সগত সিং

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
লেফটেন্যান্ট জেনারেল
সগত সিং
পরম বিশিষ্ট সেবা পদক
জন্ম(১৯১৯-০৭-১৪)১৪ জুলাই ১৯১৯[১]
বিকানের, রাজস্থান, ব্রিটিশ ভারত
মৃত্যু২৬ সেপ্টেম্বর ২০০১(2001-09-26) (বয়স ৮২)
দিল্লী
আনুগত্য ভারত
সার্ভিস/শাখা ভারতীয় সেনাবাহিনী
পদমর্যাদাLieutenant General of the Indian Army.svg লেফটেন্যান্ট জেনারেল
ইউনিট৩য় গোর্খা রাইফেলস
নেতৃত্বসমূহ
  • ৪র্থ কোর [২]
  • ১৭ মাউন্টেন দিভিশন [৩]
  • ৫০তম প্যারাসুট ব্রিগেড [৩]
  • ৩য় গোর্খা রাইফেলস রেজিমেন্টের ২য় ব্যাটেলিয়ন [১]
  • ৩য় গোর্খা রাইফেলস রেজিমেন্টের ৩য় ব্যাটেলিয়ন[৩]
যুদ্ধ/সংগ্রাম
পুরস্কার

সগত সিং ভারতীয় সেনাবাহিনীর একজন জেনারেল ছিলেন। তার নাম ভারতীয় সেনাবাহিনী স্মরণ করে কারণ তিনি পর্তুগীজদের হাত থেকে গোয়াকে বাঁচিয়েছিলেন, এছাড়াও পূর্ব পাকিস্তানে তিনি বিশেষ দক্ষতা দেখিয়েছিলেন পাকিস্তান সেনাবাহিনীর সঙ্গে লড়াই এ। ২০০১ সালের ২৬ সেপ্টেম্বর এই জেনারেল শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

তার স্ত্রী কমলা ছিলেন জম্মু-কাশ্মীরের প্রধান বিচারপতি রিচপাল সিং এর মেয়ে।

পূর্ব সামরিক জীবন[সম্পাদনা]

১৯১৯ সালের ১৪ই জুলাই জন্ম নেন সগত সিং। তার গ্রামের বাড়ি হচ্ছে রাজস্থান রাজ্যের বিকানেরএ। ১৯৩৬ সালে তিনি ম্যাট্রিক পাশ করেন এবং সঙ্গে সঙ্গেই ৩য় গোর্খা রাইফেলস রেজিমেন্টের ২য় ব্যাটেলিয়নে ছয় মাস প্রশিক্ষণ শেষে সিপাহি পদবীতে যোগ দেন। এরপর তিনি ভারতীয় সামরিক একাডেমীতে পরীক্ষা দিয়ে টিকে যান ১৯৩৮ সালে এবং ১৯৩৯ সালের জানুয়ারীতে যোগ দেন ওখানে; ১৯৪১ সালে ২য় লেফটেন্যান্ট হিসেবে বের হন একাডেমী থেকে, কমিশন পান তার সেই গোর্খা ব্যাটেলিয়নে (২/৩ গোর্খা রাইফেলস)। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ চলাকালীন তিনি ইরাকে ছিলেন। ১৯৪৫ সালে ভারপ্রাপ্ত মেজর অবস্থায় তিনি বর্তমান পাকিস্তানের কোয়েটাতে স্টাফ কোর্স করেন।

পরবর্তী সামরিক জীবন[সম্পাদনা]

জেনারেল নিয়াজির সরাসরি পেছনে জেনারেল সগত (জেনারেল জ্যাকবের পাশে)

পঞ্চাশের দশকে তিনি লেঃ কর্নেল হিসেবে তার নিজের ইউনিট (তৃতীয় গোর্খা রাইফেলসের দ্বিতীয় এবং তৃতীয় ব্যাটেলিয়ন; ২/৩ গোর্খা এবং ৩/৩ গোর্খা রাইফেলস) কমান্ড করেন। ১৯৬১ সালে তিনি ব্রিগেডিয়ার হন। '৬১ সালের সেপ্টেম্বরে তিনি ৫০তম প্যারাসুট ব্রিগেডের অধিনায়কের দায়িত্ব পান। গোয়া প্রদেশকে তিনি পর্তুগীজ সেনাবাহিনীর দখলদারিত্বের হাত থেকে মুক্ত করেন, তার অধীনস্থ সেনারা ১৯শে ডিসেম্বর ১৯৬১ তারিখে গোয়ার পানাজিতে বিজয় উল্লাস করে।

এরপর মেজর-জেনারেল পদবীতে তিনি ১৭তম মাউন্টেন ডিভিশনের কমান্ডার হন এবং মিজোরাম প্রদেশে একটি কমিউনিকেশন জোনের অধিনায়ক ছিলেন। মেজর জেনারেল পদবীতেই তিনি পরম বিশিষ্ট সেবা পদক পান। ১৯৭০ সালের ডিসেম্বরে তিনি ৪র্থ কোরের অধিনায়ক হন। পূর্ব পাকিস্তানে এই কোর সামরিক অভিযান চালিয়েছিলো এবং জেনারেল আমির আবদুল্লাহ খান নিয়াজীর আত্মসমর্পণ অনুষ্ঠানে জেনারেল জে এফ আর জ্যাকব এর পাশেই জেনারেল সগত দাঁড়িয়েছিলেন।

১৯৭২ সালে জেনারেল সগত পদ্মভূষণ পুরস্কার পান, এই বছরই তিনি সামরিক বাহিনী থেকে অবসরে যান।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Biography - Lieut. General Sagat Singh, PVSM" 
  2. "'If there's B'desh, it's due to Lt Gen Sagat'"। সংগ্রহের তারিখ ১৭ মার্চ ২০১৮ 
  3. "Remembering Sagat Singh (1918-2001"। সংগ্রহের তারিখ ১৭ মার্চ ২০১৮ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]