দাগি ঘাসপাখি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

দাগি ঘাসপাখি
Striated Grassbird (Megalurus palustris) at Kolkata I IMG 2681.jpg
In Kolkata, West Bengal, India.
বৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস
জগৎ: প্রাণী জগৎ
পর্ব: কর্ডাটা
শ্রেণী: পক্ষী
বর্গ: Passeriformes
পরিবার: Locustellidae
গণ: Megalurus
প্রজাতি: M. palustris
দ্বিপদী নাম
Megalurus palustris
Horsfield, 1821

দাগি ঘাসপাখি (ইংরেজি: Striated Grassbird) ঘাসপাখির একটি প্রজাতি। বাংলাদেশ ছাড়া দক্ষিণদক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার বেশ কয়েকটি দেশে এ পাখি দেখা যায়। বাংলাদেশের হাওর এলাকা, নেপালের তেরাই এবং ভারতের পাঞ্জাব, অরুণাচল, আসাম, মণিপুরনাগাল্যান্ড প্রদেশের সমতলভূমিতে এদের দেখা যায়। বাংলাদেশের পূর্বে মিয়ানমার, থাইল্যান্ড, কম্বোডিয়া, লাওস, ভিয়েতনাম ও দক্ষিণ চীনে তো আছেই, এছাড়াও পাখিটি ইন্দোনেশিয়াফিলিপাইনের কয়েকটি বিচ্ছিন্ন দ্বীপেও বসতি করেছে। [২] দাগি ঘাসপাখির দৈর্ঘ্য প্রায় এক ফুট এবং ওজন ৫০ গ্রাম। দাগি ঘাসপাখি শুধু আকারেই বড় নয়, এর আবাসও কিছুটা বিস্তৃত।

বিবরণ[সম্পাদনা]

দাগি ঘাসপাখি অধিকাংশ সময় ঘাসের মধ্যে লুকিয়ে থাকলেও কিছু সময় পর পর ওপরে উড়ে চড়া গলায় লম্বা ডাক দিয়ে সবার দৃষ্টি আকর্ষণ করাই এর স্বভাব। নানা জাতের ভূচর মাকড়সা ও অন্য পোকামাকড় খেয়েই পাখিটি বেঁচে থাকে। অগ্রহায়ণ, শীতবসন্তে হাওর অঞ্চলে ঘাসপাখির বিচরণ ও বসবাসযোগ্য পর্যাপ্ত ঘাসের প্রান্তর জেগে থাকে। কিন্তু পুরো হাওর এলাকা ছয় মাস পানির নিচে ডুবে থাকার ফলে বর্ষার প্রজনন-মৌসুমে এ পাখির আবাসসংকট দেখা দেয়। হাওর-বেসিন ছাড়া এ দেশে যে যৎসামান্য নল, কাশ ও লম্বা-ঘাসের জমি টিকে আছে তা দ্রুত উজাড় হয়ে যাচ্ছে বলে পাখিটির বর্ষার-আবাস আশঙ্কাজনকভাবে সংকুচিত হয়ে পড়ছে।

আবাস[সম্পাদনা]

এটি বাংলাদেশ, কম্বোডিয়া, চীন, ভারত, ইন্দোনেশিয়া, লাওস, মালয়েশিয়া, মায়ানমার, নেপাল, পাকিস্তান, ফিলিপাইন, রাশিয়া, থাইল্যান্ড, এবং ভিয়েতনামে দেখতে পাওয়া যায়।

গ্যালারি[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. BirdLife International (২০১২)। "Megalurus palustris"বিপদগ্রস্ত প্রজাতির আইইউসিএন লাল তালিকা। সংস্করণ 2012.1প্রকৃতি সংরক্ষণের জন্য আন্তর্জাতিক ইউনিয়ন। সংগ্রহের তারিখ ১৬ জুলাই ২০১২ 
  2. ,"দাগি ঘাসপাখি", ইনাম আল হক | তারিখ: ২৭-০৭-২০১০