সোহিনী সরকার

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
সোহিনী সরকার
সোহিনী সরকার.jpg
জন্ম
সোহিনী সরকার

(1992-10-01) ১ অক্টোবর ১৯৯২ (বয়স ২৬)
বাসস্থানকলকাতা, পশ্চিমবঙ্গ
জাতীয়তাভারতীয়
জাতিসত্তাবাঙালি
নাগরিকত্ব ভারত
পেশাঅভিনেত্রী
কার্যকাল২০০৮–বর্তমান
যে জন্য পরিচিতফড়িং, ওপেন টি বায়োস্কোপ, বিবাহ ডায়েরিজ
উচ্চতা৫ ফু ৫ ইঞ্চি (১.৬৫ মি)
পুরস্কারফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ডস ইস্ট-শ্রেষ্ঠ নবাগত অভিনেত্রী (মহিলা) (রূপকথা নয়, ২০১৩)
ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ডস ইস্ট-শ্রেষ্ঠ নবাগত অভিনেত্রী (মহিলা) (ফড়িং, ২০১৩)
আন্তর্জাতিক বাংলা চলচ্চিত্র পুরস্কার (আইবিএফএ ২০১৭) - শ্রেষ্ঠ বাঙালি সহ-অভিনেত্রীর (দুর্গা সহায়, ২০১৭)

সোহিনী সরকার হলেন একজন বাঙালি চলচ্চিত্র অভিনেত্রী। তিনি বাংলা ভাষার টেলিভিশন ধারাবাহিক ও বহু চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। ২০১১-২০১২ সালে সম্প্রচারিত বাংলা ধারাবাহিক অদ্বিতীয়তে তিনি অভিনয় করেন।[১] এর পূর্বে তিনি ওগো বধূ সুন্দরী ধারাবাহিকেও অভিনয় করেন। তার অভিনীত প্রথম চলচ্চিত্র হল রূপকথা নয়। এর পর তিনি ফড়িং চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন ও সকলের কাছে পরিচিত্র হয়ে ওঠেন।[২] তিনি ওপেন টি বায়োস্কোপ, রাজকাহিনী, সিনেমাওয়ালা, ব্যোমকেশ পর্ব, বিবাহ ডায়েরিজ, দুর্গা সহায় প্রভৃতি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন।

প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

সোহিনী সরকার ১ অক্টোবর, ১৯৯২ সালে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের উত্তর ২৪ পরগণা জেলার খড়দহে জন্মগ্রহণ করেন ও বেড়ে ওঠেন। তিনি শৈশব থেকে মিডিয়া আঙ্গিনা সম্পর্কে উৎসাহী ছিলেন এবং পরবর্তী সময়ে নিজেকে সফল অভিনেত্রী হিসাবে প্রতিষ্ঠা করেন। তিনি কর্মজীবনের শুরুর দিকে একটি ধারাবাহিকের শুটিংয়ের সময় কাস্টিং কাউচেড় শিকার হয়েছিলে, তারপর পরে একটা ভাল কাজ পেয়ে ওই ধারাবাহিকটি ছেড়ে বেড়িয়ে আসেন।[৩] এখন, তিনি কলকাতার শোবিজ শিল্পের অন্যতম সুন্দরী অভিনেত্রী হিসেবে বিবেচিত। তিনি ২০১১ সালে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে রসায়নে মাস্টার্স ডিগ্রি অর্জন করেন।

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

টেলিভিশন ধারাবাহিক[সম্পাদনা]

২০০৮ সালে টেলিভিশন ধারাবাহিক রাজপথ-এর সাথে তার ছোটপর্দার কর্মজীবনের যাত্রা শুরু করেছিলেন। তারপর তিনি স্টার জলসায় প্রচারিত ওগো বধূ সুন্দরী ধারাবাহিকে কাজ করেন। তিনি টেলিভিশনের ধারাবাহিক অদ্বিতীয়াতে কর্মজীবনের সাফল্য অর্জন করেছেন, যা স্টার জলসায় প্রচারিত হয় এবং অভিনেত্রী সমালোচকদের কাছ থেকে ইতিবাচক সারা পান। ২০১৮ সালে শুরু হওয়া ভূমিকন্যা ধারাবাহিকে কাজ করেন সোহিনী সরকার। এই ধারাবাহিকটি পরিচালনা করেন অরিন্দম শীল[৪]

চলচ্চিত্র[সম্পাদনা]

২০১৩ - ২০১৫ সাল[সম্পাদনা]

২০১৩ সালে রূপকথা নয় চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে চলচ্চিত্র শিল্পে তার অত্মপ্রকাশ ঘটে। একই বছরে তিনি ব্লকবাস্টার চলচ্চিত্র ফড়িংয়ে অভিনয় করেন এবং একটি বিস্ময়কর অভিনয়ের মাধ্যমে পরিচিত হয়ে ওঠেন বাংলা চলচ্চিত্রে। ২০১৫ সালে তিনি মোট ৫ টি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। অনিন্দ্য চট্টোপাধ্যায় পরিচালিত ওপেন টি বায়োস্কোপ চলচ্চিত্রে একজন শিক্ষিকার চরিত্রে (ইরাবতী) অভিনয় করেছিলেন। এই ছবিটি ২০১৫ সালের একটি জনপ্রিয় ও ব্লকবাস্টার চলচ্চিত্র। একই বছরে সোহিনী সরকার ঝুমুরা চলচ্চিত্রে কুসুম নামের একটি চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। ছবিটির পরিচালনা করেছিলেন অনিন্দ্য চট্টোপাধ্যায়। এছাড়া তিনি শুভাব্রত চট্টপাধ্যায় পরিচালিত মণিহারা নামের একটি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। তারপর ওই একই বছরে তিনি সৃজিত মুখোপাধ্যায় পরিচালিত রাজকাহিনী চলচ্চিত্রে ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তের সঙ্গে অভিনয় করেন। এই ছবিটি ২০১৫ সালের অন্যতম ব্যবসা সফল বাংলা চলচ্চিত্র। ₹৩.৫ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত ছবিটি বিশ্ব জুড়ে মোট ₹৭ কোটি টাকা আয় করে।[৫] সোহিনী সরকার অভিনীত ২০১৫ সালের শেষ ছবি হল অরিন্দম শীল পরিচালিত হর হর ব্যোমকেশ। ছবিটতে তিনি ব্যোমকেশ বক্সী'র স্ত্রী সত্যবতীর চরিত্রে অভিনয় করেন।[৬]

২০১৬-বর্তমান[সম্পাদনা]

২০১৬ সালে চলচ্চিত্র সিনেমাওয়ালা এবং ব্যোমকেশ পর্ব নামে দুটি ছবিতে অভিনয় করেন। অরিন্দম শীল পরিচালিত সিনেমাওয়ালা ছবিতে তিনি মৌমিতা নামের একটি চরিত্রে অভিনয় করেন। ছোট্ট এক শহরের সিনেমা প্রদর্শক প্রণবেন্দু দাসকে ঘিরে ‘সিনেমাওয়ালা’র কাহিনি গড়ে উঠেছে।[৭] এই ছবিতে তার অভিনয় প্রশংসা পায়। ব্যোমকেশ পর্ব ছবিতে সত্যবতীর চরিত্রে দেখা যায় সোহিনীকে। ছবিটি পরিচালনা করেন অরিন্দম শীল

২০১৭ সালে সোহিনী সরকার ৩ টি ছবিতে কাজ করেন। ছবি তিনটি হল- বিবাহ ডায়েরিজ, দুর্গা সহায় এবং সব ভুতুড়েমৈনাক ভৌমিক পরিচালিত বিবাহ ডায়েরিজ ছবিতে তিনি রওনা নামে প্রধান নারী চরিতে অভিনয় করেন। দুর্গা সহায় ছবিতে দুর্গা (ডাক নাম- চায়না) চরিত্রে অভিনয় করেন এবং ছবিটি পরিচালনা করেন অরিন্দম শীলসব ভুতুড়ে হল ২০১৭ একটি বাংলা ভৌতিক চলচ্চিত্র যার পরিচালনা করেন বিরসা দাশগুপ্ত এবং এই ছবিতে সোহিনী সরকার মুখ্য নারী চরিত্রে অভিনয় করেন।

২০১৮ সালে তার অভিনীত ৩ টি ছবি মুক্তি পায়। ছবি তিনটি হল- বিদায় ব্যোমকেশ, হ্যাপি পিলক্রিসক্রস। দেবালয় ভট্টাচার্য পরিচালিত বিদায় ব্যোমকেশ ছবিতে সত্যবতী/তুন্না (দ্বৈত ভূমিকা) চরিত্রে অভিনয় করেন। হ্যাপি পিল ছবির পরিচালক ছিলেন মৈনাক ভৌমিক এবং এই ছবিতে সোহিনী সরকার ইন্দিরা নামে একটি চরিত্রে অভিনয় করেন। বিরসা দাশগুপ্ত পরিচালিত ক্রিসক্রস ছবিতে নুসরত জাহান, মিমি চক্রবর্তী, জয়া আহসান এবং প্রিয়াঙ্কা সরকার-এর পাশাপাশি রুপা নামে মূল নারী চরিত্রে তিনি অভিনয় করেন।

২০১৯ সালে তার অভিনীত প্রথম ছবি হিসাবে ভিঞ্চি দা প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায় ১২ এপ্রিল। সৃজিত মুখোপাধ্যায় পরিচালিত এই ছবিতে তিনি রুদ্রনীল ঘোষ-এর বিপরীতে জয়া নামে একটি চরিত্রে অভিনয় করেন। এর পর মুক্তি পায় বিবাহ অভিযান নামে একটি ছবি। এই ছবিতে সবিতা নামে একটি চরিত্রে অভিনয় করেন এবং ছবিটির পরিচালক ছিলেন বিরসা দাশগুপ্ত। ২০১৯ সালে তার অভিনীত আরও বেশ কিছু ছবি মুক্তির অপেক্ষাতে রয়েছে।

ব্যক্তিগত জীবন[সম্পাদনা]

চলচ্চিত্র[সম্পাদনা]

Films that have not yet been released যে চলচ্চিত্রগুলি এখনও মুক্তি পায়নি
বছর চলচ্চিত্র চরিত্র পরিচালক ভাষা মন্তব্য
২০১৩ রূপকথা নয় অহনা অতনু ঘোষ বাংলা আত্মপ্রকাশের চলচ্চিত্র
ফড়িং দোয়েল ইন্দ্রনীল রায়চৌধুরী বাংলা
২০১৫ ওপেন টি বায়োস্কোপ ইরাবতী অনিন্দ্য চট্টোপাধ্যায় বাংলা
ঝুমুরা কুসুম অনিন্দ্য চট্টোপাধ্যায় বাংলা
মণিহারা মোনিদীপা শুভাব্রত চট্টপাধ্যায় বাংলা
রাজকাহিনী দুলি সৃজিত মুখোপাধ্যায় বাংলা
হর হর ব্যোমকেশ সত্যবতী অরিন্দম শীল বাংলা
২০১৬ সিনেমাওয়ালা মৌমিতা কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায় বাংলা
ব্যোমকেশ পর্ব সত্যবতী অরিন্দম শীল বাংলা
২০১৭ বিবাহ ডায়েরিজ রওনা মৈনাক ভৌমিক বাংলা
দুর্গা সহায় দুর্গা / চায়না অরিন্দম শীল বাংলা
সব ভুতুড়ে নন্দিনী বিরসা দাশগুপ্ত বাংলা
২০১৮ বিদায় ব্যোমকেশ সত্যবতী /তুন্না (দ্বৈত ভূমিকা) দেবালয় ভট্টাচার্য বাংলা
হ্যাপি পিল ইন্দিরা মৈনাক ভৌমিক বাংলা
ক্রিসক্রস রূপা বিরসা দাশগুপ্ত বাংলা
২০১৯ ভিঞ্চি দা জয়া সৃজিত মুখোপাধ্যায় বাংলা
বিবাহ অভিযান সবিতা বিরসা দাশগুপ্ত বাংলা
মোটামুটি লাভ স্টোরি dagger অজানা কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায় বাংলা
স্বপ্না বর্মণ বায়োপিক dagger স্বপ্না বর্মণ সৃজিত মুখোপাধ্যায় বাংলা
হিমাচলে ব্যোমকেশ dagger সত্যবতী অরিন্দম শীল বাংলা
২০২০ সুবর্ণালতা dagger সুবর্ণালতা অপর্ণা সেন বাংলা

টেলি ধারাবাহিক[সম্পাদনা]

বছর ধারাবাহিক চ্যানেল চরিত্র
২০০৮ রাজপথ জি বাংলা
২০০৯–১০ ওগো বধূ সুন্দরী স্টার জলসা দোলন
২০১১–১২ অদ্বিতীয়া স্টার জলসা অদ্বিতীয়া সেন/মুমু
২০১৮-১৯ ভূমিকন্যা স্টার জলসা তড়িতা

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Ganguly, Ruman (১৬ মে ২০১১)। "Sohini Sarkar returns to television!"The Times of IndiaThe Times Group। সংগ্রহের তারিখ ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৬ 
  2. "Straight Talk"The Telegraph (Calcutta)ABP Group। ৬ অক্টোবর ২০১৩। ১ মার্চ ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৬ 
  3. "'বুদ্ধদেব দাশগুপ্ত ডাকলেও যে লেজ উঠিয়ে যেতে হবে, তার কোনও মানে নেই'"। আনন্দবাজার পত্রিকা। ১৯ জানুয়ারি ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ২১ মে ২০১৯ 
  4. "জলসায় ইতিহাস গড়তে আসছে অরিন্দম শীলের ভূমিকন্যা!"। এই সময়। ২৫ জুলাই ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ২১ মে ২০১৯ 
  5. "List Of Top 20 Highest Grossing Bengali Movies of All Time"pycker.com। PYCKER। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মে ২০১৯ 
  6. "টক অফ দ্য টাউন হবে জানতাম: সোহিনী"। আনন্দবাজার পত্রিকা। ৩ জানুয়ারি ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মে ২০১৯ 
  7. "কলকাতার সিনেমাওয়ালা"। দৈনিক জনকণ্ঠ। ৪ মে ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মে ২০১৯