অ্যাক্রস দ্য রিভার অ্যান্ড ইনটু দ্য ট্রিজ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
অ্যাক্রস দ্য রিভার অ্যান্ড ইনটু দ্য ট্রিজ
অ্যাক্রস দ্য রিভার অ্যান্ড ইনটু দ্য ট্রিজের প্রচ্ছদ.jpg
প্রথম মার্কিন সংস্করণের প্রচ্ছদ
লেখকআর্নেস্ট হেমিংওয়ে
মূল শিরোনামAcross the River and Into the Trees
প্রচ্ছদ শিল্পীআদ্রিয়ানা ইভানচিচ
দেশমার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
ভাষাইংরেজি
ধরনউপন্যাস
প্রকাশকচার্লস স্ক্রিবনার্স সন্স
প্রকাশনার তারিখ
১৯৫০
মিডিয়া ধরনশক্তমলাট
পৃষ্ঠাসংখ্যা৩২০

অ্যাক্রস দ্য রিভার অ্যান্ড ইনটু দ্য ট্রিজ (ইংরেজি: Across the River and Into the Trees) হল মার্কিন সাহিত্যিক আর্নেস্ট হেমিংওয়ে রচিত ইংরেজি ভাষার উপন্যাস। এটি ১৯৫০ সালে চার্লস স্ক্রিবনার্স সন্স থেকে প্রকাশিত হয়। এর পূর্ববর্তী বছরে উপন্যাসটি ধারাবাহিকভাবে কসমোপলিটান সাময়িকীতে প্রকাশিত হয়। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের গৃহযুদ্ধের কনফেডারেট জেনারেল টমাস জে. (স্টোনওয়েল) জ্যাকসনের শেষ উক্তি "লেট আস ক্রস অভার দ্য রিভার অ্যান্ড রেস্ট আন্ডার দ্য শেড অব দ্য ট্রিজ" থেকে বইটির শিরোনাম গ্রহণ করা হয়।[১] উপন্যাসটিতে পঞ্চাশ বছর বয়সী কর্নেল রিচার্ড ক্যান্টওয়েলের জীবনের পূর্বস্মৃতি ও তার প্রথম বিশ্বযুদ্ধকালীন অভিজ্ঞতা বর্ণিত হয়েছে।

পটভূমি ও প্রকাশনার ইতিহাস[সম্পাদনা]

আর্নেস্ট হেমিংওয়ে ১৯৪৮ সালে এ.ই. হোচনারের সাথে পরিচিত হন, যখন হোচনার বিমান বাহিনীর চাকরি ছেড়ে দিয়ে কসমোপলিটান সাময়িকীতে "কমিশনপ্রাপ্ত এজেন্ট" হিসেবে যোগ দেন। হেমিংওয়ের নাম লেখকদের নামের তালিকায় ছিল, হোচনারের যাদের সাথে যোগাযোগ করতে হয়েছিল। তাই তিনি কিউবা যান এবং হেমিংওয়ের সাথে দেখা করতে চান ও তাকে একটি ছোট প্রবন্ধ লিখতে জমা দিতে বলেন। হেমিংওয়ে কোন প্রবন্ধ না লিখে তার পরবর্তী উপন্যাস অ্যাক্রস দ্য রিভার অ্যান্ড ইনটু দ্য ট্রিজ লিখে হোচনারের কাছে জমা দেন। কসমোপলিটান বইটিকে ধারাবাহিকভাবে পাঁচটি কিস্তিতে প্রকাশ করে।[২][৩][৪]

মূল্যায়ন[সম্পাদনা]

দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস-এ জন ওহারা লিখেন, "বর্তমানে জীবিত সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সাহিত্যিক, শেকসপিয়ারের মৃত্যুর পর অন্যতম সেরা লেখক, একটি নতুন উপন্যাস প্রকাশ করেছেন। উপন্যাসটির শিরোনাম অ্যাক্রস দ্য রিভার অ্যান্ড ইনটু দ্য ট্রিজ। সাহিত্যিকটি আর কেউ নয়, তিনি আর্নেস্ট হেমিংওয়ে, সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ, ১৬১৬ সালের পর মিলিয়ন সংখ্যক লেখকের মধ্যে অন্যতম সাহিত্যিক।"[৩] দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস-এ টেনেসি উইলিয়ামস লিখেন, "আমি এখন হেমিংওয়ের নতুন উপন্যাসের ছন্দোময়তা না শুনে ভেনিস যেতে পারি না। এটি সবচেয়ে দুঃখ ভারাক্রান্ত শহরের সবচেয়ে দুঃখ ভারাক্রান্ত উপন্যাস। যদি আমি বলি আমি মনে করি হেমিংওয়ের এটাই সেরা এবং সবচেয়ে সৎ কাজ, আপনারা আমাকে পাগল মনে করবেন। এটি সম্ভবত জনপ্রিয় একটি বই হবে। সমালোচকগণ হয়ত বইটিকে রুক্ষভাবে দেখবে। কিন্তু এর ছন্দোময়তা একজন মানুষের হৃদয়ের প্রত্যক্ষ উক্তি, যিনি সরাসরি প্রথমবার এই কথা বলছেন এবং তা আমার কাছে এটিকে হেমিংওয়ের সবচেয়ে ভাল কাজ বলে মনে হয়েছে।"[৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Thomas J. "Stonewall" Jackson dies - May 10, 1863 - HISTORY.com"HISTORY.com। সংগ্রহের তারিখ ২ আগস্ট ২০১৮ 
  2. হোচনার, পৃ. ix–x
  3. ওহারা, জন (১০ সেপ্টেম্বর ১৯৫০)। "The Author's Name Is Hemingway"দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস। সংগ্রহের তারিখ ২ আগস্ট ২০১৮ 
  4. স্যান্ডারসন, পৃ. ২৬।
  5. উইলিয়ামস, টেনেসি (১৩ আগস্ট ১৯৫০)। "A Writer's Quest For a Parnassus"archive.nytimes.com। সংগ্রহের তারিখ ২ আগস্ট ২০১৮