ভাস্কর্য

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
(ভাস্কর থেকে পুনর্নির্দেশিত)

ভাস্কর্য (ইংরেজি: Sculpture) ত্রি-মাত্রিক শিল্পকর্মকে ভাস্কর্য বলে।অর্থাৎ, জ্যামিতিশাস্ত্রের ন্যায় ভাস্কর্যকে দৈর্ঘ্য, প্রস্থ এবং গভীরতা সহ ত্রি-মাত্রিক হতে হবে। বাংলাদেশ এবং চীনের ন্যায় বিশ্বের সর্বত্র বিভিন্ন ধরনের, বহুমূখী আকৃতির ভাস্কর্য দেখতে পাওয়া যায়। রেনেসাঁ এবং আধুনিককালে এটি ব্যাপকভাবে প্রসারিত হয়েছে। পুতুল, মুখোশ, মাটির জিনিসপত্র ভাস্কর্যের উদাহরণ। কিন্তু প্রায় চারশত বছর পূর্বে বিভিন্ন বিধি-নিষেধের কবলে পড়ে সেখানে ভাস্কর্য শিল্পকলার তেমন উন্মেষ ঘটেনি।উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগের ক্ষেত্রে </ref> ট্যাগ যোগ করা হয়নি ভারতীয় ভাস্কর্যকলায় এ ধারাটি বিংশ-একবিংশ শতকে এসেও বিকশিত ও প্রবহমান। এর সাথে যুক্ত হয়েছে গ্রানাইট পাথর যা পল্লব রাজবংশের সময়কালীন মহাবালিপুরামের মন্দিরে দৃশ্যমান। সমকালীন প্রেক্ষাপটে ভারতীয় ভাস্কর্যকলা সাধারণত বহু দেব-দেবীকে ঘিরে আবর্তিত; পাশাপাশি ধ্রুব মিস্ত্রি'র ন্যায় আধুনিক, প্রথিতযশা ভাস্করও গড়ে তুলতে যথেষ্ট সাহায্য করেছে।

ভাস্কর্য বিরোধী আন্দোলন[সম্পাদনা]

একত্ববাদ অর্থাৎ এক ঈশ্বরের প্রতি বিশ্বাসের কারণে ইহুদি ধর্মে ভাস্কর্যের প্রতি নিষিদ্ধতা রয়েছে, যার ফলে ১৯ শতক পর্যন্ত রুপক ভাস্কর্য অগ্রহণযোগ্য ছিল,[১] খ্রিষ্ট ধর্মের প্রাথমিক বিস্তৃতির আগ পর্যন্ত যেটি অব্যাহত ছিল, কিন্তু পরবর্তীতে তারা প্রাথমিকভাবে বড় ভাস্কর্য গ্রহণ করে। খ্রিষ্টধর্ম ও বৌদ্ধধর্মের মধ্যে ভাস্কর্য খুব গুরুত্বপূর্ণ হয়ে ওঠে। যদিও খ্রিষ্টানদের পূর্ব অর্থডক্স মণ্ডলী স্মরণীয় ভাস্কর্য কখনো অনুমোদন করে নি এবং ইসলাম ধারাবাহিকভাবে প্রায় সব রূপক ভাস্কর্য প্রত্যাখ্যান করেছে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]