সত্রীয়া নৃত্য

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
চিত্র:Gayatri Mahanta (8).jpg
সত্ৰীয়া নৃত্যের একটি ভংগীমাতে অসমীয়া চলচ্চিত্ৰ অভিনেত্ৰী গায়ত্রী মহন্ত

সত্ৰীয়া নৃত্য ভারতের সংগীত নাটক একাডেমী যে আটটি নৃত্যকে শাস্ত্ৰীয় হিসাবে মৰ্যাদা প্ৰদান করেছে সেই ৮টা নৃত্যশৈলীর অন্যতম। সত্ৰীয়া নৃত্যের 'সত্ৰীয়া' শব্দটি 'সত্ৰ' থেকে এসেছে।[১] মহাপুরুষ শ্রীমন্ত শংকরদেব প্ৰতিষ্ঠিত সত্ৰসমূহের যোগে প্ৰায় ১৫ শ শতকে এই নৃত্যধারা অসমে প্ৰচলিত হয়।[২]

সত্রীয়া নৃত্য নৃত্যশিল্পী মিনাক্ষী মেধি

ইতিহাস[সম্পাদনা]

প্ৰাচীন কাল থেকে অসমে নৃত্য-কলার প্ৰচলন হয়েছিল। প্ৰায় ১৫শতকের প্ৰচলিত এই নৃত্যধারা, ১৯ শ শতকের মাঝামাঝিতে বৈষ্ণব ধৰ্মীয় সত্রসমুহের থেকে আধুনিক মঞ্চে চলে আসে। পরম্পরাগতভাবে সত্ৰসমূহে এই নৃত্য শুধুমাত্র পুরুষ ভকতদের(অসমীয়া সংকৃতির বৈষ্ণব শ্রেনীর লোক) মাঝে আবদ্ধ ছিল। কিন্তু আধুনিক মঞ্চের স্বীকৃতি পাওয়ার লগে লগে এই নৃত্য পুরুষ মহিলা উভয়ে পরিবেশন করতে শুরু করে।

২০০০ সনের ১৫ নভেম্বরে এক সুকীয়া শৈলীর এই নৃত্যকে সংগীত নাটক একাডেমী ভারতের অন্যতম শাস্ত্ৰীয় নৃত্যের মৰ্য্যদা প্ৰদান করে। প্ৰচলিত ধৰ্মীয় আখ্যানসমুহ এক বিশেষ শৈলীর দ্বারা এই নৃত্যের মাধ্যমে বাখ্যা করা হয়।

নৃত্যশৈলী[সম্পাদনা]

সত্ৰীয়া নৃত্য বিভিন্ন ভাগে বিভক্ত।

  • সুত্ৰধার
  • অপ্সরা নৃত্য
  • বেহার নৃত্য
  • ছালি নৃত্য
  • দশাবতার নৃত্য
  • রাস নৃত্য
  • গোসাই প্ৰবেশ
  • গোপী প্ৰবেশ ইত্যাদি

বিশিষ্ট শিল্পী এবং সংগীত নাটক একাডেমী পুরস্কার[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্ৰ[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]