মাধবপুর উপজেলা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে

মাধবপুর বাংলাদেশের হবিগঞ্জ জেলার অন্তর্গত একটি উপজেলা

অবস্থান[সম্পাদনা]

প্রশাসনিক এলাকা[সম্পাদনা]

মাধবপুর উপজেলা

ইতিহাস[সম্পাদনা]

হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুর উপজেলা একটি জনবহুল উপজেলা হিসেবে পরিচিত। ১৮০৪ সালে মাধবপুর থানা প্রতিষ্ঠিত হয়। তবে এ উপজেলার নামকরণ সম্পর্কে সঠিক তথ্য কোথাও পাওয়া যায়নি। জনশ্রুতি রয়েছে যে, মহাদেব নামে একজন সাধক ছিলেন এবং তাঁর অনেক ভক্তবৃন্দ ছিল। জনগণের ভাষ্যমতে তাঁরই নামে প্রথমে মহাদেবপুর তারপর মহাদেবপুর থেকে মাধবপুর নামকরণ হয়েছে। এরপরে আরো জানা যায় যে, প্রায় ১৫০ বছর পূর্বে প্রয়াত জমিদার সিদ্ধেশ্বরী রায় প্রসাদ চৌধুরী কর্তৃক মাধবপুর নামক স্থানে এলাকার প্রজাদের সুবিধার্থে পুকুর কেটে মাটি ভরাট করে এ মাধবপুর বাজার প্রতিষ্ঠা করেন। মূলত মাধবপুর বাজারটি সোনাই নদীর তীরে অবস্থিত। ভারতের ত্রিপুরা প্রদেশ থেকে সোনাই নদীর উৎসস্থল। সোনাই নদীর দক্ষিণ অংশ বি-বাড়ীয় জেলা যা পূর্বে ত্রিপুরা এবং সোনাই নদীর উত্তর অংশ আসাম প্রদেশের অংশ ছিল। তখনকার বৃটিশ আমলে সোনাই নদীর তীরে পুলিশ ফাড়ী স্থাপিত হয়। ১৯৪৭ সনে ভারত-পাকিস্থান বিভক্ত হওয়ার পর সিও (উঃ) অফিস প্রথম কার্যালয় নোয়াপাড়া ইউনিয়নের ইটাখোলা গ্রামের রশীদ মজুমদারের বাড়ীতে স্থাপিত হয়। পরবর্তী কালে আনুমানিক ১৯৬৬ সালে মজুমদার বাড়ী থেকে মাধবপুরে সিও (উঃ) অফিস স্থানান্তর হয় এবং মাধবপুর গ্রামের নামানুসারে মাধবপুর থানা এবং মাধবপুর থানা থেকে ১৯৮৩ সনের ০১ আগষ্ট তারিখে মাধবপুর উপজেলায় উন্নীত হয়। এখনো উপজেলা ভূমি অফিস জগদীশপুর গ্রামে উপজেলা থেকে প্রায় ১২ কিঃ মিঃ দূরে অবস্থিত এবং সাব-রেজিস্টার অফিস চারাভ্ঙ্গা গ্রামে অবস্থিত যা অফিস ০২ টি বৃটিশ শাসনামলে স্থাপিত হয়েছিল।

জনসংখ্যার উপাত্ত[সম্পাদনা]

শিক্ষা[সম্পাদনা]

অর্থনীতি[সম্পাদনা]

কৃতী ব্যক্তিত্ব[সম্পাদনা]

ড: ফরাস উদ্দিন, মরহুম মৌলানা আছাদ আলী

বিবিধ[সম্পাদনা]

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]