বসুন্ধরা কিংস মহিলা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
বসুন্ধরা কিংস মহিলা
বসুন্ধরা কিংস লোগো.png
পূর্ণ নামবসুন্ধরা কিংস মহিলা
ডাকনামদ্য কিংস
প্রতিষ্ঠিত২০১৯; ২ বছর আগে (2019)
মাঠবীর শ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়াম, ঢাকা
ধারণক্ষমতা২৫,০০০
মালিকবসুন্ধরা গ্রুপ
প্রেসিডেন্টবাংলাদেশ ইমরুল হাসান[১]
প্রধান কোচবাংলাদেশ আবু আহমেদ ফয়সাল
লীগবাংলাদেশ মহিলা ফুটবল লীগ
২০২০–২১চ্যাম্পিয়ন
ওয়েবসাইটক্লাব ওয়েবসাইট
বর্তমান মৌসুম

বসুন্ধরা কিংস মহিলা বসুন্ধরা কিংসের সাথে অনুমোদিত বাংলাদেশের একটি মহিলা ফুটবল ক্লাব। এটি ২০২০ বাংলাদেশ মহিলা ফুটবল লীগের আগে ২০১৯ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল।[২][৩]

বসুন্ধরা কিংসের সক্রিয় বিভাগসমূহ
Football pictogram.svg Football pictogram.svg
ফুটবল (মহিলা) ফুটবল (পুরুষ)

ইতিহাস[সম্পাদনা]

সূচনালগ্ন[সম্পাদনা]

৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ তারিখে, ক্লাবটি আনুষ্ঠানিকভাবে প্রাক্তন জাতীয় খেলোয়াড় মাহমুদা শরিফা অদিতির নাম তাদের মহিলা দলের কোচ হিসাবে ঘোষণা করেছিল।[৪] অক্টোবর ২০১৯, এ বসুন্ধরা কিংস আনুষ্ঠানিকভাবে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনকে জানিয়েছিল যে তারা বহুল প্রতীক্ষিত মহিলা লীগে অংশ নিতে চায়।[৫] ২০২০ সালের ৩ জানুয়ারি তারিখে প্রকাশিত হয়েছিল যে মহিলা জাতীয় দলের অধিনায়ক সাবিনা খাতুন বহু প্রতীক্ষিত মহিলা ফুটবল লীগে বসুন্ধরা কিংসের হয়ে খেলবেন।

২০২০ মৌসুম[সম্পাদনা]

মহিলা ফুটবল লীগের তৃতীয় সংস্করণের জন্য বসুন্ধরা কিংস একটি শক্তিশালী দল গঠন করেছিল, যেখানে দলবদলের শেষ দিনে তারা তাদের দল চূড়ান্ত করে, যেখানে ১৯ জন জাতীয় খেলোয়াড় সহ মোট ২৩ জন খেলোয়াড় অন্তর্ভুক্ত করেছিল। তাদের মধ্যে জাতীয় মহিলা দলের অধিনায়ক সাবিনা খাতুন, বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলের অধিনায়ক মিসরাত জাহান মৌসুমী এবং মনিকা চাকমা, কৃষ্ণা রাণী সরকার, মারিয়া মান্ডা, তহুরা খাতুন, এবং সানজিদা আক্তারের মতো গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়রা ছিলেন।[৬][৭]

২০২০ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি, বসুন্ধরা কিংস তাদের আনুষ্ঠানিকভাবে স্টার সমৃদ্ধ মহিলা ফুটবল দলকে বেগম আনোয়ারা স্পোর্টিং ক্লাবের বিপক্ষে ১২-০ গোলে জয়ের সাথে পুরোপুরি আধিপত্য বিস্তারের মাধ্যমে পরিচিত করেছিল। বিজয়ী হিসাবে, কৃষ্ণা চারটি গোল করেন, ৪৪ সেকেন্ডের মধ্যে সাবিনা ক্লাবের হয়ে প্রথম গোলটি সহ তিনটি গোল, মৌসুমী দুটি এবং শিউলি, নার্গিস খাতুন এবং মারিয়া মান্ডা একটি করে গোল করেন।[৮] ২০২০ সালের ১ মার্চ, বসুন্ধরা কিংস ২০২০ ট্রিকোটেক্স মহিলা ফুটবল লিগে আরেকটি বড় জয় রেকর্ড করেছিল যেখানে শিরোপা-প্রত্যাশীরা স্পার্টান এমকে গ্যালাকিটিকো সিলেট এফসিকে ১৩-০ ব্যবধানে পরাজিত করেছিল। মনিকা চারটি গোল করেন, সাবিনার আরেকটি হ্যাটট্রিকের সাথে আঁখি একটি গোল করেছিলেন, কৃষ্ণা, তহুরা এবং শিউলি একটি করে গোল করেছেন, মুক্ত দাস একটি নিজস্ব গোল করেছেন।[৯] ২০২০ সালের ৫ ই মার্চ, সাবিনা তার তৃতীয় হ্যাটট্রিকটি করে বসুন্ধরা কিংসকে নাসরিন স্পোর্টিং ক্লাবের বিপক্ষে ৯-০ ব্যবধানে জয় দিয়ে টানা তৃতীয় জয় লাভ করে, এদিন তহুরা ও কৃষ্ণা দুটি এবং সানজিদা ও মুন্নি বিজয়ীদের পক্ষে একটি করে গোল করেন।[১০] ২০২০ সালের ৯ মার্চ, বসুন্ধরা কিংস কুমিল্লা ইউনাইটেডকে ৬-০ গোলে হারিয়েছে, যেখানে সাবিনা ও মারিয়া মান্ডা দুটি করে গোল করেন, রিপা এবং তহুরা কিংসের হয়ে একটি করে গোল করেছিলেন।[১১] ২০২০ সালের ১২ মার্চ, কিংসরা জামালপুর কাছারিপারা একাদশকে ১১-০ গোলে হারিয়েছে। সাবিনা ও তহুরা হ্যাটট্রিক সহ যথাক্রমে চারটি ও তিনটি গোল করে করেছিলেন এবং কৃষ্ণা দুটি, সানজিদা ও নার্গিস বিজয়ীদের পক্ষে একটি করে গোল করেছিলেন।[১২]

২০২০ সালের ৭ নভেম্বর বসুন্ধরা কিংস লীগে, এফসি উত্তর বঙ্গকে ৭-০ গোলে পরাজিত করা মধ্য দিয়ে তারা আবার কোভিড-১৯ এর জন্য বন্ধ হওয়ার আগে যেখানে শেষ করেছিল সেখান থেকেই শুরু করেছিলেন। লীগের টেবিল টপার বসুন্ধরা কিংসের পক্ষে কৃষ্ণা দুটি এবং শিউলি, তহুরা, মুন্নি, মনিকা একটি করে গোল করেছিলেন এবং লীগে সর্বোচ্চ গোলদাতা সাবিনা ও একটি গোল করে সর্বমোট ১৭ গোল করেছিলেন।[১৩]

২০২০ সালের ৬ ডিসেম্বর, কিংস এক ম্যাচ হাতে রেখে ২০২০ বাংলাদেশ মহিলা ফুটবল লীগ চ্যাম্পিয়ন হয়ে ঘরোয়া ফুটবল অঙ্গনে তাদের পুরোপুরি আধিপত্য অব্যাহত রাখে।[১৪]

জার্সি স্পন্সর[সম্পাদনা]

সময়কাল কিট প্রস্তুতকারক শার্ট স্পন্সর
২০২০- বর্তমান পুমা বসুন্ধরা গ্রুপ

মাঠ[সম্পাদনা]

যেহেতু তারা কোনও হোম স্টেডিয়ামের মালিকানায় ছিলনা, তাই বসুন্ধরা কিংস মহিলা দলটি ২০২০ মৌসমের সবকটি হোম এবং অ্যাওয়ে ম্যাচ বীর শ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে[১৫] খেলেছিল।

খেলোয়াড়[সম্পাদনা]

বর্তমান দল[সম্পাদনা]

২০ মার্চ ২০২১ পর্যন্ত হালনাগাদকৃত।[১৬][১৭][১৮]

নোট: পতাকা জাতীয় দল নির্দেশ করে যা ফিফা যোগ্যতা নিয়মের অধীনে নির্ধারিত হয়েছে। খেলোয়াড়দের একাধিক জাতীয়তা থাকতে পারে যা ফিফা ভুক্ত নয়।

নং অবস্থান খেলোয়াড়
গো বাংলাদেশ রুপনা চাকমা
বাংলাদেশ শিউলি আজিম
বাংলাদেশ নিলুফা ইয়েসমিন নীলা
বাংলাদেশ মোসাম্মাত নার্গিস খাতুন
বাংলাদেশ মাসুরা পারভিন (৩য় অধিনায়ক)
বাংলাদেশ মনিকা চাকমা [১৯]
বাংলাদেশ সানজিদা আক্তার
বাংলাদেশ মিসরাত জাহান মৌসুমী (সহ-অধিনায়ক)
বাংলাদেশ তহুরা খাতুন
১০ বাংলাদেশ কৃষ্ণা রাণী সরকার
১১ বাংলাদেশ সাবিনা খাতুন (অধিনায়ক)[২০][২১]
১২ বাংলাদেশ আনাই মগিনি
নং অবস্থান খেলোয়াড়
১৩ বাংলাদেশ শামসুন্নাহার
১৪ বাংলাদেশ মোসাম্মাত সুলতানা
১৫ বাংলাদেশ মারিয়া মান্ডা
১৮ বাংলাদেশ আঁখি খাতুন
১৯ বাংলাদেশ রিতু পর্না
২০ বাংলাদেশ শামছুন্নাহার জুনিয়র
২১ গো বাংলাদেশ সুরুধনী কিস্কু
২২ গো বাংলাদেশ ইয়াসমিন আক্তার জবা
২৭ বাংলাদেশ মোসাম্মাত সিরাত জাহান স্বপ্না
৩৬ গো বাংলাদেশ মিমি আক্তার
৭৭ বাংলাদেশ সুমাইয়া মাতসুশিমা

কোচিং কর্মকর্তা[সম্পাদনা]

অবস্থান নাম
প্রধান কোচ বাংলাদেশ আবু আহমেদ ফয়সাল[২২]
সহকারী প্রশিক্ষক বাংলাদেশ তৌফিকুল ইসলাম
গোলকিপিং প্রশিক্ষক বাংলাদেশ সেলিম মিয়া
ফিজিও বাংলাদেশ লাইজু ইয়াছমিন
ম্যানেজার বাংলাদেশ পিঙ্কি সানোয়ার[২৩]

সর্বশেষ হালনাগাদ: ২০ মার্চ ২০২১
সূত্র: [১]

দলের পরিসংখ্যান[সম্পাদনা]

প্রধান কোচের পরিসংখ্যান[সম্পাদনা]

১৯ জুলাই ২০২১ পর্যন্ত হালনাগাদকৃত।
প্রধান কোচ শুরু শেষ খেলা জয় ড্র হার পক্ষে গোল বিপক্ষে গোল জয় হার
বাংলাদেশ মাহমুদা শরিফা অদিতি সেপ্টেম্বর ২০১৯ ডিসেম্বর ২০২০ ১২ ১২ ১১৯ ১০০.০০
বাংলাদেশ আবু আহমেদ ফয়সাল মার্চ ২০২১ বর্তমান ১৩ ১৩ ১২৩ ১০০.০০

শীর্ষ স্কোরার[সম্পাদনা]

১৯ জুলাই ২০২১ পর্যন্ত হালনাগাদকৃত।
মৌসম খেলোয়াড় গোল
২০১৯–২০ বাংলাদেশ সাবিনা খাতুন
৩৫
২০২০–২১ বাংলাদেশ কৃষ্ণা রাণী সরকার
২৮

অর্জন[সম্পাদনা]

লীগ[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Imrul's aim is to win women's league title with Bashundhara"Manab Zamin (English ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০১-৩১ 
  2. "The most powerful team is Bashundhara"UNB (English ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০১-৩০ 
  3. "women's league will start with eight teams"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২০-০১-২৭। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০১-৩০ 
  4. "Sabina in Kings, Maria in Russel"Dhaka Tribune (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২০-০১-০৩। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৪-২০ 
  5. "Women's Football League back after six-year hiatus"Dhaka Tribune (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৪-২০ 
  6. "Kings favorite in women's league"Dhaka Tribune (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২০-০১-২৬। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৪-২০ 
  7. "Bashundhara Kings form strong team for Women's Football League"UNB (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২০-০১-২৬। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৪-২০ 
  8. "Queens of the Kings off to flying start"Dhaka Tribune (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২০-০২-২২। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৪-২০ 
  9. "Kings put 13 past Spartan"The Daily Star (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২০-০১-২৬। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৪-২১ 
  10. "Hat-trick of hat-tricks for Sabina"Dhaka Tribune (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২০-০৩-০৫। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৪-২১ 
  11. "Bashundhara Kings brush aside Cumilla United"UNB (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২০-০৩-০৯। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৪-২১ 
  12. "Kings earn a massive 11-0 win over Jamalpur"UNB (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২০-০৩-১২। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৪-২১ 
  13. "Kings hit seven in Women's Football League"Dhaka Tribune (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২০-১১-০৭। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১১-০৮ 
  14. "Unstoppable Kings clinch Women's Football League"Dhaka Tribune (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২০-১২-০৬। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-১২-০৬ 
  15. "All women's league matches will be held at Kamalapur Stadium"UNB (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২০-০১-১১। 
  16. "Bashundhara Kings has formed a team with 19 players from the national team"Prothom Alo (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২০-০১-২৭। 
  17. "19 players from the national team"newagebd.com (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২০-০১-২৭। 
  18. "Kings announce strong team with Sabina,Maria and co."Jagonews24.com (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২০-০১-২৭। 
  19. "Monika also in Bashundhara Kings"Jagonews24.com (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২০-০১-১৮। 
  20. "Sabina in Bashundhara Kings"dailysportsbd.com (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২০-০১-২৮। ২০২০-০১-৩১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০৩-১৩ 
  21. "Sabina the top paid signing"dhakatribune.com (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২০-০১-২৮। 
  22. "Faysal confident of retaining title"Daily Sun (ইংরেজি ভাষায়)। ২০ মার্চ ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ২২ মার্চ ২০২১ 
  23. "Pinki has become Bashundhara's manager"Ittefaq.com (ইংরেজি ভাষায়)। ২০২০-০১-৩১। 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]