হিদার নাইট

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
হিদার নাইট
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামহিদার ক্লেয়ার নাইট
জন্ম (1990-12-26) ২৬ ডিসেম্বর ১৯৯০ (বয়স ২৮)
রোচডেল, ইংল্যান্ড
ডাকনামট্রেভ, মানাতি
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি মিডিয়াম
ভূমিকাব্যাটার
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক২২ জানুয়ারি ২০১১ বনাম অস্ট্রেলিয়া
শেষ টেস্ট১১ আগস্ট ২০১৫ বনাম অস্ট্রেলিয়া
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ১১৫)
১ মার্চ ২০১০ বনাম ভারত
শেষ ওডিআই২৭ জুলাই ২০১৫ বনাম অস্ট্রেলিয়া
ওডিআই শার্ট নং
টি২০আই অভিষেক
(ক্যাপ ২৯)
২২ নভেম্বর ২০১০ বনাম শ্রীলঙ্কা
শেষ টি২০আই৩১ আগস্ট ২০১৫ বনাম অস্ট্রেলিয়া
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট ওডিআই টি২০আই
ম্যাচ সংখ্যা ৬৬ ৩৬
রানের সংখ্যা ২১৭ ১৫৬৪ ৩৬৩
ব্যাটিং গড় ২১.৭০ ৩২.৫৮ ১৩.৯৬
১০০/৫০ ১/০ ০/১১ ০/০
সর্বোচ্চ রান ১৫৭ ৭৯ ৩০
বল করেছে ১৩১ ১০৯১ ২৯১
উইকেট ৩৫ ১২
বোলিং গড় ২৯.৫০ ২১.৬৫ ২১.৫৮
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট - -
সেরা বোলিং ১/৭ ৫/২৬ ৩/১০
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৬/– ২৬/– ১১/–
উৎস: ক্রিকইনফো, ১২ মে ২০১৭

হিদার ক্লেয়ার নাইট (ইংরেজি: Heather Knight; জন্ম: ২৬ ডিসেম্বর, ১৯৯০) রোচডেলে জন্মগ্রহণকারী বিশিষ্ট ইংরেজ প্রমিলা ক্রিকেটার। ইংল্যান্ড মহিলা ক্রিকেট দলের পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশ নিচ্ছেন। বর্তমানে জাতীয় দলের অধিনায়কের দায়িত্বে রয়েছেন। দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতি ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলে থাকেন। এছাড়াও মাঝেমধ্যে ডানহাতে মিডিয়াম পেস বোলিং করে থাকেন হিদার নাইট

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

ডেভনের প্লাইমাউথে রাষ্ট্র নিয়ন্ত্রিত মাধ্যমিক বিদ্যালয় প্লাইমস্টক স্কুলে অধ্যয়ন করেন।[১] কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রাকৃতিক বিজ্ঞান বিষয়ে অধ্যয়নের আমন্ত্রণবার্তা পেলেও তিনি তা ফিরিয়ে দেন ও ক্রিকেটের দিকেই মনোনিবেশ ঘটান।[২] পরবর্তীকালে অবশ্য কার্ডিফ বিশ্ববিদ্যালয়ে জৈব চিকিৎসা বিজ্ঞানে ভর্তি হয়েছিলেন।[৩]

নিজ এলাকা ডেভনে ডায়মন্ডসের পক্ষে কাউন্টি ক্রিকেটে চমৎকার ব্যাটসম্যানরূপে নিজেকে মেলে ধরেন। পাশাপাশি রুবিজ ও ইংল্যান্ড একাডেমি মহিলাসহ ইংল্যান্ড মহিলা দলে খেলেন তিনি। কাউন্টিতে ২০০৮ ও ২০০৯ সালে যথাক্রমে ৩৯০ ও ৬২২ রান তুলে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক হন।

নাইট ক্লাব ক্রিকেটে ডেভন ক্রিকেট লীগে প্লাইমস্টক ক্রিকেট ক্লাবে খেলেন। সেখানে তিনি প্রথম একাদশের পক্ষে ব্যাটিং উদ্বোধনে নামতেন। কোল্টস প্রশিক্ষণ শিবিরে ৮ বছর বয়সে উপস্থিত থাকতে শুরু করেন এবং প্লাইমস্টকের যুব পদ্ধতিতে অগ্রসর হতে থাকেন।

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

২০১০ সালে ভারত সফরে আসা আঘাতপ্রাপ্ত সারাহ টেলরের পরিবর্তে তার স্থলাভিষেক ঘটে। ১ মার্চ তারিখে মুম্বইয়ে অনুষ্ঠিত ৫ম ওডিআইয়ে তার অভিষেক হয়। খেলায় তিনি ৪৯ রান তোলেন।[৪] ২০১০ সালে দলের সাথে শ্রীলঙ্কা সফরে যান। ২২ নভেম্বর কলম্বোয় অনুষ্ঠিত সিরিজের ২য় টুয়েন্টি২০ খেলায় তার অভিষেক ঘটে।[৫] এরপর জানুয়ারি, ২০১১ সালে সিডনির ব্যাংকসটাউন ওভালে স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে একমাত্র টেস্টে তার অভিষেক ঘটে।

এপ্রিল, ২০১৪ সালে ইসিবির কেন্দ্রীয় চুক্তির ১৮ খেলোয়াড়ের একজনরূপে মনোনীত হন।[৬]

মহিলাদের ইউকে ক্রিকেট রেঞ্জ ব্যাপকভাবে বিস্তারের লক্ষ্যে প্রতিষ্ঠা করেন।[৭] যুক্তরাজ্যের সর্বত্র মহিলাদের ক্রিকেট বিস্তারে এসএম পিন্টুর সাথে ও ক্রিকেট ডিয়েল ডাইরেক্ট একযোগে কাজ করছে।[৮]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Knight is a first among equals at Plymstock"This is Cornwall। Northcliffe Media। ৩ ডিসেম্বর ২০০৮। ৫ মে ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৪ অক্টোবর ২০১১ 
  2. Westbury, Isabelle (২৭ জুলাই ২০১৫)। "Women's Cricket: Turning down Cambridge degree course was right for Heather Knight"The Independent। সংগ্রহের তারিখ ২৮ জুলাই ২০১৫ 
  3. "Performance: Sports Bursar selected for India training camp"News Archive - Sport। Cardiff University। ২২ জানুয়ারি ২০১০। সংগ্রহের তারিখ ২৪ অক্টোবর ২০১১ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  4. "England Women Tour of India 2009/10"। Cricinfo.com। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-০৫-০৮ 
  5. "2nd T20I: Sri Lanka Women v England Women at Colombo (NCC), Nov 22, 2010 | Cricket Scorecard"। ESPN Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২০১৪-০৫-০৮ 
  6. "England women earn 18 new central contracts"। BBC। ২০ এপ্রিল ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ৬ মে ২০১৪ 
  7. Gregory Peake। "Heather Knight Cricket Collection celebrates launch"। Cision News। Olsen Partnership। সংগ্রহের তারিখ ৩ জুলাই ২০১৫ 
  8. "Heather Knight Cricket Collection Info"Heather Knight Cricket Collection। ৪ জুলাই ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩ জুলাই ২০১৫ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]


পূর্বসূরী
শার্লত এডওয়ার্ডস
ইংল্যান্ড মহিলা ক্রিকেট দলের অধিনায়ক
২০১৬-বর্তমান
উত্তরসূরী
চলমান