জুনিয়র মারে

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(Junior Murray থেকে পুনর্নির্দেশিত)
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
জুনিয়র মারে
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামজুনিয়র র‍্যান্ডলফ মারে
জন্ম (1968-01-20) ২০ জানুয়ারি ১৯৬৮ (বয়স ৫২)
সেন্ট জর্জেস, গ্রেনাডা
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
ভূমিকাউইকেট-রক্ষক
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ২০২)
২ জানুয়ারি ১৯৯৩ বনাম অস্ট্রেলিয়া
শেষ টেস্ট১৯ এপ্রিল ২০০২ বনাম ভারত
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ৬৩)
৪ ডিসেম্বর ১৯৯২ বনাম পাকিস্তান
শেষ ওডিআই৭ ফেব্রুয়ারি ১৯৯৯ বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
১৯৮৬ - ২০০৭উইন্ডওয়ার্ড আইল্যান্ডস
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট ওডিআই এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ৩৩ ৫৫ ১৪৯ ১২২
রানের সংখ্যা ৯১৮ ৬৭৮ ৬,৮৩০ ১,৮৯৫
ব্যাটিং গড় ২২.৩৯ ২২.৬০ ৩০.৯০ ২৩.১০
১০০/৫০ ১/৩ ০/৫ ১১/৩০ ১/৮
সর্বোচ্চ রান ১০১* ৮৬ ২১৮ ১০০*
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৯৯/৩ ৪৬/৭ ৩৩৭/৩১ ৯৩/৩১
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ২৫ নভেম্বর ২০১৯

জুনিয়র র‍্যান্ডলফ মারে (ইংরেজি: Junior Murray; জন্ম: ২০ জানুয়ারি, ১৯৬৮) গ্রেনাডার সেন্ট জর্জেস এলাকায় জন্মগ্রহণকারী সাবেক ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার। ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৯৩ থেকে ২০০২ সময়কালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন।

ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান ক্রিকেটে উইন্ডওয়ার্ড আইল্যান্ডস দলের প্রতিনিধিত্ব করেন। দলে তিনি মূলতঃ উইকেট-রক্ষক হিসেবে খেলতেন। এছাড়াও, ডানহাতে কার্যকরী ব্যাটিংশৈলী প্রদর্শন করেছেন জুনিয়র মারে

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট[সম্পাদনা]

১৯৮৬-৮৭ মৌসুম জুনিয়র মারের প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবন চলমান ছিল। ঘরোয়া ক্রিকেটে ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলোয়াড়ী জীবন শুরু করেন। পরবর্তীতে উইকেট-রক্ষক হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে সচেষ্ট হন। উইন্ডওয়ার্ড আইল্যান্ডসের পক্ষে ঘরোয়া ক্রিকেটে খেলতে থাকেন। ১৯৮৬-৮৭ মৌসুমে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার ও ২০০৬-০৭ মৌসুম পর্যন্ত খেলেন। ২০০৬ সাল পর্যন্ত ১৪৮টি প্রথম-শ্রেণীর খেলায় অংশ নিয়ে ৩১.১০ গড়ে ৬,৮১৩ রান তুলেন। গায়ানার বিপক্ষে ব্যক্তিগত সেরা ২১৮ রানের ইনিংস খেলেন।

১২২টি লিস্ট-এ ক্রিকেটের একদিনের খেলায় অংশ নিয়ে ২৩.১০ গড়ে ১,৮৯৫ রান করেন। তন্মধ্যে, রেড স্ট্রিপ বোলে বারমুদার বিপক্ষে একটি অপরাজিত শতরানের ইনিংস খেলেছেন।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট[সম্পাদনা]

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে ৩৩ টেস্ট ও ৫৫টি ওডিআইয়ে অংশগ্রহণ করেছেন জুনিয়র মারে। ২ জানুয়ারি, ১৯৯৩ তারিখে সিডনিতে স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়া দলের বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। ১৯ এপ্রিল, ২০০২ তারিখে পোর্ট অব স্পেনে সফরকারী ভারত দলের বিপক্ষে সর্বশেষ টেস্টে অংশ নেন তিনি। প্রথম গ্রেনাডীয় হিসেবে টেস্ট ক্রিকেটে ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রতিনিধিত্ব করার গৌরব অর্জন করেন।[১]

ওয়েস্ট ইন্ডিজের পক্ষে মোট ৩৩টি টেস্টে অংশ নিলেও একটিমাত্র সেঞ্চুরির সন্ধান পেয়েছেন। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে নিচেরসারিতে ব্যাটিংয়ে নেমে এ সাফল্য পান।

১৯৯৮-৯৯ মৌসুমে বিপর্যয়কর দক্ষিণ আফ্রিকা সফর শেষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নেন। এ পর্যায়ে তিনি শতাধিক টেস্ট ডিসমিসাল ঘটিয়েছিলেন। প্রায়শঃই একদিনের আন্তর্জাতিকে ব্যাটিং উদ্বোধনে নামতেন। তবে, সাফল্যের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে পারেননি।

মূল্যায়ন[সম্পাদনা]

খুব স্বল্পসংখ্যক খেলোয়াড়ই গ্রেনাডার ন্যায় খুদে দ্বীপ থেকে এসেছেন। তন্মধ্যে, জুনিয়র মারে অন্যতম। ব্যাটসম্যান ও উইকেট-রক্ষকের ভূমিকায় অবতীর্ণ হলেও কোন ক্ষেত্রেই নিজেকে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে মেলে ধরতে পারেননি। খুব কম সময়ই স্ট্যাম্পের পিছনে সপ্রতিভ ছিলেন। পূর্বসূরী উইকেট-রক্ষক ও প্রবল প্রতিপক্ষ জেফ্রি ডুজনের তুলনায় লম্বাটে গড়ন ও লম্বা বাহুর অধিকারী হলেও বেশ ম্লান ছিলেন। তবে, নিচেরসারিতে ব্যাটিং করে বেশ সফলতা পেয়েছেন।

পরিসংখ্যান[সম্পাদনা]

টেস্ট শতক[সম্পাদনা]

জুনিয়র মারের টেস্ট শতক
ক্রমিক রান খেলা প্রতিপক্ষ শহর/দেশ মাঠ শুরুর তারিখ ফলাফল
[১] ১০১* ১৭  নিউজিল্যান্ড নিউজিল্যান্ড ওয়েলিংটন, নিউজিল্যান্ড ব্যাসিন রিজার্ভ ১০ ফেব্রুয়ারি, ১৯৯৫ জয়

ওডিআইয়ে ম্যান অব দ্য ম্যাচ[সম্পাদনা]

ক্রমিক প্রতিপক্ষ মাঠ তারিখ খেলায় অবদান ফলাফল
পাকিস্তান অ্যাডিলেড ওভাল, অ্যাডিলেড ১৭ ডিসেম্বর, ১৯৯৬ ৮৬ (৭৮ বল, ১৪x৪)  ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৭ উইকেটে বিজয়ী[২]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Frog in a blender"ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২০ জানুয়ারি ২০১৭ 
  2. "1996–1997 Carlton & United Series – 4th Match – Pakistan v West Indies – Adelaide"HowStat। সংগ্রহের তারিখ ১৯ নভেম্বর ২০১৬ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]