মিরজা আবদুল হাই

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
মিরজা আবদুল হাই
মিরজা আবদুল হাই.jpg
জন্ম১ ডিসেম্বর ১৯১৯
আবদা গ্রাম, হবিগঞ্জ, ব্রিটিশ ভারত
(বর্তমান বাংলাদেশ)
মৃত্যু২৩ সেপ্টেম্বর ১৯৮৪
নাগরিকত্বব্রিটিশ ভারত (১৯৪৭ সাল পর্যন্ত)
পাকিস্তান (১৯৭১ সালের পূর্বে)
বাংলাদেশ
মাতৃশিক্ষায়তনমুরারিচাঁদ কলেজ
পরিচিতির কারণকথাসাহিত্যিক
পিতা-মাতা
  • মিরজা আবদুল হেকিম (পিতা)
পুরস্কারবাংলা একাডেমী পুরষ্কার,
আলাওল সাহিত্য পুরস্কার

মিরজা আবদুল হাই (১ ডিসেম্বর ১৯১৯ – ২৩ সেপ্টেম্বর ১৯৮৪) একজন বাংলাদেশি কথাসাহিত্যিক ও অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মকর্তা ছিলেন। ছোটগল্পের জন্য তিনি ১৯৭৭ সালে বাংলা একাডেমি পুরস্কার পান।[১][২][৩]

প্রাথমিক জীবন[সম্পাদনা]

মিরজা আবদুল হাই ১ ডিসেম্বর ১৯১৯ সালে তৎকালীন হবিগঞ্জ মহকুমার আবদা গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। পিতা মিরজা আবদুল হেকিম ছিলেন পল্লী চিকিৎসক। তিনি ১৯৩৭ সালে সিলেট সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ম্যাট্রিকুলেশন এবং মুরারিচাঁদ কলেজ থেকে ১৯৩৯ সালে আইএসসি ও ১৯৪২ সালে বিএসসি পাশ করেন।[৩][৪][৫]

কর্মজীবন[সম্পাদনা]

মিরজা আবদুল হাই ১৯৪৩ সালে আসাম প্রাদেশিক সরবরাহ বিভাগের ইন্সপেক্টর হিসেবে কর্মজীবন শুরু করেন। ইস্ট পাকিস্তান জুনিয়র সিভিল সার্ভিস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে তিনি ১৯৫৪ সালে প্রশাসন বিভাগে নিয়োগ পান। ১৯৫৫ সালে ডেপুটি ম্যাজিস্ট্রেট পদে যোগদান করেন। ১৯৬৪ সালে তিনি ইসলামাবাদের কেন্দ্রীয় সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে যোগ দিয়ে ১৯৭২ সাল পর্যন্ত ছিলেন।[৪] ঢাকায় বাংলাদেশ ট্রেডিং কর্পোরেশনের ঊর্ধ্বতন নির্বাহী পদে ১৯৭৩ সালে যোগ দিয়ে পদোন্নতি পেয়ে ১৯৭৫ সালে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের উপসচিব হন এবং ১৯৭৮ সালে অবসরে যান।[৩]

রচনাবলি[সম্পাদনা]

মিরজা আবদুল হাই ১৯৪০ সাল থেকে বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় ছোটগল্প ও উপন্যাসে লিখতেন। ছোটগল্পের জন্য তিনি ১৯৭৭ সালে বাংলা একাডেমি পুরস্কার পান। তার উল্লেখযোগ্য প্রকাশিত গ্রন্থের মধ্যে রয়েছে:-[৩][৬][৭]

  • ছায়া-প্রচ্ছায়া (১৯৭৬,ছোটগল্প)
  • বিস্ফোরণ (১৯৭৮,ছোটগল্প)
  • তর্কে বহুদূর (ছোটগল্প)
  • ফিরে চলো (১৯৭৯, উপন্যাস)
  • উন্মাদাশ্রম (উপন্যাস)
  • তোমার পতাকা (১৯৮১, মুক্তিযুদ্ধের উপন্যাস),
  • ঊর্ণনাভ (উপন্যাস)
  • যমনিস সংবাদ (১৯৮৪, উপন্যাস)

পুরস্কার ও সম্মাননা[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার বিজয়ী"বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়ন। ১৯ ডিসেম্বর ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৮ জানুয়ারি ২০২২ 
  2. "যোগ্য লোকের হাতে উঠুক বাংলা একাডেমি পুরস্কার"জাগোনিউজ২৪.কম। ৯ জানুয়ারি ২০২২। ১৬ জানুয়ারি ২০২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৬ জানুয়ারি ২০২২ 
  3. শোয়াইব আহমেদ জিবরান (২৯ মার্চ ২০১৫)। "হাই, মিরজা আবদুল"বাংলাপিডিয়া। ১৮ জানুয়ারি ২০২২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৮ জানুয়ারি ২০২২ 
  4. Delhi, All India Radio (AIR),New (১৯৪৭-০৪-০৭)। THE INDIAN LISTENER: Vol. XII. No. 8. (7th APRIL 1947) (ইংরেজি ভাষায়)। All India Radio (AIR),New Delhi। 
  5. ভীষ্মদেব চৌধুরী (১৯৮৯)। মিরজা আবদুল হাই ১৯১৯-১৯৮৪। বাংলাদেশ: বাংলা একাডেমি। পৃষ্ঠা ১৬১। 
  6. "মিরজা আবদুল হাই এর বই সমূহ"রকমারি ডট কম। সংগ্রহের তারিখ ১৮ জানুয়ারি ২০২২ 
  7. "কথাশিল্পী মিরজা আবদুল হাই"। দৈনিক বাংলা, সাহিত্যসাময়িকী। ২৮ সেপ্টেম্বর ১৯৮৪। 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]