ব্লো-ব্জাং-ব্স্তান-'দ্জিন-'জিগ্স-মেদ-য়ে-শেস-র্গ্যা-ম্ত্শো

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ব্লো-ব্জাং-ব্স্তান-'দ্জিন-'জিগ্স-মেদ-য়ে-শেস-র্গ্যা-ম্ত্শো

ব্লো-ব্জাং-ব্স্তান-'দ্জিন-'জিগ্স-মেদ-য়ে-শেস-র্গ্যা-ম্ত্শো (তিব্বতি: བློ་བཟང་བསྟན་འཛིན་འཇིགས་མེད་ཡེ་ཤེས་རྒྱ་མཚོওয়াইলি: blo bzang btsan 'dzin 'jigs med ye shes rgya mtsho) (১৯৪২-বর্তমান) তিব্বতী বৌদ্ধধর্মের দ্গে-লুগ্স ধর্মসম্প্রদায়ের একাদশ কির-তি রিন-পো-ছে (ওয়াইলি: kir+ti rin po che) উপাধিধারী বৌদ্ধ লামা ছিলেন।

সংক্ষিপ্ত জীবনী[সম্পাদনা]

ব্লো-ব্জাং-ব্স্তান-'দ্জিন-'জিগ্স-মেদ-য়ে-শেস-র্গ্যা-ম্ত্শো ১৯৪২ খ্রিষ্টাব্দে তিব্বতের আমদো অঞ্চলে জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৪৬ খ্রিষ্টাব্দে তাকে ঙ্গাগ-দ্বাং-ব্লো-ব্জাং-ব্স্তান-পা-ত্শে-রিং (ওয়াইলি: ngag dbang blo bzang bstan pa tshe ring) নামক দশম কির-তি রিন-পো-ছে (ওয়াইলি: kir+ti rin po che) উপাধিধারী লামার পুনর্জন্ম রূপে চিহ্নিত করা হয় ও পরের বছর তাকে স্তাগ-ত্শাং-ল্হা-মো (ওয়াইলি: stag tshang lha mo) বৌদ্ধবিহারের প্রধানের পদে অধিষ্ঠিত করা হয়। ১৯৪৯ খ্রিষ্টাব্দে চীন তিব্বত আক্রমণ করলে তিনি ভারত পালিয়ে যান।। ১৯৬২ খ্রিষতাব্দে চতুর্দশ দলাই লামা তাকে ভিক্ষুর শপথ প্রদান করেন। ১৯৬০ থেকে ১৯৬৪ খ্রিষ্টাব্দের মধ্যে তিনি বক্সারডালহৌসি শহরে বৌদ্ধধর্মে শিক্ষালাভ করেন। ১৯৬৮ খ্রিষতাব্দে তিনি দার্জিলিংয়ের গাদেন তাশি ছোলিং বিহারের প্রশাসনিক দায়িত্ব গ্রহণ করেন। এই সময় তিনি বারাণসী শহরে অবস্থিত কেন্দ্রীয় তিব্বতী অধ্যয়ন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে নয় বছর ধরে শিক্ষালাভ করে শাস্ত্রী এবং আচার্য্য উপাধি লাভ করেন। ১৯৭৮ খ্রিষ্টাব্দ থেকে প্রায় এক দশক ধরে তিনি হিমাচল প্রদেশের ধর্মশালা শহরে অবস্থিত লাইব্রেরী অব টিবেটান ওয়ার্কস অ্যান্ড আর্কাইভস প্রতিষ্ঠানে গবেষণারত থাকেন। এই সময় তিনি সিক্কিমের গ্যাংটক শহরে অবস্থিত নামগ্যাল তিব্বত অধ্যয়ন সংস্থানের প্রশাসনিক কার্যে চতুর্দশ দলাই লামার প্রতিনিধি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৮৪ খ্রিষ্টাব্দে তিনি তিব্বতের নির্বাসিত সরকারের প্রতিনিধি রূপে তিনি তিব্বতচীন যাত্রা করেন। ১৯৮৭ খ্রিষ্টাব্দের পর থেকে তিনি তিব্বতের নির্বাসিত সরকারের বিভিন্ন প্রশাসনিক দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৯২ খ্রিষতাব্দে তিনি ধর্মশালা শহরে তিব্বতী অধ্যয়নের একটি শিক্ষাকেন্দ্র স্থাপন করেন। ১৯৯৭ খ্রিষ্টাব্দে তিনি তিব্বতের নির্বাসিত সরকারের ধর্ম ও সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রকের দায়িত্ব গ্রহণ করেন। এই সময় তিনি এশিয়ান বুদ্ধিষ্ট কনফারেন্স ফর পিস নামক ধর্মসভার সহসভাপতিত্ব করেন।[১]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. লোসেলিং মহাবিদ্যালয়ের প্রাতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইট ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ৯ আগস্ট ২০১৪ তারিখে ব্লো-ব্জাং-ব্স্তান-'দ্জিন-'জিগ্স-মেদ-য়ে-শেস-র্গ্যা-ম্ত্শোর জীবনী
পূর্বসূরী
ঙ্গাগ-দ্বাং-ব্লো-ব্জাং-ব্স্তান-পা-ত্শে-রিং
ব্লো-ব্জাং-ব্স্তান-'দ্জিন-'জিগ্স-মেদ-য়ে-শেস-র্গ্যা-ম্ত্শো
একাদশ কির-তি রিন-পো-ছে
উত্তরসূরী
--