মাদারিয়া

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

মাদারিয়া তরিকা উত্তর ভারত, বিশেষ করে উত্তরপ্রদেশ, মেওয়াত অঞ্চল, বিহার, গুজরাতপশ্চিমবঙ্গে জনপ্রিয় এবং একইসাথে নেপালেবাংলাদেশেও জনপ্রিয় সুফি তরিকা, যা প্রচলিত প্রথা ভাঙা, বাহ্যিক ধর্মীয় অনুশীলনের উপর শিথীলতা এবং আত্ম যিকিরের উপর জোর প্রয়োগের করনে সুপরিচিত। এটি প্রখ্যাত সুফি সাধক সৈয়দ বদিউদ্দীন জিন্দা শাহ মাদার (মৃত্যু ১৪৩৩খ্রি:) কতৃক প্রবর্তিত সূফি তরিকা এবং উত্তরপ্রদেশের কানপুর জেলার মকানপুরে তার মাজার কেন্দ্রিক পরিচালিত তরিকা। তিনি তেরো শতকে আশরাফ জাহাঙ্গীর সেমনাণী সহ ভারতে আগমন করেন।[১]

তাঁর পীর বা আধ্যাত্মিক শিক্ষক বায়াজীদ তায়ফুর আল-বোস্তামি কতৃক প্রবর্তিত তৈয়ফুরিয়া তরিকা থেকে উৎপত্তি হয়ে মাদারিয়া তরিকা ১৫ থেকে ১৭ শতকের মাঝামাঝি মুঘল আমলে বিশেষ গৌরব অর্জন করেছিল এবং শাহ মাদারের শিষ্যদের মাধ্যমে ভারতের উত্তরাঞ্চলীয় এলাকা, বাংলাসহ বিভিন্ন অঞ্চলে এ তরিকা ছড়িয়ে পড়ে। বেশিরভাগ সুফি তরিকার মতই এটি প্রতিষ্ঠাতা শাহ মাদারের নামে নির্মিত হয়েছে, যা মাদারিয়া তরিকা নামে পরিচিত।[২][৩][৪][৫][৬]

মাজার শরিফ[সম্পাদনা]

মাজার বা রওজা শরিফ বা বাদিউদ্দীন জিন্দা শাহ মাদারের সমাধি ভারতের উত্তর প্রদেশ রাজ্যের কানপুর শহরের কাছে মকানপুরে অবস্থিত। এখানে প্রতি মাসে বিশেষ করে বার্ষিক ওরস উদযাপনের সময় হাজার হাজার দর্শনার্থী, ভক্তবৃন্দ পরিদর্শন করে।[৭]

মাদারিয়া তরিকার বিশিষ্ট সূফি[সম্পাদনা]

  • জিন্দা শাহ মাদারের শিষ্য সদন শাহ সরমাস্ত, গুজরাতে মাজার
  • সদন শাহ সরমাস্তের শিষ্য সৈয়দ আকমল হোসেন ওরফে বাবামান, গুজরাত বড়োদরায় মাজার
  • সদন শাহ সরমাস্তের শিষ্য ছোট মাস্তে দাদা, গুজরাত বড়োদরায় মাজার

আরো দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. 'Hayate Makhdoom Syed Ashraf Jahangir Semnani(1975), Second Edition(2017)
  2. Masud, Muhammad Khalid (২০০০)। Travellers in faith: studies of the Tablīghī Jamāʻat as a transnational Islamic movement for faith renewal- Volume 69। BRILL। পৃষ্ঠা xxxii। আইএসবিএন 90-04-11622-2 
  3. Liebeskind, Claudia (১৯৯৮)। Piety on its knees: three Sufi traditions in South Asia in modern times। Oxford University Press। পৃষ্ঠা ৪৯। আইএসবিএন 0-19-564309-7 
  4. Ghazzālī; George F. McLean (২০০১)। Deliverance from error and mystical union with the Almighty- Volume 2 of Cultural heritage and contemporary change। CRVP। পৃষ্ঠা ৬০। আইএসবিএন 1-56518-081-X 
  5. Bakshi, S.R. (২০০৩)। Advanced history of medieval India। Anmol Publications PVT. LTD.। পৃষ্ঠা ৩৪৮। আইএসবিএন 81-7488-028-3 
  6. Harris, Ian (১৯৯২)। Contemporary religions: a world guide- Longman current affairs। Longman। পৃষ্ঠা ২১৬। আইএসবিএন 0-582-08695-7 
  7. Kanpur Dargahs in India.

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]