ডোরেমন: নোবিতা'স স্পেস হিরো রেকর্ড অব স্পেস হিরোজ

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ডোরেমন: নোবিতা'স স্পেস হিরো রেকর্ড অফ স্পেস হিরোস্
চিত্র:Doraemon 2015.webp
পরিচালকইয়োসিহিরো ওগুসি
রচয়িতাফুজিকো এফ. ফুজিও
উৎসফুজিকো ফুজিও কর্তৃক 
ডোরেমন
শ্রেষ্ঠাংশেঅভিনয় অনুচ্ছেদ দেখুন
সুরকারকান সাওয়াদা
প্রযোজনা
কোম্পানি
সিন আই আনিমেশন
পরিবেশকতোহো
মুক্তি
  • ৭ মার্চ ২০১৫ (2015-03-07) (জাপান)
দৈর্ঘ্য১০০ মিনিট
দেশ জাপান
ভাষাজাপানি

ডোরেমন:নোবিতা'স স্পেস হিরো রেকর্ড অফ স্পেস হিরোস্ হল ডোরেমনের ৩৬ তম চলচ্চিত্র যা ৭ মার্চ ২০১৫ সালে জাপানে মুক্তি লাভ করে। চলচ্চিত্রটি ডোরেমন মাঙ্গা ও অ‍্যানিমের উপর নির্ভর করে নির্মিত হয়েছে। এটি তোহো কর্তৃক পরিবেশিত হয়েছে।

কাহিনী সংক্ষেপ[সম্পাদনা]

একদিন রাতে একটি স্পেসসিপ বিদ্ধস্ত হয়।অন‍্যদিকে, নোবিতা ও তার বন্ধুরা ঠিক করে যে তারা মহাকাশের উপর ভিত্তি করে চলচ্চিত্র নির্মাণ করবে,যার মাঝে তারা হিরোর অভিনয় করবে। এক্ষেত্রে তারা ডোরেমনের গ‍্যাজেটের সাহায্য নেয়।বিদ্ধস্ত স্পেসসিপে থাকা একজন এলিয়েন এসব দেখে সত‍্য মনে করে।সে নোবিতাদেরকে বলে যে, তাদের গ্রহে একদল ভিনগ্রহী ডাকাত এসেছে, যারা তার গ্রহের লোকজনকে ঠকিয়ে গ্রহের সকল শক্তি আত্মসাৎ করার জন্য কাজ করছে।সে নোবিতাদের কাছে সাহায্য চায়। যাইহোক, নোবিতারা গ্রহটিতে যায় এবং ডাকাতগুলোকে হারিয়ে দেয়। পরবর্তীতে, নোবিতা তার ভিনগ্রহী বন্ধুকে জানিয়ে দেয় যে তারা সাধারণ মানুষ। তবুও সবাই কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে। সবশেষে নোবিতারা পৃথিবীতে ফিরে আসে।

অভিনয়ে[সম্পাদনা]

  • ডোরেমন-ওয়াসাবি মিজুতা
  • নোবিতা নোবি-মেগুমি ওহারা
  • ইউমি কাকাজু-সিজুকা মিনামোতো
  • তাকেসি গৌদা বা জিয়ান-সুবারু কিমুরা
  • সুনিও হোনেকাওয়া-তোমোকাজু সেকি

অন্যান্য[সম্পাদনা]

চলচ্চিত্রটি সারা বিশ্বে ৩৬ মিলিয়ন ডলার আয় করে।৯ নভেম্বর ২০১৮ সালে ভারতের ডিজনি চ‍্যানেলে এটি হিন্দিতে মুক্তি পায়।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

বহিঃযোগ[সম্পাদনা]