আলাপ:দই

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

প্রসঙ্গ: লাল দই ও দই নিবন্ধ একত্রীকরণ[সম্পাদনা]

লাল দই ও দই: প্রভেদ

১. সাদা দই মূলত টক দই, যা সারা পৃথিবীতে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন সভ্যতার ইতিহাসে পাওয়া গেছে। তবে লাল দই এর ক্ষেত্রে এর ইতিহাস পৃথিবীতে কোথাও নেই। বরং এর ইতিহাস লুকিয়ে আছে শুধুই পশ্চিমবঙ্গে।

২. সাদা দই এবং লাল দই সম্পূর্ন ভাবে ভিন্ন পদ্ধতি পাতানো হয়। লাল দই পাতানোর জন্য ব্যাকটেরিয়ার সন্ধান প্রক্রিয়ার থেকেও লাল রঙের জন্য ফুট করাটা অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। এবং পাতানোর সময় হালকা উষ্ণতায় রাখতে হয়।

৩. স্বাদের দিকথেকে এটি সম্পূর্ণ আলাদা দইয়ের থেকে। দই স্বাদে টক হলেও এটি মিষ্টি।

৪. সাধারণ লাল দই এবং উল্লিখিত লাল /ক্ষীর দই ভিন্ন। দুধের ঘনত্বের তারতম্য এখানে সহজেই বোঝা যায়। যেহুতু উল্লিখিত লাল দইয়ে দুধের ঘনত্ব বেশি তাই দিয়ে স্তরও পাওয়া যায়।

প্রস্তুত প্রণালী, ইতিহাস, স্বাদ, ধরণ; এই চারটি ক্ষেত্রেই এই লাল দই সাধারণ দই থেকে স্বতন্ত্রভাবে বিদ্যমান। সুতরাং একে দইয়ের সাথে মিশিয়ে দেওয়া কখনোই উচিত নয়।

Ami.bangali 2ed (আলাপ) ০৭:৫৪, ২২ নভেম্বর ২০১৭ (ইউটিসি)
একে দইয়ের সাথে মিশিয়ে দেয়া কোন ভাবেই যথার্থ হবে না, যেহেতু এটা নিজেই একটা স্বতন্ত্র বৈশিষ্ট্যসম্পন্ন। সুতরাং আমার মতে নিবন্ধটি বহাল রাখা হোক।--আবু সাঈদ (আলাপ) ০৭:৫৯, ২৩ নভেম্বর ২০১৭ (ইউটিসি)

বগুড়ার দই একত্রীকরণ প্রসঙ্গে[সম্পাদনা]

দই হল দুধ হতে তৈরী একপ্রকার মিষ্টান্ন। দই বাংলাদেশ, পশ্চিমবঙ্গ এবং অন্যান্য জায়গায় পাওয়া যায়। তাই এ খাবারের বিভিন্ন স্থানে তৈরী করার প্রণালী ভিন্ন হতে পারে। আর এভাবে কিছু কিছু স্থানের দই স্বাদে বা তৈরী প্রণালীতে ভিন্নতার ফলে নতুন ধরনের প্রকরণ তৈরী হয়। বগুড়ার দইও ঠিক তেমনি দই এর একটি বিশেষ প্রকরণ। উদাহরণস্বরূপ বলা যায়, বিরিয়ানি একটি বহুল প্রচলিত খাবার। তো এ খাবারটির তো অনেকগুলো ভিন্নতা রয়েছে। ঢাকাই, চাঁটগাইয়া, কলকাতাই, হায়দ্রাবাদী ইত্যাদি। যেহেতু এগুলোও বিরিয়ানি তো এগুলোকেও কি বিরিয়ানী নিবন্ধের সাথে একত্রীকরণ করে দেওয়া সঠিক হবে? কখনোই না! বগুড়ার দইয়ের প্রসঙ্গটিও এরকম। তাছাড়া বাংলাদেশের ডিজাইন ও পেটেন্ট সম্পর্কিত আইন, ২০১৩ অনুসারে সরকার ভৌগোলিক স্বীকৃতির জন্য বাছাই করা ২২টি পণ্যের মধ্যে বগুড়ার দইকেও বাছাই করেছে....এবংং বগুড়ার দই নামেই বাছাই করেছে। তাই এ দই নিবন্ধের সাথে বগুড়ার দই একত্রীকরণ করা একেবারেই অসমীচীন এবং অযৌক্তিক। তাই একত্রীকরণের টেমপ্লেটটি অপসারণ করা হবে।কিছু জানানোর হলে আলাপ পাতায় বলুন। Great Hero32 (আলাপ) ২০:০৩, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ (ইউটিসি)