আবুল হাসান (কবি)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
আবুল হাসান
Replace this image male bn.svg
জন্ম ৪ আগস্ট, ১৯৪৭
গোপালগঞ্জ, বাংলাদেশ
মৃত্যু ঢাকা, বাংলাদেশ
২৬ নভেম্বর , ১৯৭৫
জাতীয়তা বাংলাদেশী
বংশোদ্ভূত বাঙালি
নাগরিকত্ব  বাংলাদেশ
পেশা কবি, লেখক
যে জন্য পরিচিত বীর প্রতীক
ধর্ম মুসলিম
পুরস্কার বাংলা একাডেমী পুরস্কার, একুশে পদক
একই নামের অন্যান্য ব্যক্তিবর্গের জন্য দেখুন আবুল হাসান (দ্ব্যর্থতা নিরসন)

আবুল হাসান ( জন্ম: ১৯৪৭, ৪ আগস্ট-মৃত্যুঃ ১৯৭৫, ২৬ নভেম্বর ) বাংলাদেশের একজন আধুনিক কবি ও সাংবাদিক। তাঁর প্রকৃত নাম আবুল হোসেন মিয়া, আর সাহিত্যক নাম আবুল হাসান। তিনি ষাট দশকের জনপ্রিয় কবিদের একজন এবং সত্তুর দশকেও জনপ্রিয় ছিলেন। [১]

জন্ম[সম্পাদনা]

কবি ও সাংবাদিক আবুল হাসান গোপালগঞ্জ জেলার টুঙ্গীপাড়ার বর্নি গ্রামে মাতুলালয়ে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পৈতৃক নিবাস পিরোজপুর জেলার নাজিরপুরের ঝনঝনিয়া গ্রামে। তাঁর পিতা আলতাফ হোসেন মিয়া ছিলেন একজন পুলিশ অফিসার।

শিক্ষা ও কর্মজীবন[সম্পাদনা]

আবুল হাসান ঢাকার আরমানিটোলা সরকারি বিদ্যালয় থেকে ১৯৬৩ সালে এস.এস.সি পাশ করেন। তারপর বরিশালের বিএম কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পাস করেন। পরবর্তীকালে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ইংরেজিতে অনার্স নিয়ে বি.এ শ্রেণীতে ভর্তি হন, কিন্তু পরীক্ষা শেষ না করেই ১৯৬৯ সালে দৈনিক ইত্তেফাকের বার্তাবিভাগে যোগদান করেন। পরে তিনি গণবাংলা (১৯৭২-১৯৭৩) এবং দৈনিক জনপদ-এ (১৯৭৩-৭৪) সহকারী সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। আবুল হাসান অল্প বয়সেই একজন সৃজনশীল কবি হিসাবে খ্যাতিলাভ করেন। মাত্র এক দশকের কাব্যসাধনায় তিনি আধুনিক বাংলার ইতিহাসে এক বিশিষ্ট স্থান অধিকার করেন। আত্মত্যাগ, দুঃখবোধ, মৃত্যুচেতনা, বিচ্ছিন্নতাবোধ, নিঃসঙ্গচেতনা, স্মৃতিমুগ্ধতা ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা আবুল হাসানের কবিতায় সার্থকভাবে প্রতিফলিত হয়েছে। ১৯৭০ সালে এশীয় কবিতা প্রতিযোগিতায় তিনি প্রথম হন। [২]

প্রকাশিত গ্রন্থ[সম্পাদনা]

কবিতা[সম্পাদনা]

  • রাজা যায় রাজা আসে (১৯৭২)
  • যে তুমি হরণ করো (১৯৭৪)
  • পৃথক পালঙ্ক (১৯৭৫)

গল্প[সম্পাদনা]

  • আবুল হাসান গল্প- সংগ্রহ (১৯৯০)

কাব্যনাট্য[সম্পাদনা]

পুরস্কার[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]


বহি:সংযোগ[সম্পাদনা]