ কিমি দূরে অবস্থিত। এবং এই অভয়ারণ্যের মোট আয়তন ৯৬০ হেক্টর।[৩] মূর্তিজলঢাকা নদীতে পাওয়া চাপড়া মাছের নাম থেকে এসেছে চাপড়ামারী নাম। যদিও বর্তমানে এই মাছ অবলুপ্ত।

জীববৈচিত্র্য[সম্পাদনা]

এখানে এশীয় হাতি, বন্য বরাহ, সম্বর হরিণ, চিতাবাঘবাংলা বাঘ দেখা যায়।[১]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. কল্যাণ চক্রবর্তী, বিশ্বজিত রায়চৌধুরী, ভারতের বন ও বন্যপ্রাণী, পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য পুস্তক পর্ষদ, ফেব্রুয়ারি, ১৯৯১, কলকাতা, পৃষ্ঠা-১৩৪।
  2. "Tourism"Jalpaiguri Municipality। ২০১২-১১-১০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৩-১১-২০ 
  3. সেনগুপ্ত, সোমেন (২০১২-১১-১১)। "Call of the Wild" (PDF)The Statesman। পৃষ্ঠা 5। সংগ্রহের তারিখ ২০১৩-১১-২০