সাইমন কুক (অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটার)

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
সাইমন কুক
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামসাইমন হিউইট কুক
জন্ম (1972-01-29) ২৯ জানুয়ারি ১৯৭২ (বয়স ৪৭)
হ্যাস্টিংস, ভিক্টোরিয়া, অস্ট্রেলিয়া
ব্যাটিংয়ের ধরনবামহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি ফাস্ট মিডিয়াম
ভূমিকাবোলার
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ৩৭৩)
২০ নভেম্বর ১৯৯৭ বনাম নিউজিল্যান্ড
শেষ টেস্ট২৭ নভেম্বর ১৯৯৭ বনাম নিউজিল্যান্ড
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
১৯৯৩/৯৪–১৯৯৪/৯৫ভিক্টোরিয়া
১৯৯৫/৯৬–২০০০/০১নিউ সাউথ ওয়েলস
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ৩২ ১৬
রানের সংখ্যা ১৭৪ ২২
ব্যাটিং গড় ৮.৬৯ ৩.৬৬
১০০/৫০ ০/০ ০/০০ ০/০
সর্বোচ্চ রান * ২৭ ১১*
বল করেছে ২২৪ ৪,৮২১ ৭৩০
উইকেট ৮৪ ১৫
বোলিং গড় ২০.২৮ ৩০.৮২ ৩৭.১৩
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট
সেরা বোলিং ৫/৩৯ ৫/৩৯ ৪/৪২
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ০/– ৫/– ৭/–
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ১৭ জুলাই ২০১৯

সাইমন হিউইট কুক (ইংরেজি: Simon Cook; জন্ম: ২৯ জানুয়ারি, ১৯৭২) ভিক্টোরিয়ার হ্যাস্টিংস এলাকায় জন্মগ্রহণকারী প্রথিতযশা ও সাবেক অস্ট্রেলীয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার।[১] অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৯৭ সালে সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্যে অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন।

ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটে নিউ সাউথ ওয়েলসভিক্টোরিয়া দলের প্রতিনিধিত্ব করেন।[২] ইংরেজ ঘরোয়া ক্রিকেটে ওরচেস্টারশায়ার ক্রিকেট বোর্ডে খেলেছেন। দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতি ফাস্ট মিডিয়াম বোলিং করতেন। এছাড়াও, নিচেরসারিতে বামহাতে কার্যকরী ব্যাটিংশৈলী উপস্থাপন করতেন সাইমন কুক

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট[সম্পাদনা]

অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেট একাডেমি থেকে স্নাতক ডিগ্রি লাভের অধিকারী হন। ১৯৯৩ সালের শুরুতে ভিক্টোরিয়ার পক্ষে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। ১৯৯২-৯৩ মৌসুম থেকে ২০০০-০১ মৌসুম পর্যন্ত সাইমন কুকের প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবন চলমান ছিল। ২০ নভেম্বর, ১৯৯২ তারিখে ব্রিসবেনে কুইন্সল্যান্ডের বিপক্ষে ভিক্টোরিয়ার সদস্যরূপে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে আত্মপ্রকাশ ঘটে সাইমন কুকের। ১৯৯৩-৯৪ মৌসুমেই স্বীয় প্রতিশ্রুতিশীলতার স্বাক্ষর রাখেন। ২৯.৫০ গড়ে ৩০ উইকেট পান তিনি।

১৯৯৫-৯৬ মৌসুমে নিউ সাউথ ওয়েলসে স্থানান্তরিত হন। ১৯৯৭ সালের শেষদিকে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দুই টেস্টে অংশগ্রহণের জন্যে বিস্ময়করভাবে অস্ট্রেলীয় দলে অন্তর্ভুক্ত করা হয়। ক্রিকেটবোদ্ধাদের কিয়দংশের অভিমত, তিনি প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটারেরই উপযোগী ছিলেন না।[৩] ঐ বছরেই নিউ সাউথ ওয়েলস দলে পর্যন্ত তাকে টিকে থাকার সংগ্রামে অবতীর্ণ হতে হয়। সর্বদাই তিনি গণনার বাইরে অবস্থান করতেন।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট[সম্পাদনা]

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে দুইটিমাত্র টেস্টে অংশগ্রহণ করেছেন সাইমন কুক। ২০ নভেম্বর, ১৯৯৭ তারিখে পার্থে সফরকারী নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। এরপর, ২৭ নভেম্বর, ১৯৯৭ তারিখে হোবার্টে একই দলের বিপক্ষে সর্বশেষ টেস্টে অংশ নেন তিনি।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট অঙ্গনে স্বপ্নের মতো যাত্রা শুরু করেন। প্রথম টেস্টে সাত উইকেট পান। ২৩ নভেম্বর, ১৯৯৭ তারিখে পার্থের ওয়াকায় সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টের চতুর্থ দিনে দ্বিতীয় ইনিংসে ৫-উইকেট দখল করেন তিনি।[৪] অভিষেক টেস্টে শেন ও’কনরকে টেলরের কটে পরিণত করে নিজস্ব পঞ্চম উইকেট পান। ঐ ইনিংসে তার বোলিং পরিসংখ্যান ছিল ৫/৩৯।

দুই টেস্ট পরই গ্লেন ম্যাকগ্রা তার স্থলাভিষিক্ত হন। অথচ, এ সময়ে তিনি ২০ গড়ে মানানসই বোলিং করতেন। এরপর আঘাতের কবলে পড়ে দ্রুত পর্দার অন্তরালে চলে যান।

অবসর[সম্পাদনা]

১৯৯৭-৯৮ মৌসুমে তিনি আরও চারটি শেফিল্ড শিল্ডের খেলায় অংশ নিয়েছিলেন। তন্মধ্যে দুইবার চার উইকেট লাভের সক্ষমতা দেখান। ১৯৯৮-৯৯ মৌসুমে দুই খেলায় অংশ নিয়ে মাত্র এক উইকেট পান। ১৯৯৯-২০০০ মৌসুমের পুরোটা সময়ে খেলার জগৎ থেকে দূরে অবস্থান করেন। ডিসেম্বর, ২০০০ সালে পরের খেলায় অংশ নেন। এটিই পুরা কাপে তার সর্বশেষ অংশগ্রহণ ছিল।

২০০৩-০৪ মৌসুমে সকল স্তরের ক্রিকেট খেলা থেকে অবসর গ্রহণ করেন। এরপর ভিক্টোরিয়ান প্রিমিয়ার ক্রিকেটে মেলবোর্ন ক্রিকেট ক্লাবে খেলেছিলেন।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Australia – Test Batting Averages"। ESPNCricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১৫ জুলাই ২০১৯ 
  2. "List of Players who have played for New South Wales"। www.cricketarchive.com। সংগ্রহের তারিখ ১২ জুলাই ২০১৯ 
  3. Simon Cook, Australia Cricket, Cricinfo.com
  4. "2nd Test: Australia v New Zealand at Perth, Nov 20-23, 1997"espncricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-১২-১৩ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]