আলফ্রেড কুপার

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
আলফ্রেড কুপার
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামআলফ্রেড হেনরি সেসিল কুপার
জন্ম২ সেপ্টেম্বর, ১৮৯৩
জোহানেসবার্গ,
দক্ষিণ আফ্রিকা প্রজাতন্ত্র
মৃত্যু১৮ জুলাই, ১৯৬৩
জোহানেসবার্গ, ট্রান্সভাল, দক্ষিণ আফ্রিকা
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি মিডিয়াম
ভূমিকাব্যাটসম্যান
সম্পর্কআলফ্রেড ই. কুপার (পিতা)
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
একমাত্র টেস্ট
(ক্যাপ ৮২)
১৩ ডিসেম্বর ১৯১৩ বনাম ইংল্যান্ড
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
১৯১২ - ১৯২৮ট্রান্সভাল (বর্তমানে - গটেং)
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ৩৭
রানের সংখ্যা ১৭৮৮
ব্যাটিং গড় ৩.০০ ৩১.৯২
১০০/৫০ ০/০ ৪/৮
সর্বোচ্চ রান ১৭১*
বল করেছে ১,১৫০
উইকেট ১৫
বোলিং গড় ৩৭.০৬
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট
সেরা বোলিং ৩/৯
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ১/– ২৭/–
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ১০ মে, ২০২০

আলফ্রেড হেনরি সেসিল কুপার (ইংরেজি: Alfred Cooper; জন্ম: ২ সেপ্টেম্বর, ১৮৯৩ - মৃত্যু: ১৮ জুলাই, ১৯৬৩) জোহেন্সবার্গ এলাকায় জন্মগ্রহণকারী দক্ষিণ আফ্রিকান আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার ছিলেন। দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯১৩ সালে সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্যে দক্ষিণ আফ্রিকার পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন।

ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর দক্ষিণ আফ্রিকান ক্রিকেটে ট্রান্সভাল দলের প্রতিনিধিত্ব করেন। দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতি ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলতেন। এছাড়াও, ডানহাতে মিডিয়াম বোলিং করতেন আলফ্রেড কুপার

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট[সম্পাদনা]

১৯১২-১৩ মৌসুম থেকে ১৯২৮-২৯ মৌসুম পর্যন্ত আলফ্রেড কুপারের প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবন চলমান ছিল। এ পর্যায়ে তিনি ট্রান্সভাল দলের পক্ষে খেলেছিলেন।

সেপ্টেম্বর, ১৮৯৩ সালে সদ্য স্বাধীনতাপ্রাপ্ত দক্ষিণ আফ্রিকা প্রজাতন্ত্রের জোহেন্সবার্গে আলফ্রেড কুপারের জন্ম।[১] তার পিতা আলফ্রেড এডওয়ার্ড কুপার ট্রান্সভাল ও গ্রিকুয়াল্যান্ড ওয়েস্টের পক্ষে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট খেলায় অংশ নিয়েছিলেন।[২] ডিসেম্বর, ১৯১২ সালে ট্রান্সভালের সদস্যরূপে আলফ্রেড কুপারের প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে। ১৯১২-১৩ মৌসুমের কারি কাপে অরেঞ্জ ফ্রি স্টেটের বিপক্ষে খেলেন।[৩] ডানহাতি শীর্ষসারির ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলতেন। প্রথম মৌসুমে চার খেলায় অংশ নিয়ে দুইটি অর্ধ-শতরান সহযোগে ২৪৪ রান তুলেছিলেন তিনি।[৪] পরের মৌসুমে ট্রান্সভালের পক্ষে একটি খেলায় অংশ নেন।

নভেম্বর, ১৯১৩ সালে ঐ খেলায় জাতীয় দলের অধিনায়ক পার্সি শেরওয়েলের নেতৃত্বাধীন দলের বিপক্ষে খেলেন তিনি। এ খেলার মাধ্যমে ১৯১৩-১৪ মৌসুমে সফরকারী ইংল্যান্ড দলের বিপক্ষে টেস্টের জন্য যাচাই-বাছাইয়ের খেলার আয়োজন করা হয়েছিলেন। তিনি ৯০ মিনিটে ১০৯ রান তুলেন। এটিই প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে তার প্রথম সেঞ্চুরি ছিল।[৫]

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট[সম্পাদনা]

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে একটিমাত্র টেস্টে আন্তর্জাতিকে অংশগ্রহণ করেছেন আলফ্রেড কুপার। ১৩ ডিসেম্বর, ১৯১৩ তারিখে ডারবানে সফরকারী ইংল্যান্ড দলের বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। এটিই তার একমাত্র টেস্টে অংশগ্রহণ ছিল। এরপর আর তাকে কোন টেস্টে অংশগ্রহণ করতে দেখা যায়নি।

যাচাই-বাছাইয়ের খেলায় সুন্দর ক্রীড়ানৈপুণ্য প্রদর্শনের স্বীকৃতিস্বরূপ ডারবানের লর্ডসে অনুষ্ঠিত সিরিজের প্রথম টেস্টে তার অংশগ্রহণ নিশ্চিত হয়। উভয় ইনিংসেই তিনি ছয় নম্বরে ব্যাটিংয়ে নেমেছিলেন। উভয় ইনিংসে সিডনি বার্নসের বোলিংয়ে তাকে বিদেয় নিতে হয়। প্রথম ইনিংসে ছয় ও দ্বিতীয় ইনিংসে শূন্য রান করেন। এটিই তার একমাত্র টেস্টে অংশগ্রহণ ছিল।[৬][৭]

অভিষেক টেস্টে তার বয়স ছিল মাত্র ২০ বছর। এরপর তাকে আর সিরিজের কোন টেস্টে খেলার সুযোগ দেয়া হয়নি। তবে, ট্রান্সভালের সদস্যরূপে সফররত ইংরেজ দলের বিপক্ষে দুইটি খেলায় অংশ নিয়েছিলেন তিনি।[৩]

বিশ্বযুদ্ধ পরবর্তী সময়কাল[সম্পাদনা]

প্রথম বিশ্বযুদ্ধের কারণে দক্ষিণ আফ্রিকায় প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট খেলা বন্ধ হয়ে যায়। ১৯১৯-২০ মৌসুমে পুণরায় ক্রিকেট খেলা শুরু হয়। ১৯১৯-২০ মৌসুমে সাবেক ও ভবিষ্যতের অস্ট্রেলীয় টেস্ট খেলোয়াড়দের নিয়ে গঠিত অস্ট্রেলিয়ান ইম্পেরিয়াল ফোর্সেস ক্রিকেট দল দক্ষিণ আফ্রিকা গমনে আসে। ট্রান্সভালের সদস্যরূপে এআইএফের বিপক্ষে দুই খেলায় অংশ নেন। এরপর, দক্ষিণ আফ্রিকার প্রতিনিধিত্বকারী দলের সদস্যরূপে অস্ট্রেলীয়দের বিপক্ষে অনানুষ্ঠানিক টেস্টে অংশ নেন। নভেম্বর, ১৯১৯ সালে ওয়ান্ডারার্সে খেলাটি অনুষ্ঠিত হয়েছিল।[৩]

সাত বছর বিরতির পর ১৯২০-২১ মৌসুমে কারি কাপের পুণঃপ্রচলন ঘটে। ১৯২০-এর দশকে ট্রান্সভালের পক্ষে নিয়মিতভাবে খেলেন। তুলনামূলকভাবে ১৯২১-২২ মৌসুমে তিনি তার স্বর্ণালী সময় অতিক্রম করেন। ছয় খেলায় এক সেঞ্চুরি সহযোগে ৩৫২ রান তুলেছিলেন আলফ্রেড কুপার।[৪] ১৯২৩-২৪ মৌসুমে ওয়েস্টার্ন প্রভিন্সের বিপক্ষে অপরাজিত ১৭১ রান তুলেন। এটিই পরবর্তীকালে তার ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ রানের ইনিংস হিসেবে চিত্রিত হয়ে যায়। ঐ খেলায় তার দল ইনিংস ও ৫৪ রানের বিরাট ব্যবধানে জয়লাভে সমর্থ হয়।[৮]

অবসর[সম্পাদনা]

দলের সদস্য থাকাকালে ১৯২৩-২৪ এবং ১৯২৫-২৬ ও ১৯২৬-২৭ মৌসুমে ধারাবাহিকভাবে দুইবারসহ মোট তিনবার কারি কাপের শিরোপা জয় করে ট্রান্সভাল দল।[৯] ডিসেম্বর, ১৯২৮ সালে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে সর্বশেষবারের মতো আলফ্রেড কুপার অংশ নেন। বর্ডারের বিপক্ষে খেললেও ১৯২৮-২৯ মৌসুমে কারি কাপ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়নি। ৩৫ বছর বয়সী কুপারকে ঐ খেলায় ট্রান্সভালের অধিনায়কের দায়িত্ব দেয়া হয়। তিনি নিয়মিত অধিনায়ক নামি ডিনের স্থলাভিষিক্ত হয়েছিলেন।[১০] ফলো-অনের কবলে পড়ে বর্ডারের দ্বিতীয় ইনিংসে চার্লস কসের সাথে বোলিং উদ্বোধনে নামেন। তিনি ৩/৯ বোলিং পরিসংখ্যান গড়েন। প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে এটিই তার সেরা বোলিং ছিল।[১১] এর পূর্বে দলে তিনি অনিয়মিতভাবে বোলিং কর্মে অগ্রসর হবার সুযোগ পেতেন।[১২]

গ্রিকুয়াল্যান্ড ওয়েস্ট ও ট্রান্সভাল দলের প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটার আলফ্রেড ই. কুপারের সন্তান তিনি। ১৮ জুলাই, ১৯৬৩ তারিখে ৬৯ বছর বয়সে জোহেন্সবার্গ এলাকায় আলফ্রেড কুপারের দেহাবসান ঘটে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Alfred Cooper [junior] – CricketArchive. Retrieved 27 December 2014.
  2. Alfred Cooper [senior] – CricketArchive. Retrieved 27 December 2014.
  3. First-class matches played by Alfred Cooper (37) – CricketArchive. Retrieved 27 December 2014.
  4. First-class batting and fielding in each season by Alfred Cooper – CricketArchive. Retrieved 27 December 2014.
  5. Transvaal v PW Sherwell's XI Other First-Class matches in South Africa 1913/14 – CricketArchive. Retrieved 27 December 2014.
  6. Test matches played by Alfred Cooper (1) – CricketArchive. Retrieved 27 December 2014.
  7. South Africa v England, Marylebone Cricket Club in South Africa 1913/14 (1st Test) – CricketArchive. Retrieved 27 December 2014.
  8. Transvaal v Western Province, Currie Cup 1923/24 – CricketArchive. Retrieved 27 December 2014.
  9. The Currie Cup / Castle Cup / Supersport Series: Winners – ESPNcricinfo. Retrieved 27 December 2014.
  10. AHC Cooper as captain in first-class matches where team is Transvaal – CricketArchive. Retrieved 4 January 2015.
  11. Border v Transvaal, Other First-Class matches in South Africa 1928/29 – CricketArchive. Retrieved 27 December 2014.
  12. First-class bowling in each season by Alfred Cooper – CricketArchive. Retrieved 27 December 2014.

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]