হেকাতে

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
হেকাতে
ডাকিনীবিদ্যা,যাদুবিদ্যা,প্রেতাত্নার দেবী
Hecate Chiaramonti Inv1922.jpg
ট্রিপল হেকাতের রোমান ভাস্ক্রর্য (ভ্যাটিকান যাদুঘর)
আবাসপাতাল
প্রতীকজোড়া মশাল,কুকুর ,চাবি,হেকাতের চাকা।
সন্তানসন্ততিসাইলা, এতিস, সির্সে, পাসিফাই, এমপুসা
রোমান সমমানডায়ানা ট্রিভিয়া
মাতাপিতাপের্সেস এবং এস্তেরিয়া

হেকাটে বা হেকাটি( /ˈhɛkət/ ; হেকাটি হ'ল প্রাচীন গ্রীক ধর্ম ও পুরাণের দেবী,বেশীরভাগ ক্ষেত্রে এক জোড়া মশাল বা কিছু ধরে রাখা দেখানো হয়।তিনি ভিবিন্নভাবে ক্রস রোডে,প্রবেশ পথে , যাদু, জাদুবিদ্যা,ঔষধি এবং বিষাক্ত উদ্ভিদের ,জ্ঞান,ভূত এর সাথে জড়িত ছিলেন। তিনি হোমারীয় স্তবগান এবং হেসিওডের থিওগনিতে উপস্থিত হয়েছেন,যেখানে তিনি একজন মহান দেবী হিসেবে দৃঢ়ভাবে প্রচারিত হয়েছেন ।তার অনুসরণের স্থানটি অনিশ্চিত তবে ধারণা করা হয় থ্রেসে তার জনপ্রিয় অনুসরণ ছিল।

প্রতিরক্ষামূলক দেবী হিসেবে পরিবারের সমৃদ্ধি এবং প্রতিদিনের আশীর্বাদ অর্পণকারী এথেনিয়ান পরিবারের অন্যতম প্রধান দেবতা ছিলেন হেকাতে । ক্যালডিয়ান ওরাকলস এর(২য়-৩য় শতাব্দী) খ্রিষ্টান পরবর্তী লেখাগুলিতে তাকে পৃথিবী ,সমুদ্র এবং আকাশের উপর (কিছু)শাসন ব্যবস্থার এবং দেবতার সৃষ্টিসংক্রান্ত এবং বিশ্ব আত্নার মা হিসেবে বিবেচনা করা হত।তার ধর্মের স্বরূপ সম্পর্কে মন্তব্য ,"তিনি গ্রীক বহুশাস্ত্রের কেন্দ্র থেকে প্রান্তে বেশী অবস্থানে রয়েছেন।তিনি অভ্যন্তরীণভাবে দ্বিধান্বিত এবং বহুপদী প্রচলিত সীমারেখাকে অতিক্রম করে বিস্তারিত সংজ্ঞা নির্ধারণ করেন।"

নাম এবং উৎস[সম্পাদনা]

হেকাতে নামের বুৎপত্তি অজানা

।কিছু পরামর্শ মূল গ্রীক থেকে নামটি নিয়ে এসেছেন ; "ইচ্ছুক" ভাবে"(যিনি তার ইচ্ছামত কাজ করেন"বা অনুরূপ ) বা হেকাটোস থেকে ,অ্যাপোলো-এর একটি অস্পষ্ট উপাখ্যান " বহুদূর পর্যন্ত" বা "দূর-প্রান্তে " পৌছে কোথা থেকে "মেয়েটি দূর থেকে পরিচালিত হয় ' বা "যে সরিয়ে গাড়ি চালিয়ে চলছে " মেয়েলি রূপের জনয।

R. S. P. Beekes একটি গ্রীক বুৎপত্তিকে প্রত্যাখান করেছেন। তিনি নামের জন্য প্রাক -গ্রীক উতসের পরামর্শ দিয়েছেন ।হেকেট নামটি বৈদেশিক উতসের নামের সম্ভবনা ,যিনি মিশরীয় সন্তান জন্মদানের এক উর্বর দেবীর নাম।

প্রারম্ভিক আধুনিক ইংরেজীতে ,নামটির উচ্চারণ বিকৃত ছিল এবং মাঝে মাঝে হেকাট () বানান করা হত।চূড়ান্ত ()দিয়ে উচ্চারণ করা স্বত্বেও ১৯ শতকেও তার নামটি ইংরেজীতে দুই সিলেবল অনুযায়ী উচ্চারণ করা প্রচলিত রীতি ছিল।

আর্থার গোল্ডিং এর অনুবাদ ওভিদ এর মেটামরফসিস(১৫৬৭) এ হেকাটে বানানের কারন ,এলিজাবেথীয় জ্যাকবিয় সময়কালে হেকাতের চূড়ান্ত বানান (ই) ছাড়া করা হয়।ওয়েবস্টার এর অভিধান নিদির্ষ্টভাবে ১৮৮০ সালে শেক্সপিয়রের বিকৃত উচ্চারণের জন্য কৃতিত্ত্ব দেয়।

হেকাতে সম্ভবত কারিয়ান্স এর আনাতোলিয়ায় উদ্ভুত হয়েছিল,সেই অঞ্চল যেখানে হেকাতে কে যেমন হেকাতিউস বা হেকাতোমনাস ,মৌসোলাসের এর পিতা বলে সত্যায়িত,এবং যেখানে হেকাতে লজিনার তার অবচ্ছিন্ন সংস্কৃতি স্থানে ঐতিহাসিক সময়ে এক মহান দেবী হিসেবে রয়েছেন।যদিও অনেক গবেষক এই ধারণাটি পোষন করেন যে তিনি আনাতোলিয়ান অর্গানস অদ্ভুত,এটি যুক্তিযুক্ত হয়েছে যে ,"হেকাতে কে একজন গ্রীক দেবী হওয়া উচিত।"হেকাতের অনেক স্মৃতিসৌধ ফ্রেগিয়া এবং কারিয়ায় আছে কিন্তু সেগুলি ছিল বিলম্বে ।

উইলিয়াম বার্গ পর্যবেক্ষণ করেছেন যে,"যেহেতু বাচ্চাদের স্পোকের পরে ডাকা হয় না ,তাই ধারণা করা নিরাপদ যে কেরিয়ান থিওফরমিক নামগুলো হেকাতের সাথে জড়িত-প্রতলোকে একটি বড় দেবদেবাকে বুঝায় এবং অস্বাস্থ্যকর সম্পর্ক থেকে মুক্ত,শাস্ত্রীয় এথেন্সের যাদুবিদ্যার সাথে হেকাতে জড়িত ।" বিশেষত, এমন কিছু প্রমাণ রয়েছে যা তিনি স্থানীয় সূর্য দেবতা থেকে প্রাপ্ত হতে পারে(দেখুন অরিন্না),অনুরূপ বৈশিষ্টের উপর ভিত্তি করে।

যদি হেকাতের সংস্কৃতি আনাতোলিয়া থেকে গ্রীসে ছড়িয়ে পড়ে তবে এটি সম্ভবত হতে পারে একটি বিরোধের কারণ ,যেহেতু তার ভূমিকাটি ইতোমধ্যে গ্রীক প্যানাথিয়নে আরও বিশিষ্ট দেব-দেবী দ্বারা পূর্ণ হয়েছিল,সর্বোপরি আর্টেমিস এবং সেলিনের দ্বারা।এই যুক্তি বহুলাংশে গৃহীত রয়েছে হাইপোথেসিসের পিছনে যে তিনি একজন গ্রীক দেবতা হিসেবে প্যানাথিয়নে অন্তর্ভুক্ত ছিলেন।থিওগনি ব্যতীত গ্রীক উতসগুলি তার পিতৃপুরূষ বা গ্রীক প্যানাথিয়নে তার সম্পর্কের ধারাবাহিক কাহিনির বর্ণনা দেয় না;কখনও কখনও হেকাতে একজন টাইটানেস হিসেবে এবং একজন শক্তিশালী সহায়ক এবং রক্ষক হিসেবে সম্পৃক্ত হন।

অর্চনা[সম্পাদনা]

পবিত্র স্মৃতিচিহ্ন হিসেবে হেকাতে কে বাড়িঘর এবং শহরের দ্বারে দ্বারে স্থাপন করা হয়েছিল এই বিশ্বাস নিয়ে যে ইহা অস্থির এবং অন্যান্য মৃত আত্নাদের হাত থেকে রক্ষা করবে ।তেমনি পবিত্র স্মৃতিচিহ্ন হিসেবে হেকাতে কে স্থাপন করা হয়েছিল ত্রিমুখী ক্রসরোডে যেখানে অন্যান মন্দ কাজগুলি থেকে তাদেরকে রক্ষার জন্য অমাবস্যার রাতে খাদ্য উতসর্গ করা হয়েছিল।

কুকুরগুলি হেকাতের কাছে পবিত্র ছিল এবং রাস্তাঘাট ,গার্হস্থ্য স্থান,শুদ্বিকরণ এবং মৃতদের আত্নার সাথে জড়িত ।রাস্তায় কুকুরও কোরবানি দেওয়া হয়েছিল।এটি পাউসানিয়াসের প্রতিবেদনের সাথে তুলনা করা যেতে পারে যে ,এশিয়ার মিয়ানমার কোলফোন শহরে একটি কালো মহিলা কুকুরছানাটির বলি হেকাতেকে "পথচারী দেবী"হিসেবে দেওয়া হয়েছিল,এবং প্লুটার্কের পর্যবেক্ষণে বোয়েটিয়ায় কুকুরকে শুদ্বিকরণ আচারে হ্ত্যা করা হয়েছিল।কুকুরছানাসহ প্রায়শই উল্লেখ করা হয় হেকাতে কে দ্বারপথে দেওয়া হয়েছিল যা দেবীর কাছে পবিত্র ছিল।

অভয়ারণ্য[সম্পাদনা]

হেকাতে একটি জনপ্রিয় দেবত্ব ছিল এবং তার ধর্মের প্রচলন সমগ্র গ্রীস এবং ওয়েস্টার্ন আনাতোলিয়া জোড়ে অনেক স্থানীয় পরিবর্তনের সাথে প্রচলিত ছিল।তবে লজিনায় অনেক বিখ্যাত মন্দিরের পাশে তাকে উতসর্গকৃত পবিত্র স্থান কিংবা মন্দির নেই।হেকাতের সম্প্রদায়ের প্রাচীনতম প্রত্যক্ষ প্রমাণ সেলিনুয়ান্ট (আধুনিক সময়ের সিসিল ত্রপাণীতে), মতে যেখানে তার একটি মন্দির ছিল ৬ষ্ঠ-৫ম শতাব্দীতে।

আর্গোলিসের মধ্যে হেকাতের একটি মন্দির ছিলঃ "ইলিথিয়ার মন্দিরের বিপরীতে হেকাতের একটি দেবী মন্দির (এখানে সম্ভবত দেবী এপাথীয়াসেড আইপেনিয়ার সাথে চিহ্নিত) ,এবং এই ছবিটি স্কোপাসে কাজ করা একটি ছবি।ইহা একটি পাথরে যখন তা ব্রোজ ছবির বিপরীতে ,এছাড়াও হেকাতে সম্মানের সাথে নির্মিত হয়েছিল পলিক্লেটিস এবং তার ভাই নৌকিডিস দ্বারা।এগিনাতে একটি মন্দিরও ছিল যেখানে তিনি খুব জনপ্রিয় ছিলেনঃ

"দেবতাদের মধ্যে আইজিনেটিয়ানরা বেশিরভাগ হেকাতের পূজা করে,যার সম্মানে তারা প্রতিবছর মরমী রীতি উদযাপন করে ,তারা বলে যে অরফিয়াস থ্রাকিয়ান তাদের মধ্যে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল।সীমানার মধ্যে একটি মন্দিরে রয়েছে ;এর কাঠের চিত্রটি মাইরনের কাজ এবং ইহার এক্টি মুখ এবং একটি দেহ রয়েছে।আমার মতে এটি ছিল আলকামেস ,যিনি প্রথম হেকাতের তিনটি চিত্র একে অপরের সাথে যুক্ত করেছিলেন।"

তার নিজের মন্দির ছাড়াও হেকাতেকে অন্যান্য দেবীর অভয়ারণ্যে পূজা করা হত,যেখানে সম্ভবত মাঝেমাঝে তাকে নিজের স্থান দেওয়া হত।ইফেসের আর্টেমিস মন্দিরের সীমানা হেকাতের কাছে একটি পবিত্র অঞ্চল ছিল ,যেখানে পুরোহিতরা মেগাবাইজি নিযুক্ত করেছিলেন।এই অভয়ারণ্যটিকে হেকাতেশন (হেকাতের মন্দির)বলা হত।তাকে টাইটানে এথেনা মন্দিরেও পূজা করা হতঃ"টাইটানে এথেনার একটি অভয়ারণ্য রয়েছে যেখানে তারা কোরোনিসের (আস্ক্লেপিউস এর মা) মূর্তি তুলে ধরে।অভয়ারণ্যটি একটি পাহাড়ের উপর তৈরি করা হয়েছে যার নিচে বাতাসের প্রবাহ রয়েছে এবং এর উপরে প্রতিবছর এক রাতে বাতাসের উদ্দ্যেশে বলিদান করে।বিস্ফোরণের (বাতাসের) তীব্রতার প্রতিবাদ করে তিনি(হেকাতে) চারটি গর্তে অন্যান্য গোপনীয় অনুষ্ঠানও করেছিলেন এবং তাকে বলা হয় যে তিনি মেডিয়ার মনোমুগদ্ব করতে পারেন।"প্রকৃতিতে তার বেশিরভাগ পূজা হত,সেখানে তার অনেক প্রাকৃতিক অভয়ারণ্য ছিল।হেকাতের একটি গুরূত্বপূর্ণ অভয়ারণ্য ছিল সামোথ্রেক দ্বীপে যা জেরিনথোস নামে পরিচিতঃ

"সামোথ্রেকে কিছু নির্দিষ্ট দীক্ষা অনুষ্ঠান ছিল,যা তারা নির্দিষ্ট বিপদগুলির বিরূদ্ধে মনোহর কার্যকর হিসেবে মনে করেছিল।।সে জায়গায় করিবান্তেস (কাবেইরোই) এ হেকাতে এবং জেরিনথিয়ান গুহার রহস্য ছিল, যেখানে তারা কুকুরের বলি উতসর্গ করেছিল।ভেবেছিলেন যে এই জিনিষগুলি (তাদের) আতংক এবং ঝড় থেকে রক্ষা করবে ।"

লাজিনায় অর্চনা[সম্পাদনা]

হেকাতের গুরুত্বপূর্ণ অভয়ারণ্য ছিল লজিনা,একটি ঈশ্বতান্ত্রিক নগর রাজ্যযেখানে দেবীকে নপুংসকদের দ্বারা পরিবেশন করা হয়েছিল।

স্ট্রাবো মন্দিরটির উল্লেখ করেছেন :

"স্ট্রেটোনাইকিয়া (করিয়া ,এশিয়া মাইনর)হল ম্যাকডোনিয়ানদের একটি বসতি।স্ট্রেটোনাইকিয়ানদের দেশে তাদের দুটি মন্দির আছে ,এগুলোর মধ্যে লজিনায় অবস্থিত হেকাতের মন্দিরটি সবচেয়ে বিখ্যাত এবং এটি প্রতিবছর দূর্দান্ত আনন্দজনক অনুষ্ঠান আয়োজন করে।"

লজিনা, যেখানে হেকাতের বিখ্যাত মন্দিরটি প্রতিবছর দুর্দান্ত সভা আকর্ষণ করে,স্ট্যাস্টোনাইকিয়া যা ম্যাসিডোনিয়ান উপনবেশের কাছে অবস্থিত ,যেখানে তিনি এই শহরের পৃষ্ঠপোষক ছিলেন।থ্রেসে তে তিনি হার্মিসের মত অল্প ভূমিকা পালন করেছিলেন,নামধারী অঞ্চলগুলির শাসক বিশেষ করে গেটস এবং প্রান্তরে।

বাইজান্টিয়ামে অর্চনা[সম্পাদনা]

বাইজান্টিয়ামে হেকাতের প্রচুর উপাসনা হ্যেছিল।কথিত ছিল যে তিনি দ্বিতীয় ফিলিপের হাত থেকে শহরটিকে রক্ষা করেছিলেন এবং আকাশে একটি আলো দ্বারা আক্রমন সম্পর্কে নগরাবাসীদের সতর্ক করেছিলেন,যার জন্য তিনি হেকাতে ল্যাম্পেডিফোর্স নামে পরিচিত ছিলেন। কাহিনীটি সুডায় সংরক্ষিত আছে।

বলা হয়ে থাকে যে হেকাতে ফসফরাস (শুক্র)হিসেবে দ্বিতীয় ফিলিপের অবরোধের সময় আকাশ জ্বালিয়েছিলেন এবং এই অঞ্চলের বাসিন্দাদের আক্রমণ সম্পর্কে জানিয়েছিলেন।বাইজেন্টাইনরা তাকে "প্রদীপের বাহক " হিসেবে একটি মূর্তি উতসর্গ করেছিল।

সান্ধ্য খাবার(ডিপন)[সম্পাদনা]

এথেনিয়ান গ্রীকরা সান্ধ্য খাবার সময়ে হেকাতের প্রতি স্ম্মান জানায়।গ্রীক ভাষায় ডিপন মানে সন্ধ্যার খাবার,যা সাধারণত দিনের সবচেয়ে বড় খাবার।হেকাতের ডিপন হল মূলত, চাদের মাসে অমাবস্যার রাতে হেকাতে এবং অস্থির মৃতদের খাবার দেওয়া হয়।ডিপন পরবর্তী দিন সর্বদা নোমেনিয়া অনুসরন করে,যখন চাদের প্রথম অংশ দেখা যায় এবং পরবর্তী দিন আগাটোস ডাইমন।

ডিপনের মূল উদ্দেশ্য ছিল হেকাতে কে সম্মান করা এবং তার জাগরণে আত্নাকে প্রশান্ত করা যারা "প্রতিশোধের জন্য আকাংকি।" একটি গৌণ উদ্দেশ্য হল পরিবারকে শুদ্দ্ব করা এবং খারাপ কাজের প্রায়শ্চিত করা কোন গৃহকর্মী ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে থাকতে পারে ,যার ফলে হেকাতে তাদের কাছ থেকে অনুগ্রহ আটকাতে পারেন।ডিপন তিনটি প্রধান অংশ নিয়ে গঠিত ;১)সাধারণত বাড়ির প্রবেশ পথের বাইরে একটি মন্দিরের চৌরাস্তাতে খাওয়া হত,২)একটি কাফফেয়ার কোরবানি এবং ৩)পরিবারের শুদ্দ্বি।

গুণাবলী এবং উপনাম[সম্পাদনা]

ভিবিন্ন নাম দ্বারা হেকাতে পরিচিত ছিল:

  • আপোট্রোপিয়া (যে রক্ষা করে )
  • এথোনিয়া (প্রেতলোক)
  • এনোডিয়া(পথে)
  • ক্লেইডোছস (চাবি ধরে রাখা)
  • কোরোট্রফস(শিশু পরিচ্ররযা করে)
  • ক্রকোপেপ্লস (জাফরান খালি)
  • মেলিনিও
  • ফসগরাস (বহনকারী)
  • ফ্রপোলস (প্রচারপত্র)
  • প্রোপুলাইয়া(গেটের আগে)
  • সোটেইরা (ত্রাণকর্তা)
  • ট্রিমরফী (ত্রি-গঠিত)
  • ট্রিওদিয়া (যারা ঘন ঘন রাস্তা পারাপার)

উপস্থাপনায়[সম্পাদনা]

কালি,কলম ,টর্চ নিয়ে ত্রিমুখী হেকাতে
ত্রিপল হেকাতে

সাধারণত ত্রি-গঠিত হিসেবে হেকাতে কে প্রতিনিধিত্ব করা হয়।এটি পূর্ণিমা ,অর্ধচন্দ্র এবং অমাবস্যার উপস্থিতির সাথে যুক্ত বলে অনুমাণ করা হয়েছে ।কুমারী দেবী হিসেবে ,তিনি অবিবাহিত ছিলেন এবং তার নিয়মিত স্বামী স্ংগী ছিল না,যদিও ঐতিহ্য অনুসারে তাকে স্লিসার মা হিসেবে নাম দিয়েছে।

হেকাতের প্রথম দিকের গ্রীক চিত্রগুলি ত্রি-গঠনের ছিল না।ফার্নেল এর মতে ; "হেকাতের চরিত্র ও তাতপর্য সম্পর্কে স্মৃতিসৌধগুলোর প্রমাণ তার বহুগুণ এবং মরমী প্রকৃতি প্রকাশ করার মত প্রায় পূর্ণ।"

প্রাচীন স্মৃতিস্তম্ভটি এথেন্সে পাওয়া একটি ছোট পোড়ামাটির জায়গা,৬ষ্ঠ শব্দাতীর ধরনের রচনায় হেকাতে কে উতসর্গ করা। মাথায় একটি মালা সহ দেবী একটি সিংহাসনে বসে রয়েছেন ;তিনি কোন গুণাবলী এবং চরিত্র ছাড়াই রয়েছেন এবং এই কাজের ঐতিহাসিক মূল্য যা স্পষ্টতই সাধারণ ধরনের এবং শিলালিপি থেকে একটি বিশেষ উল্লেখ এবং নাম পায়,ইহা একক আকারকে তার আগের রূপ হিসেবে প্রমাণ করে এবং এথেন্সে তার স্বীকৃতি পার্সিয়ান আগ্রাওসনের থেকে আগের হতে পারে।

ত্রিপল হেকাতে, ৩য় শতাব্দী (গ্লিপটোথেক, মিউনিখ)

দ্বিতীয় শতাব্দীর ভ্রমণ লেখক পাউসানিয়াস জানিয়েছিলেন যে হেকাতে খ্রিস্টপূর্ব ৫ম শতকে প্রথম গ্রীক ধ্রূপদী ভাস্কর আল্কামনেস দ্বারা চিত্রিত হয়েছিলেন,যেটি এথেন্সের উইংলেস নাইকের মন্দিরে স্থাপন করা হয়েছিল।গ্রীক শিল্পের নৃতাত্ত্বিক সম্মেলনগুলি তাকে ত্রিমুখী হিসেবে প্রতিনিধিত্ব করেছিলঃ খ্রিস্টপূর্ব ৩য় শতাব্দীর আটিকা থেকে প্রাপ্ত একটি ভাস্কর্যে (বামে চিত্র) একটি স্তম্ভের বিপরীতে তিনটি একক চিত্র দেখায়;হেকাতের কলামটি চেরিটের নাচানো।কিছু ধ্রূপদী চিত্রায়ণে তাকে মশাল ,একটা কিছু,সর্প ,খঞ্জার এবং অন্যান্য উপাদান ধারণ করে একটি ত্রিমুখী ছবি দেখায়।এককভাবে এবং ত্রিপল উভয় চিত্রে হেকাতে, পাশাপাশী মাঝেমাঝে চারমাথা তার ইতিহাস জুড়ে চলমান রয়েছে।

মিশরীয় অনুপ্রানীত গ্রীক সাহিত্যের রচনাগুলিত হার্মিস ট্রিসমেগিস্টাসের সাথে সংযুক্ত এবং প্রাচীনতার যাদুকরী পাপরিতে তিনি তিনটি মাথা হিসেবে বর্ণনা করেছেন; একটি কুকুর,একটি সর্প,একটি ঘোড়া ,এবং অন্যান্য উপস্থাপনায় তার পশুর মাথায় একটি গাভী এবং একটি শুয়োর রয়েছে।হেকাতের ত্রিপল চিত্র এখন অন্য কোথাও উন্মুক্ত করা হয়েছে হেলেনিক ফ্যাশনে বার্লিনের বিখ্যাত পার্গামন আলতারে বিশাল ছাদের কারূকার্যে,এতে তাকে তিনটি মৃতদেহ সহ টাইটানদের সাথে যুদ্দ্বে অংশ নিয়ে দেখানো হয়েছে।ডায়োসকুরির মন্দিরের কাছে অর্গোলিডে পাউসানিয়াস ইলিথিয়ার মন্দিরের বিপরীতে হেকাতে মন্দির দেখেছিলেন;তিনি বলেন যে এই চিত্রের কাজটি স্কোপাসের কাজ ,তিনি আরও বলেন যে,"এটি একটি পাথরের ,হেকাতের চিত্রের বিপরীতে ব্রোঞ্জ ,চিত্রগুলি যথাক্রমে পলিক্লেটাস এবং তার ভাই নৌকিডাস মথনের পুত্র দ্বারা তৈরি করেছিলেন।"(গ্রীসের বর্ণনা ২।২২।৭)

আর্গোনাটিকাতে,খ্রিস্টপূর্ব ৩য় শতাব্দীর আলেকজান্দ্রীয় মহাকাব্যটি প্রাথমিক উপাদানগুলির উপর ভিত্তি করে,জেসন হেকাতেকে তার পুরোহিত মেদিয়ার দ্বারা নির্ধারিত একটি রীতিতে হস্তান্তর করেছিলেনঃ মধ্যরাতে প্রবাহিত জলের স্রোতে স্নান করানো ,এবং অন্ধকারে পোশাক পরিহিত জেসনকে একটি গোল গর্ত খনন করতে হবে এবং তার উপর একটি অজার গলা কেটে কোরবানি দেওয়া হবে এবং পুরোটি হলোকাস্ট গর্তের পাশে একটি পাইরে পুড়িয়ে ফেলতে হবে।তাকে বলা হয় মধুর আকানকার সাথে নৈবদ্য কে মিষ্টি করতে ,তারপর পিছনে না তাকিয়েই পাশে থেকে সরে যেতে,এমনকি তা পদবিন্যাস এবং কুকুরের আওয়াজ শুনেও।এই সমস্ত উপাদান একটি এথনিক দেবীর শেষকৃত্য অনুষ্ঠানের লক্ষণ।

খ্রিষ্টপূর্ব চতুর্থ শতাব্দীতে থেসলির ক্র্যানন থেকে মার্বেল মূর্তিটি একটি রেস ঘোড়ার মালিক দ্বারা উতসর্গ করা হয়েছিল।এটিতে হেকাতেকে দেখা যায় যে একটি মাদীঘোড়ার মাথায় পুষ্প স্তবক অর্পণ করেন।তিনি সাধারণত একটি কুকুর দ্বারা উপস্থিত হতেন,এবং নৈবদ্য হিসেবে দ্বারপথে মাংস রেখে যেতেন।কুকুরের সাথে তার উপস্থিতির চিত্রগুলি এমন সময় পাওয়া যায় যখন তিনি মাতৃদেবী হিসেবে সন্তানের সাথে দেখা গিয়েছিল এবং যখন তাকে ঈশ্বর হার্মিস এবং দেবতা কেবেলের সাথে উপশম করা হয়েছে।

প্রানী[সম্পাদনা]

ত্রিপল হেকাতে ,১৭৯৫। উইলিয়াম ব্লেক
সম্ভবত দেবী হেকাতে বা আর্টেমিস হতে পারেন,হাতে তীর ধনুক,কুকুর,জোড়া মশাল হাতে।

শাস্ত্রীয় বিশ্বে কুকুরগুলি হেকাতের সাথে ঘনিষ্টভাবে জড়িত ছিল।"শিল্পে এবং সাহিত্যে হেকাতেকে প্রতিনিয়ত কুকুরের আকারের বা একটি কুকুরের প্রতিনিধিত্ত্ব করা হয়।তার পদ্বতি কুকুরের আর্তনাদ দ্বারা প্রকাশিত হয়েছিল।কুকুরটি হেকাতের নিয়মিত কোরবানির পশু ছিল এবং প্রায়ই এটি একমাত্র ধর্মপ্রাণে খাওয়া হত।"হেকাতে কুকুরের বলিতি থ্রেস ,সামোথ্রেস ,কলোফোন এবং এথেন্সের পক্ষে প্রমাণিত।

বলা হয়ে থাকে যে কুকুরের সাথে তার যোগসূত্রটি"জন্মের সাথে তার সংযোগের পরামর্শ দেয় কারণ কুকরটি এলিথিয়া ,জেনেটিলিস এবং অন্যান্য জন্মদেবীদের কাছে পবিত্র ছিল।যদিও পরবর্তী সময়ে হেকাতের কুকুরটি তার সাথে আসা অস্থির আত্না বা রাক্ষসদের প্রকাশ হিসেবে বিবেচিত হয়েছিল,এটি অনেকগুলি প্রাচীনতম শিল্পের অংশে হেকাতের উপস্থিতি বন্ধুত্বপূর্ণ দেখায় এবং এর সঙ্গতি বোঝায় যে এর আসল স্বাক্ষরটি ইতিবাচক ছিল এবং এভাবে পাতাল সংঘের চেয়ে কুকুরের সংযোগ থেকে জিন্ম নেয়া পছন্দ ছিল।লাইকোফ্রন এর রূপকথার মাধ্যমে কুকুরের সাথে বিশেষত মহিলা কুকুরের সাথে সংযোগটি ব্যাখ্যা করা যেতে পারেঃ হেকাতের সঙ্গী বন্ধুত্বপূর্ণ কুকুরটি মূলত সাহসী যোদ্ধা রাণী হেকাবে,যিনি ট্রয় নগরীর পতনের পরে সমুদ্রে ঝাপিয়ে পড়েছিলেন এবং হেকাতের দ্বারা তার পরিচিত ব্যক্তিতে রূপান্তরিত হয়েছিলে।

আরেকটি রূপান্তরিত কল্পকাহিনী ব্যাখ্যা করে কেন পোলেকেট হেকাতের সাথে যুক্ত।আন্টোনিনাস লিবারালিসের কাছে থেকেঃ"থিবেস পাইটোসের একটি কন্যা ছিল গ্যালিন্থিয়াস নামে।এই মেয়েটি এলেকট্রিয়নের যে আলকামিনের নাটকী সহচরী ছিলেন।হেরাকলসের জন্মের সাথে সাথে আলকামিনের উপর চাপ আসায় মাইরাই (ভাগ্যদেবী)এবং আইলেথিয়া (জন্ম-দেবী)হেরার অনুগ্রহে আলকামিনকে অবিচ্ছিন্ন জন্মের যন্ত্রণায় রাখে।তারা বসে রইল ,প্রত্যেকে তাদের অস্ত্র অতিক্রান্ত করল।গ্যালিন্থিয়াস এর এই ভয় যে তার শ্রমের বেদনা আলকামিনকে পাগল করে তুলবে ,মাইরাই এবং এলিথিয়া দৌড়ে গিয়ে ঘোষনা দিল যে জিউসের কৃপায় আলকামিনের একটি ছেলে জন্মেছিল এবং তাদের অহংকার বিলুপ্ত হয়েছে বলে ঘোষণা দিল।

এতকিছুর পরে অবশ্যই ভয় মইরায়কে পরাভূত ক্রেছিল এবং তারা তাদের অস্ত্র ছেড়ে দেয়।আলকামিনের ব্যাথা কমে গিয়েছিল একসময় এবং হেরাক্লেস এর জন্ম হয়েছিল।এতে মইরায় ক্ষুব্ধ হয়ে গ্যালিন্থিয়াসের নারীসুলবতা কেড়ে নিয়েছিল,যেহেতু তিনি মরণশীল ছিলেন ,তিনি দেবতাদের প্রতারণা করেছিলেন।তারা তাকে প্রতারণামূলক বেজি (বা খট্টাস)হিসেবে রূপান্তরিত করে ,ফাটলের মধ্যে তাকে জীবিত রাখে এবং সঙ্গম করার এক ভৌতিক উপায় দিয়েছে তাকে।তাকে অধ্যাসিত অবস্থায় কানের উপর রাখা হয় এবং গলায় তার যুবককে প্রসব করে জন্ম দেয়।হেকাতে তার উপস্থিতির এই রূপান্তরটি জন্য দুঃখিত হলেন এবং তাকে নিজের একটি পবিত্র দাস হিসেবে নিযুক্ত করলেন।"

আইলিয়ান একটি মহিলার খট্টাশে রূপান্তরিত করার একটি ভিন্ন গল্প বলেছেনঃ"শুনেছি খট্টাশ এক সময় মানুষ ছিল।এটি আমার শুনাতেও পৌছে গেছে যে তার নাম ছিল গেইল।তিনি মন্ত্র এবং একটি যাদুবিদ্যার ব্যবসায়ী ছিলেন,তিনি চরম অস্ংলগ্ন ছিলেন এবং তিনি অস্বাভাবিক যৌন আকাক্ষায় ভুগছিলেন।এমনকি আমার নজরেও এড়ায়নি যে দেবী হেকাতের ক্রোধ এটিকে দুষ্ট প্রাণীতে রূপান্তরিত করছিল।দেবী আমার প্রতি করূণা করূনঃকল্পকাহিনী এবং তাদের বলা কথা অন্যের কাছে বলতেছি।"

নোক্রাটিসের আথেনিয়াস ,এথেন্সের আপলোডোরাসের চিত্র অঙ্কন করে বুতপত্তিগত অনুমানের উল্লেখ করেছে যে লাল সামুদ্রিক মতস্যবিশেষ হেকাতের কাছে পবিত্র,"তাদের নামের সাদৃশ হিসেবে ;তার জন্য ত্রিপল ধরনের দেবী ত্রিমোরফোস ।"গ্রীক শব্দ মুলেট এর জন্য এটি প্রথম ত্রিগল এবং পরে ত্রিগলা হয়েছিল।তিনি "ও উপপত্নী হেকাতে ,ট্রায়াডাইটিস বা তিনটি ধরন এবং তিনটি মুখের সাথে বা আরাধনার জন্য সংযুক্ত করেন মুলেটের মধ্যে।"দূষনের গ্রীক ধারনার সাথে সম্পর্কিত পার্কার লক্ষ করেছেন,"যে মাছটি সর্বাধিক নিষিদ্ধ ছিল ছিল তাহল লাল সামুদ্রিক মাছ(ত্রিগল),যা নিদর্শনটির সাথে খুব সুন্দরভাবে যুক্ত করে।ইহা দূষিত জিনিসের প্রতি আনন্দিত এবং কোন মৃত মানুষ বা মাছ খাইতে আগ্রহী;রক্ত বর্ণের নিজেই ,ইহা রক্ত খাওয়ার দেবী হেকাতে পবিত্র ছিল।এটি গভীর প্রাণীর সমস্ত নেতিবাচক বৈশিষ্ট্যের এক্টী প্রতীকী সমষ্টি বলে মনে হয়।" বলা হয় যে, এথেন্সে হেকাতের ত্রিগ্লাথেনা একটি মূর্তি ছিল,যাকে বলি দানের জন্য লাল তুষার দেওয়া হয়ছিল।এই মাছ হেকাতের কাছে পবিত্র ছিল ব্লে উল্লেখ করার পরে,আলান ডেভিডসন লিখেছেন,সিসেরো ,হোরেস ,জুভেনাল,মার্শাল,প্লিনি,সেনেকা এবং সোয়েটনিয়াস লাল তুষার ঝড় সম্পর্কিত প্রচুর এবং আকর্ষণীয় সাক্ষ্য রেকে গেছে যা ধনী রোমানদের শেষ বছর হতে প্রভাবিত করতে শুরু করে প্রজাতন্ত্র এবং প্রাথমিক সাম্রাজ্যে সত্যই তাদের আকড়ে ধরেছিল।এর প্রধান লক্ষণগুলি আকারের সাথে ব্যস্ততা ছিল,ফলে বড় রকম দামের অযৌক্তিক উচ্চতায় ফলস্বরূপ বৃদ্ধি,লাল সামুদ্রিক মাছকে বন্দি আবদ্ধ করে রাখার রীতি এবং মরা মাছের পরিবর্তনের রং দেখে উচ্চতর বিশেষায়িত নান্দনিক অভিজ্ঞতা উপভোগ করা হয়েছিল।"

ব্যাঙ্গটি,যা একইরকম নামের মিশরীয় দেবী হেকাতের প্রতীক ছিল,আধুনিক পৌত্তলিক সাহিত্যে হেকাতের কাছেও পবিত্র হয়ে উঠেছে,সম্ভবত ইহা দুটি উপাদানের মধ্য থেকে পার হবার দক্ষতার অংশ হিসেবে।

উপরে বর্ণিত তিন মাথা উপস্থাপনায় তার ,হেকাতে তে প্রায়শই এক বা একাধিক প্রানীর মাথা থাকে,যার মধ্যে রয়েছে গরূ ,কুকুর,শুয়োর ,সর্প এবং ঘোড়া ।

গাছপালা[সম্পাদনা]

হেকাতে গাছের লোর এবং ঔষধ এবং বিষের সংমিশ্রণের সাথে ঘনিষ্টভাবে জড়িত ছিল।বিশেষত ঘনিষ্টভাবে সম্পর্কিত শিল্পগুলিতে নির্দেশনা দেওয়ার কথা ভাবা হয়েছিল। রোডসের আপলোনিয়াস আর্গোনাটিকার এ উল্লেখ করেছেন যে হেকাতে মেডিকে শিখিয়েছিলেন "পার্সেস এর মেয়ে হেকাতে ড্রাগে কাজ করা শিখিয়েছিল এমন একটি যুবতী মেয়ের কথা আমি আপনাকে পূর্বে উল্লেখ করেছি ।"

সেফোক্লিস এর হারিয়ে যাওয়া নাটক দ্যা রূট ডিগারস বা(দ্যা রূট কাটার্স) এর একটি অংশে দেবীকে ওক(এক ধরনের গাছের পাতা) পরিহিত হিসেবে বর্ণনা করা হয়েছে,এবং রোডসের আর্গোনাটিকার(৩।১২১৪) আপেলোনিয়াসের একটি প্রাচীন ভাষ্য তাকে সাপ দ্বারা বেষ্টিত মাথা হিসেবে ওক গাছের শাখাগুলি দিয়ে বেড়ানো হিসেবে বর্ণনা করেছেন।

বিশেষত ইউ কাষ্ঠ(গির্জা প্রাংগনে রোপন এক ধনের ধীর বর্ধনশীল) হেকাতের কাছে পবিত্র ছিল

গ্রীকরা ইউ কাষ্ঠ কে হেকাতের পবিত্র হিসেবে ধরে রাখত তার পরিচারকরা কালো ষাড়গুলির গলায় যুক্ত করে দিয়েছিল যে তারা তার সম্মানে জবাই করছিল এবং ইউ কাষ্ঠ দফায় দফায় চিতার অন্ত্যোষ্টিক্রিয়ায় পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছিল।ইউ বর্ণমালার সাথে যুক্ত ছিল এবং ইউ এর জন্য বৈজ্ঞানিক নাম,টক্সোস,যা গ্রীক শব্দ থেকে উদ্ভুত হয়েছিল,যা হতাশাজনকভাবে অনূরূপ টক্সস ,ধনুক এবং বিষাক্ত এর জন্য শব্দ।ধারণা করা হয় যে ধনুক এবং বিষ উভয়ের পক্ষে শ্রেষ্ঠত্বের কারণে পরবর্তীটির নাম গাছের নামে রাখা হয়েছিল।

রসুনের নৈবেদ্যগুলির পক্ষে হেকাতের সমর্থন জানানো হয়েছিল,যা তার ধর্মের সাথে ঘনিষ্টভাবে জড়িত ছিল।তিনি কখনও কখনও সরলবর্গীয় চিরহরিত বৃক্ষবিশেষ,মৃত্যুর প্রতীকি গাছ এবং পাতাল জগতের সাথেও যুক্ত ছিলেন এবং তাই কয়েকটি এথোনিক দেবীর কাছে পবিত্র।

অন্যান্য বেশ কয়েকটি উদ্ভিদ (প্রায় বিষাক্ত,ঔষধি ) এর মধ্যে একোনিতে(সাধারণত হেকাটিস বলা হয়) ,বেল্লাদোন্না,ডিট্টানি এবং ম্যান্ড্রেকে।পরামর্শ দেওয়া হয়েছে যে কুকুরের গর্ত খুড়ার সাথে ম্যান্ডারেকে উদ্ভিদের জন্য হেকাতের সাহায্য সহযোগিতা করা,প্রকৃতপক্ষে কমপক্ষে প্রথম শতাব্দীর প্রথম শুরু থেকেই যাদুর সাথে সম্পর্কিত গাছপালা উঠাতে খননের জন্য কুকুরের ব্যবহার করা বহুল প্রচলিত প্রমাণ রয়েছে।

সীমানায় এবং রাস্তাপারাপারে[সম্পাদনা]

কয়েন এ বাক্টিয়ার আগাথোক্লেস (শাসিত ১৯০-১৮০ খ্রিষ্টপূর্বাব্দ), শো জিউস অধিষ্ঠিত হেকাতে তার হাতে.

হেকাতে সীমানা,শহরের দেয়াল,দ্বারপথ ,চৌরাস্তা এবং জীব সংসারের বর্ধনের দ্বারা বাইরে বা বাইরের জমির সাথে যুক্ত ছিল।বিশেষত তিনি 'মধ্যে 'থাকার সাথে যুক্ত ছিলেন বলে মনে হয় এবং এজন্য তাকে 'সীমিত' দেবী হিসেবে চিহ্নিত করা হয়।"হেকাতে অলিম্পিয়ান এবং টাইটান শাসন ব্যবস্থার ঐশরিক এবং নশ্বর ক্ষেত্রগুলির মধ্যে মধ্যস্থতা করেছিল।" এই সীমিত ভূমিকাটি তার বেশ কয়েকটি কাল্ট শিরোনামে প্রতিফলিত হয় ;আপোট্রোপাইয়া (সুরক্ষাদেয়);এনোডিয়া (পথে);প্রপোলাইয়া (ফটকের সামনে);ট্রিওদিয়া(সংযোগস্থলে);ক্লেইডোছস(চাবি ধরে রাখা),ইত্যাদি

একজন দেবী হিসেবে তিনি বাড়ি বা শহরকে ক্ষতিকারক এবং ধ্বংসাত্নক আত্নার হাত থেকে বাচাতে এবং ব্যক্তিকে বিপজ্জনক স্থান দিয়ে যাবার সময় রক্ষা করার প্রত্যাশা করেছিলেন ,হেকাতে প্রাকৃতিকভাবে এমন একজন দেবী হিসেবে পরিচিত ছিলেন যিনি ভূতদের প্রত্যাখান থেকে প্রতিহত করতে পারতেন,এমনকি দূভাগ্যজনক ব্যক্তিদের বিরূদ্ধে এগুলি চালিয়ে যান।

এটি প্রবেশপথের অভিভাবক হিসেবে তার ভূমিকা ছিল যা ৫ম শতাব্দীর মধ্যভাগের দেবী এনোডিয়া সাথে একজন দেবী থেসালিয়ান কে দিয়ে হেকাতে কে সনাক্তকরণ এর দিকে পরিচালিত করা হয়েছিল।এনোডিয়ার নাম ("খুব নাম") পরাম্ররশ দেয় যে তিনি প্রবেশ পথের উপর নজর রাখতেন,এজন্য এটি উভয় সম্ভবনা প্রকাশ করে যে তিনি একটি শহরের প্রধান রাস্তায় দাড়িয়েছিলেন,যারা প্রবেশ করছে তাদের দিকে নজর রাখছেন,এবং ব্যক্তিগত বাড়ির সামনে এবং রাস্তায় তাদের সুরক্ষা দেয়।

এই ফাংশনটির জন্য মনে হয় যে হেকাতের চাবিগুলো মূর্তিতত্ত্বের সংঘের সাথে কিছু সম্পর্ক ছিল ,এবং দুটি মশাল দিয়েও তার উপস্থিতির সাথে সম্পর্ক হতে পারে,যা যখন একটি গেট বা দরজার উভয় পাশে অবস্থিত আশেপাশের অঞ্চল আলোকিত করে এবং দর্শনার্থীদের সনাক্ত করণের অনুমিত দেয়।"বাইজান্টিয়ামে তার সম্মানে ছোট মূর্তিগুলি শহরের ফটকে স্থাপন করা হয়েছিল।বাইজান্টিয়ামে সুরক্ষার দেবতা হিসেবে হেকাতের গুরুত্ব ছিল সর্বোপরি।যখন ম্যাসিডোন এর ফিলিপ শহর আক্রমণ করতে চলেছিল,কিংবদন্তি হিসেবে তার সর্বদা উপস্থিতি মশাল দিয়ে সতর্ক করেছিলেন নগরবাসীকে,এবং তার নিত্যসংগী হিসেবে কাজ করে কুকুরের প্যাক।"এটি সুপারিশ করে যে যখন কেউ অনুপ্রবেশ করত তখন হেকাতের সাথে সম্পর্কিত উদ্ভুত কুকুরগুলি রক্ষী কুকুর হিসেবে ব্যবহৃত হত,যেগুলো বিপদসংকেত দিত বিশেষ করে রাতের বেলায়।গ্রীক এবং রোমানরা রক্ষী কুকুরগুলি ব্যাপকভাবে ব্যবহার করত।

তার অর্চনা চিত্র এবং হেকাতের বেদীগুলি ত্রিভুজ বা ট্রাইমরফিক আকারে ত্রিমুখী রাস্তায় স্থাপন করা হয়েছিল(যদিও বাড়ির সামনে এবং শহরের ফটকগুলির সামনে হাজির করেছিল)।এইভাবে তিনি রোমান দেবী ডায়ানা ট্রিভিয়া("তিনটি উপায়ে")র সাথে সনাক্ত হয়েছিলেন।এই সাধারণ ধরনের সংস্কৃতি থেকে বেচে থাকার উপায়টি ৭ম শতাব্দীর ইঙ্গিত বলে মনে হয়,সেন্ট এলিগিয়াস তার সেরমো তথা সম্প্রতি পরিবর্তিত ফ্ল্যান্ডার্সে পালের মধ্যে "ঝর্ণা বা গাছ বা চৌরাস্তায় শয়তানী কবজ" রাখার বিরূদ্ধে অসুস্থদের সতর্ক করেছিলেন এবং এই মত অনুসারে সেন্ট ওয়েন অনুরোধ করেছেন যে "কোন খ্রিস্টানকে ট্রিভিয়ামের দেবদেবীর প্রতি কোন ভক্তি করা তাদের উচিত নয়,যেখানে তিনটি রাস্তা মিলিত হয় ।

হেকাতের মতো,"(টি) কুকুরটির দ্বারপ্রান্তের একটি প্রাণী তিনি,দরজা এবং পোর্টালগুলির অভিভাবক এবং তাই এটি জীবন ও মৃত্যুর মধ্যবর্তী সীমান্তের সাথে এবং ওপারে আগত ভূতপ্রেতদের সাথে ওতোপ্রোতভাবে জড়িত।হেডিসের ফটকগুলি রাক্ষসের নজরদারি থেকে সারবেরাস দ্বারা রক্ষিত ছিল,যার কাজ হল জীবকে পাতালে প্রবেশ করতে বাধা দেওয়া এবং মৃতরা এটি ছেড়ে চলে যেতে বাধ্য হয়েছিল।"

পুরাণ[সম্পাদনা]

শাস্ত্রীয় সময়ের[সম্পাদনা]

হেকাতে, গ্রিক দেবী রাস্তা পারাপার; প্রাচীন শিল্পকর্ম, প্যারিসে ১৮৮০সালে

প্রাক অলিম্পিয়ান দেবী হিসেবে হেকাতে কে চিহ্নিত করা হয়েছে।হেসিওডের থিওগনি(খ্রিস্টপূর্ব ৭০০) তে প্রথম উল্লেখ করা হয় হেকাত কে।

এবং (এস্তেরিয়া) গর্ভধারণ করেছিলেন এবং হেকাতে জন্মেছিলেন যিনি ক্রোনোসের পুত্র জিউস সর্বোপরি সম্মানিত।তিনি তাকে জমকালো পৃথিবী এবং ফলহীন সমুদ্রের দুর্দান্ত একটি অংশ উপহার দিয়েছিলেন।তিনি তারার স্বর্গেও সম্মানিত হয়েছিলেন এবং মৃত্যুহীন দেবতাদের দ্বারা অত্যান্ত স্ম্মানিত হন।আজও অবধি যদি কোনও পুরূষ সমৃদ্ধ ত্যাগ স্বীকার করে এবং প্রথা অনুযায়ী অনুগ্রহের জন্য প্রার্থনা করে ,তবে তিনি হেকাতে কে আহবান জানান,তার সম্মান সহজেই পূর্ণ হয়ে যায় যার প্রার্থনা দেবী অনুকূলভাবে গ্রহন করেন এবং তিনি তাকে ধনসম্পদ ধান করেন;শক্তি অবশ্যই তার সাথে আছে।এই সমস্তগুলির মধ্যে পৃথিবী এবং মহাসাগরে জন্মগ্রহন করেছে তার জন্য তার যথাযথ অংশ রয়েছে।ক্রোনোসের পুত্র তার সাথে কোন অন্যায় করেনি বা প্রাক্তন টাইটান দেব-দেবীদের মধ্যেও যা ছিল তার কোন কিছু নিয়েও যায়নিঃ তবে তিনি ধরে রেখেছেন যে বিভাগটি প্রথম থেকেই প্রথম দিকে ছিল,পৃথিবী ,স্বর্গে এবং সমুদ্রে উভয় ক্ষেত্রেই এই সুবিধা রয়েছে।

হেসিওডের মতে ,তিনি অনেক কিছুর উপর দাপটে ছিলেনঃ

যাকে তিনি প্রচুর সহায়তা ও সাহায্য করবেনঃ ন্যায়বিচারের জন্য তিনি পূজনীয় রাজাদের মধ্যে বসে আছেন এবং সমাবেশে তিনি যাকে ইচ্ছা লোকদের মাঝে বিশিষ্ট করেন।এবং যখন পুরুষরা ধ্বংসকারী যুদ্ধের জন্য নিজেদের বাহুকে সজ্জিত করে ,তখন দেবী যাকে ইচ্ছা তাড়াতাড়ি বিজয় এবং গৌরব দান করবেন।পুরূষরা যখন খেলায় প্রতিযোগীতা করে তখনও তিনি দেবী হিসেবে তাদের কাছে থাকতেন এবং তাদের জয়ী করেছেনঃ এবং যে শক্তি দিয়ে বিজয় লাভ করে সে আনন্দের সাথে সহজেই সমৃদ্ধ পুরস্কার জিততে পারে এবং তার পিতামাতার জন্য গৌরব অর্জন করে ।এবং তিনি ভাল বোধ করতেন ঘোড়সওয়ারদের পাশে দাড়াতে,যাকে তিনি পছন্দ করবেনঃ এবং যাদের ব্যবসা ধূসর অস্তস্তিকর সমুদ্রে রয়েছে তাদের কাছে,এবং যারা হেকাতে এবং উচ্চ শব্দকারি আর্থ শেকারের কাছে প্রার্থনা করে,সহজেই মহিমান্বিত দেবী দুর্দান্তভাবে ধরা দেয়,যদি তাই হয়।বাইরিতে তিনি মজুদ বাড়াতে হার্মিসের সাথে ভাল বোধ করতেন।গরূ ,বিস্তৃত পাল ও ছাগল এবং ভেড়া ও ভেড়ার পাল এগুলো সে তার ইচ্ছায় কারও কাছ থেকে বেশী বা কারও কাছ থেকে কম নিত।সুতরাং তার মায়ের একমাত্র সন্তান হওয়া স্বত্ত্বেও তিনি সমস্ত মৃত্যুহীন দেবতাদের মাঝেও সম্মানিত ।এবং ক্রোনাসের পুত্র তাকে সেই যুবকের সেবিকা বানিয়েছিলেন যারা সেদিনের পরে থেকে তাদের চোখ দিয়ে সর্বদাই ভোরের আলো দেখেন।তাই প্রথম থেকেই তিনি যুবকদের একজন সেবিকা এবং এগুলি তার সম্মান।

থিওগনিতে হেসিওডের অন্তর্ভুক্তি এবং হেকাতের প্রশংসা বিদ্ধানদের পক্ষে কষ্টকর ছিল যেহেতু তিনি মনে করেন যে তিনি তাকে উচ্চমর্যাদায় ধারণ করেছেন,অন্য লেখকের সাক্ষ্য বেচে থাকা প্রমাণ থেকে বুঝা যায় যে এটি ব্যতিক্রমও হতে পারে।একটি ধারণামতে হেসিওডের মূল গ্রামে হেকাতেকে যথেষ্ট পরিমাণে অনুসরন করা হয়েছিল এবং থিওগনিতে তার অন্তর্ভুক্তি পাঠকদের মাঝে তার কথা ছড়িয়ে দিয়ে তার মর্যাদাকে যুক্ত করার উপায় ছিল।অন্য ধারণামতে হেকাতে মূলত একটি গৃহ দেবতা এবং নম্র গৃহপালন এবং আরও বিস্তৃত হতে পারে কিন্তু মন্দিরের উপাসনায় উল্লেখ করা যায়নি।এথেন্সে হেকাতে ,জিউস ,হার্মিস ,হেস্তিয়া এবং আপোলোসহ তারা প্রধান দেবতা হওয়ায় দৈনন্দিন জীবনে অত্যন্ত গুরূত্বপূর্ণ ছিল।তবে এটি স্পষ্ট যে জিউসের দ্বারা হেকাতে প্রদত্ত বিশেষ অবস্থানটি জিউসের হাতের হেকাতে চিত্রিত কয়েন।ডি ইস্ট এবং রেনকিন দ্বারা উপস্থাপিত আরও সাম্প্রতিক গবেষণায় ।

রিচার্ড কসওয়ে দ্বারা হেকাতে

হোমেরিক স্তব থেকে ডেমিটারে(খ্রিস্টপূর্ব ৬০০ রচিত) হেকাতে কে "কোমল-হৃদয়" বলা হয়,ইহা একটি পারসিফোনি নিখোজ হওয়ার বিষয়ে তার উদ্বেগকে জোর দেওয়ার জন্য এই অভিজাত শব্দটির অভিব্যক্তি ছিল,যখন তিনি হেডিস দ্বারা অপহরনের পরে পারসিফোন অনুসন্দ্বানে ডেমিটরকে সহায়তা করেছিলেন,তখন পরামর্শ দিয়েছিলেন যে ডেমিটরকে সূর্যের দেবতা হেলিওসের সাথে কথা বলতে হবে।পরবর্তীকালে হেকাতে ওডিসের রাজ্যে এবং তার বার্ষিক যাত্রায় পারসিফোনের সহযোগী হয়ে ওঠে;প্রতারিত হিসেবে।এই সংঘবদ্ধতার কারণে,ডেমিটর এবং পারসিফোনের পাশাপাশি হেকাতে ছিলেন একজন প্রধান দেবী।

হেকাতের ভূমিকা বা ভূমিকার ব্যাখ্যাতে ভিবিন্নভাবে শাস্ত্রীয় এথেন্স শনাক্ত করা যায়।এসচিলসের দুটি টুকরোতে তিনি দেবী হিসেবে উপস্থিত হন।সোফোক্লেস এবং ইউরিপিডিস এ তাকে যাদুকরী এবং কেরেসের উপপত্নী হিসেবে চিহ্নিত করা হয়।

গল্পের বেচে থাকা একটি দল পরামর্শ দেয় যে হেকাতে কিভাবে আর্টেমিসের সুবিধা প্রাপ্ত অবস্থানকে প্রভাবিত না করে গ্রীক প্যানথীয়নে অন্তর্ভুক্ত হতে পারে ।হেকাতে একজন নশ্বর যাজক যে প্রায়শই ইফিজেনিয়ার সাথে যুক্ত।তিনি আর্টেমিসকে তীব্র নিন্দা ও অপমান করেছেন ,যিনি প্রতিশোধ হিসেবে মর্ত্যের আত্নহত্যা নিয়ে এসেছিলেন।

বংশপরিচয়[সম্পাদনা]

নিকটতম লিখিত উতসে হেকাতে কে উল্লেখ করা হয়েছে যে ,হেসিওড জোর দিয়ে বলছিলেন যে তিনি পার্সেস এবং এস্তেরিয়ার একমাত্র কন্যা,লেটোর বোন (আর্টেমিস এবং এপোলোর মা)।তিন চাচাত ভাইয়ের ঠাকুরমা ছিলেন প্রাচীণ টাইটানেস ফোবি যিনি চাদকে ব্যক্ত করেছিলেন।

পরবর্তী ভিবিন্ন বিবরণীতে হেকাতেকে (১)ডিও (ডেমিটার),(২)রাতের মেয়ে ,(৩)জিউস এবং এস্তেরিয়া কিংবা শেষের আরিস্টিয়াস এর মেয়ে বলে বর্ণনা করা হয় ।

হেলেনীয় যুগের অতি প্রাচীনত্ত্ব[সম্পাদনা]

হেকাতে হল ক্যালডিয়ান ওরাকলসের প্রাথমিক স্ত্রীলিঙ ব্যক্তিত্ত্ব (২য়-৩য় শতাব্দী),যেখানে তিনি একটি স্ট্রফালস(জাদুতে ব্যবহৃত) এর ১৯৪ খন্ডের সাথে জড়িত "আপনি শ্রম দিন হেকাতের স্ট্রফালসকে ঘিরে "।এটি প্সেল্লাস দ্বারা প্রত্যাশিত উল্লিখিত ভিবিন্ন মাধ্যমের রূপক।

হেলেনীয় ধারণামতে হেকাতে আইসিসের সাথেও ঘনিষ্টভাবে জড়িত হয়েছিলেন।লুসিয়াস আপুলেইসিন তার দ্যা গোল্ডেন এস (২য় শতাব্দী) এ হেকাতে ,জুনো ,বেলোনা এবং আইসিসের সমান বলে উল্লেখ করেনঃ

কেউ আমাকে জুনো,অন্যরা সৈন্যদের বেলোনা আবার কেউ কেউ হেকাতে বলে ডাকে ।মূলত ইথিপীয়রা যারা প্রাচ্য অঞ্চলে বাস করে এবং মিশরীয়রা যারা সমস্ত প্রাচীন মতবাদে দুর্দান্ত এবং তারা যথাযথ অনুষ্ঠান দ্বারা আমাকে উপাসনা করতে অভ্যস্ত ,আমাকে রাণী আইসিস বলে ডাকে।

অতি প্রাচীনকালীন হেলেনীয় এবং প্রয়াত ব্যাবিলনীয় (ক্যালডিয়ান) উপাদানগুলির অতি প্রাচীনতার সময়ে ধর্মক্ষেত্রে অযৌক্তিকতার আপসে হেকাতে কে ব্যাবিলনীয় মহাজাগতিক গ্রন্থে ইনান্নার প্রেতলোক সহযোগী ইরেশকিগালের সাথে সনাক্ত করা হয়েছিল।মিশিগান যাদুকরী পেপাইরাস ৩য় শতাব্দীর শেষের দিকে বা চতুর্থ শতাব্দীর শুরুর দিকে হেকাতে ইরেশকিগালকে পরবর্তীকালে শাস্তির ভয়ের বিরুদ্ধে ডাকা হয়েছিল।

উত্তরাধিকার[সম্পাদনা]

স্টিমিস্কা (২০০৫) সালে দাবি করেছিলেন যে হেকাতে ডায়ানার চিত্রের সাথে জড়িত,অতি প্রাচীনত্ত্বে এবং মধ্যযুগের প্রথমদিকে "দ্যা ডায়ানা অফ সোসাইটি" নামে পরিচিত "উদীয়মান কিংবদন্তি জটিল "অংশ হিসেবে উপস্থিত হয়েছিল একত্রিত মহিলাদের সাথে জড়িত ,চাদ এবং যাদুকরী যা অবশেষে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল উত্তর ইতালি ,দক্ষিণ জার্মানি এবং পশ্চিম বালকান অঞ্চলে।ডায়ানা এবং হেকাতে সম্পর্কিত উতসের সুস্পষ্ট তাতপর্য প্রকাশিত হয়েছিল ১৮০৭ সালের প্রথম দিকে এবং এটি প্রতিফলিত হয়েছিল ১৭ শতক থেকে ১৯ শতকের গোড়ার দিকে আধুনিক কথাসাহিত্যিকদের ব্যুৎপত্তিগত দাবীতে হ্যাগ , হেক্স "ডাইনী" কে হেকাতের নামে সংযুক্ত করেন।এই জাতীয় উপাখ্যানগুলি আজ কেবল মাত্র একটি স্ংখ্যালঘু দ্বারা প্রস্তাবিত ,একটি মধ্যযুগীয় ভাষ্যকার হেকাতের সাথে "জিনক্স " শব্দটি সংযুক্ত করার জন্য একটি লিংকের পরামর্শ দিয়েছেন;"বাইজান্টাইন বহুজ্ঞ মাইকেল পেলাস ,একটি বুলোয়ারের কথা বলেছেন,এতে একটি সোনার গোলক রয়েছে ,ইহা প্রতীক দিয়ে সজ্জিত এবং একটি অক্সাইড ফালিতে ঘূর্ণিত হয়।তিনি আরও যুক্ত করেন যে এই জাতীয় যন্ত্রটিকে আইনক্স (ধারনা "জিনক্স")বলা হয়,তবে তাতপর্যটি কেবল এটি অকার্যকর বলে এবং অনুষ্টানগতভাবে হেকাতে পবিত্র।"

১৬ শতকের শেষদিকে শেক্সপীয়ার তার ( মিডসামার নাইট ড্রিম,১৫৯৪-৯৬) এবং কিছুপরে (ম্যাকবেথ,১৬০৫) এ হেকাতে কে উল্লেখ করেছিলেন;বিশষ করে "ছুরি" শিরোনামে ।

আধুনিক অভ্যর্থনা[সম্পাদনা]

১৯২৯ সালে ধর্মীয় সম্প্রদায়ের বিশেষজ্ঞ লুইস ব্রাউন ১৯২০সালের ব্ল্যাকবার্ন কাল্ট (দ্যা কাল্ট অফ দ্যা গ্রেট ইলেভেন নামে পরিচিত ) হেকাতে কে উপাসনা অনুষ্টানের সাথে সংযুক্ত করেছিলেন।তিনি উল্লেখ করেছিলেন যে এই ধর্মগ্রন্থ নিয়মিত কুকুর বলিদান করে এবং গোপনে" রানীর" দেহকে সাতটি কুকুরের সাথে দাপন দাফন করেছিল।গবেষক স্যামুয়েল ফোর্ট অতিরিক্ত মাতৃগর্ভের বিষয় উল্লেখ করেছিলেন,যাতে ধর্মীয় ও সাধারন নিশাচর রীতিনীতি ,মহিলা প্রভাবশালী সদস্য ,অন্যান্য প্রাণীর আত্নহুতি(ঘোড়া খচ্চর অন্তর্ভুক্ত),রাস্তা এবং পোর্টাল্গুলির রহস্যময় সম্পত্তিগুলির প্রতি দৃষ্টি রাখা,মৃত্যুর প্রতি ঝোক ,নিরাময় এবং পুনরাত্থানের উপর জোড় দেওয়া হয়।

"জাদুবিদ্যার দেবী"হিসেবে আধুনিক জাদুবিদ্যার ভিবিন্ন পদ্বতিতে উইক্কা এবং নিও প্যাগনাবাদ এর সাথে হেকাতে কে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে ,জার্মানির ঐতিহ্য অনুসারে বন্য খোজার সাথে সম্পর্কিত কিছু ক্ষেত্রে বিশেষত পুনর্গঠনের অংশ হিসেবে গ্রীক বহুবাদ ,যা ইংরেজীতে "হেলেনিজম" নামে পরিচিত । উইকায় হেকাতে কিছু ক্ষেত্রে "ট্রিপল দেবী" এবং "বৃদ্বা" হিসেবে পরিচিত হয়েছেন।

হেকাতে শত শত সংখ্যক গ্রহাণু নামেও পরিচিত ,যা আমেরিকান জ্যোতিবিজ্ঞানী জেমস ক্রেইগ ওয়াটসন দ্বারা আবিষ্কৃত হয় ১৮৬৮ সালের ১১ জুলাই।এর গৃহিত নামটি শতভাগ নামক গ্রহাণু হিসেবে চিহ্নিত হয়েছে(শতকের গ্রীক শব্দ 'হেকাটন')।

রিক রির্ডানের পার্কি জ্যাকসন এবং অলিম্পিয়ানস এবং দ্যা হিরোস অফ অলিম্পাস রয়েছে বইয়ে হেকাতে এর উল্লেখ রয়েছে।তিনি মাইকেল স্কট এর দ্যা সিক্রেট অফ দ্যা ইমর্টাল নিকোলাস ফ্লেমেল সিরিজের একটি চরিত্র।

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

টীকা[সম্পাদনা]