আর. পি. সিং (ক্রিকেটার, জন্ম ১৯৬৫)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
আর. পি. সিং
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামরুদ্র প্রতাপ সিং
জন্ম৬ জানুয়ারি, ১৯৬৫
লখনউ, উত্তরপ্রদেশ, ভারত
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি মিডিয়াম পেস
ভূমিকাবোলার
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ৫৯)
২৪ সেপ্টেম্বর ১৯৮৬ বনাম অস্ট্রেলিয়া
শেষ ওডিআই৭ অক্টোবর ১৯৮৬ বনাম অস্ট্রেলিয়া
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট ওডিআই
ম্যাচ সংখ্যা -
রানের সংখ্যা -
ব্যাটিং গড় - -
১০০/৫০ - ০/০
সর্বোচ্চ রান -
বল করেছে - ৮২
উইকেট -
বোলিং গড় - ৭৭.০০
ইনিংসে ৫ উইকেট -
ম্যাচে ১০ উইকেট - -
সেরা বোলিং - ১/৫৮
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং - ০/০
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ৪ জুলাই ২০২০

রুদ্র প্রতাপ সিং (এই শব্দ সম্পর্কেউচ্চারণ ; হিন্দি: आर. पी. सिंह; জন্ম: ৬ জানুয়ারি, ১৯৬৫) উত্তরপ্রদেশের লখনউ এলাকায় জন্মগ্রহণকারী সাবেক ভারতীয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার। ভারত ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৮০-এর দশকের মাঝামাঝি সময়কালে অত্যন্ত সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্যে ভারতের পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন।[১][২][৩]

ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর ভারতীয় ক্রিকেটে এয়ার ইন্ডিয়া ও উত্তরপ্রদেশ দলের প্রতিনিধিত্ব করেন। দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতি মিডিয়াম পেস বোলার হিসেবে খেলতেন। এছাড়াও, ডানহাতে নিচেরসারিতে ব্যাটিং করতেন আর. পি. সিং

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট[সম্পাদনা]

১৯৮২-৮৩ মৌসুম থেকে ১৯৯৫-৯৬ মৌসুম পর্যন্ত আর. পি. সিংয়ের প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবন চলমান ছিল।

১৯৮০-এর দশকের মাঝামাঝি সময়ে একদিনের দলে প্রায় চারজন সিম বোলারের অন্তর্ভুক্তি বাধ্যতামূলক পর্যায়ের থাকায় আর. পি. সিংকে বেশ কয়েকজন নতুন বোলারের অন্যতম হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করা হয়। এক দশকব্যাপী উত্তরপ্রদেশ দলের সদস্যরূপে রঞ্জী ট্রফি প্রতিযোগিতায় খেলেন ও দলের প্রধান চালিকাশক্তিতে পরিণত হয়েছিলেন। ১৯৮৪-৮৫ মৌসুমে ২৫ উইকেট লাভ করেন। এরফলে, জাতীয় দলে অন্তর্ভুক্তির পথ সুগম হয়। এ পর্যায়ে রেলওয়েজের সদস্যরূপে ১৪৬ রান খরচায় এগারো উইকেট পান। এটি তার সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে খেলায় সেরা সংগ্রহ হিসেবে বিবেচিত হয়। তন্মধ্যে, প্রথম ইনিংসে ৭/৬৭ বোলিং পরিসংখ্যান দাঁড় করান।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট[সম্পাদনা]

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে দুইটিমাত্র ওডিআইয়ে অংশগ্রহণ করেছেন আর. পি. সিং। সবগুলো ওডিআইই অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে খেলেছিলেন তিনি। ২৪ সেপ্টেম্বর, ১৯৮৬ তারিখে হায়দ্রাবাদে সফরকারী অস্ট্রেলিয়া দলের বিপক্ষে একদিনের আন্তর্জাতিকে অভিষেক ঘটে তার। এরপর, ৭ অক্টোবর, ১৯৮৬ তারিখে রাজকূটে একই দলের বিপক্ষে সর্বশেষ ওডিআইয়ে অংশ নেন তিনি। তাকে কোন টেস্টে অংশগ্রহণ করার সুযোগ দেয়া হয়নি।

ঘরোয়া ক্রিকেটের ন্যায় আন্তর্জাতিক অঙ্গনে ঠিকভাবে নিজেকে মেলে ধরতে পারেননি আর. পি. সিং। স্বল্পকালীন আন্তর্জাতিক খেলোয়াড়ী জীবনে তেমন সফলতা পাননি। নিজস্ব দ্বিতীয় ও সর্বশেষ একদিনের আন্তর্জাতিকে অস্ট্রেলীয় তারকা ব্যাটসম্যান ডিন জোন্সের একমাত্র উইকেট পান।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Players / India / ODI caps"Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জুলাই ২০২০ 
  2. "ODI Career Batting Averages"। Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জুলাই ২০২০ 
  3. "ODI Career Bowling Averages"। Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৪ জুলাই ২০২০ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]