ফাব্রিসিও বুস্তোস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ফাব্রিসিও বুস্তোস
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নাম ফাব্রিসিও বুস্তোস
জন্ম (1996-04-28) ২৮ এপ্রিল ১৯৯৬ (বয়স ২৩)
জন্ম স্থান উচাচা, কোর্দোবা, আর্জেন্টিনা
উচ্চতা ১.৬৭ মিটার (৫ ফুট   ইঞ্চি)
মাঠে অবস্থান রাইট ব্যাক
রাইট মিডফিল্ডার
ক্লাবের তথ্য
বর্তমান ক্লাব ইন্ডিপেন্দিয়েন্তে
জার্সি নম্বর ১৬
যুব পর্যায়ের খেলোয়াড়ী জীবন
জর্জ নিউবেরি
২০০৮–২০১৬ ইন্ডিপেন্দিয়েন্তে
জ্যেষ্ঠ পর্যায়ের খেলোয়াড়ী জীবন*
বছর দল উপস্থিতি (গোল)
২০১৬– ইন্ডিপেন্দিয়েন্তে ২৭ (৩)
জাতীয় দল
২০১৩ আর্জেন্টিনা অনূর্ধ্ব ১৭ (০)
২০১৪ আর্জেন্টিনা অনূর্ধ্ব ২০ (০)
২০১৮– আর্জেন্টিনা (০)
  • পেশাদারী ক্লাবের উপস্থিতি ও গোলসংখ্যা শুধুমাত্র ঘরোয়া লিগের জন্য গণনা করা হয়েছে এবং ৯ জুন ২০১৭ তারিখ অনুযায়ী সঠিক।

† উপস্থিতি(গোল সংখ্যা)।

‡ জাতীয় দলের হয়ে খেলার সংখ্যা এবং গোল ২৪ মার্চ ২০১৮ তারিখ অনুযায়ী সঠিক।

ফাব্রিসিও বুস্তোস (স্পেনীয়: Fabricio Bustos) (জন্ম: ২৮ এপ্রিল ১৯৯৬) হলেন আর্জেন্টিনার একজন পেশাদার ফুটবলার, যিনি আর্জেন্টিনীয় ক্লাব ইন্ডিপেন্দিয়েন্তে এবং আর্জেন্টিনা জাতীয় দলে একজন রাইট ব্যাক হিসেবে খেলেন। এছাড়াও তিনি একজন মধ্যমাঠের খেলোয়াড হিসেবেও খেলে থাকেন।

আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার[সম্পাদনা]

২০১৩ সালে অনুষ্ঠিত দক্ষিণ আমেরিকান অনূর্ধ্ব-১৭ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপ জয়লাভকারী আর্জেন্টিনা অনূর্ধ্ব ১৭ দলের সদস্য ছিলেন, উক্ত প্রতিযোগিতায় তিনি ৭ ম্যাচ খেলেছিলেন।[১] ২০১৪ সালে, ইকুয়েডর অনূর্ধ্ব ২০ দলের বিরুদ্ধে এক প্রীতি ম্যাচে আর্জেন্টিনা অনূর্ধ্ব ২০ দলের হয়ে খেলেছেন।

২০১৭ সালের ২৭শে আগস্ট তারিখে, উরুগুয়ে এবং ভেনেজুয়েলার বিরুদ্ধে ২০১৮ ফিফা বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের দুই ম্যাচের জন্য কোচ হোর্হে সাম্পাওলি তাকে দলে অন্তর্ভুক্ত করেন।[২] ২০১৮ সালের ২৩শে মার্চে, তিনি আর্জেন্টিনার হয়ে অভিষেক করেন। ম্যানচেস্টারে অনুষ্ঠিত সে ম্যাচে তার দল ইতালি ২–০ গোলে হারিয়েছিল।[৩]

সম্মাননা[সম্পাদনা]

ইন্ডিপেন্দিয়েন্তে

আন্তর্জাতিক[সম্পাদনা]

আর্জেন্টিনা

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Fabricio Bustos" (English ভাষায়)। Soccerway। সংগ্রহের তারিখ ২৮ আগস্ট ২০১৭ 
  2. "Lista de convocados de Jorge Sampaoli" (Spanish ভাষায়)। AFA। ২৭ আগস্ট ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ২৮ আগস্ট ২০১৭ 
  3. "Argentina 2 Italy 0: Late goals fail to make up for lack of stardust in Lionel Messi's absence" (English ভাষায়)। Telegraph। ২৩ মার্চ ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ২৪ মার্চ ২০১৮ 

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]