সাইমন হারমার

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
সাইমন হারমার
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামসাইমন রস হারমার
জন্ম (1989-02-10) ১০ ফেব্রুয়ারি ১৯৮৯ (বয়স ৩০)
প্রিটোরিয়া, ট্রান্সভাল, দক্ষিণ আফ্রিকা
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি অফ ব্রেক
ভূমিকাঅল রাউন্ডার
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
একমাত্র টেস্ট
(ক্যাপ ৩২১)
২ জানুয়ারি ২০১৫ বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
২০১১-বর্তমানওয়ারিয়র্স
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি এলএ টি২০
ম্যাচ সংখ্যা ৫৭ ৩৯ ৪০
রানের সংখ্যা ১০ ১,৮৫১ ৪৬২ ৪২৬
ব্যাটিং গড় ১০.০০ ২৭.৬২ ১৭.১১ ২৬.৬২
১০০/৫০ ০/০ ১/১৩ ০/০ ০/০
সর্বোচ্চ রান ১০ ১০০* ৪৩* ৪৩
বল করেছে ৩০০ ১৩,৯৯০ ১,৭৫০ ৮০০
উইকেট ২২৮ ৪২ ২৪
বোলিং গড় ২১.৮৫ ৩২.৫১ ৩৪.২৩ ৩৮.৫৮
ইনিংসে ৫ উইকেট ১১
ম্যাচে ১০ উইকেট - -
সেরা বোলিং ৪/৮২ ৮/৭২ ৪/৪২ ৩/২৮
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ১/– ৫৮/– ২৪/– ১৪/–
উৎস: Cricinfo, ৬ জানুয়ারি ২০১৫

সাইমন রস হারমার (জন্ম: ১০ ফেব্রুয়ারি, ১৯৮৯) ট্রান্সভাল প্রদেশের প্রিটোরিয়ায় জন্মগ্রহণকারী দক্ষিণ আফ্রিকার আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার। দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য তিনি। দলে তিনি মূলতঃ অল-রাউন্ডার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। ডানহাতে মাঝারি সারির ব্যাটসম্যানের পাশাপাশি অফ ব্রেক বোলিং করে থাকেন সাইমন হারমার। ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে ওয়ারিয়র্সের প্রতিনিধিত্ব করছেন তিনি। এরপূর্বে দক্ষিণ আফ্রিকা এ দলে খেলেছেন। এছাড়াও সাউথ আফ্রিকান ইউনিভার্সিটিজ দলের অধিনায়ক তিনি।

প্রারম্ভিক জীবন[সম্পাদনা]

২০১০-১১ মৌসুমে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে ওয়ারিয়র্সের পক্ষে অভিষেক ঘটে। উদ্বোধনী খেলাতেই তিনি কেপ কোবরাসের বিপক্ষে প্রথম ইনিংসে ৫/৯৮ ও দ্বিতীয় ইনিংসে ১/৫৩ বোলিং পরিসংখ্যান গড়েন। এছাড়াও ৪৬ ও অপরাজিত ৬৯ রান তোলেন তিনি।[১] দলের নিয়মিত সদস্য হিসেবে ২০১১-১২ মৌসুমে ৪৪ উইকেট নিয়ে শীর্ষস্থানীয় উইকেট সংগ্রহকারী হন।[২]

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

ঘরোয়া ক্রিকেটে নিপুণ দক্ষতা লাভের প্রেক্ষিতে ক্রিকেট সাউথ আফ্রিকা কর্তৃপক্ষ তাকে ২০১৪-১৫ মৌসুমে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তৃতীয় টেস্টে খেলার জন্য আমন্ত্রণ জানায়।[৩] নিউ ইয়ার্স টেস্ট নামে পরিচিত কেপটাউনের নিউল্যান্ডসে ২ জানুয়ারি, ২০১৫ তারিখে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তার টেস্ট অভিষেক ঘটে।[৪] প্রথম দিনে মধ্যাহ্ন বিরতীর পূর্ব মুহুর্তে ডেভন স্মিথকে আউট করে নিজস্ব প্রথম উইকেট তুলে নেন তিনি।[৪] ইনিংসে তার বোলিং পরিসংখ্যান ছিল ২৫-৫-৭১-৩।[৫]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]