ডন ম্যাকরে

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
ডন ম্যাকরে
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামডোনাল্ড আলেকজান্ডার নোয়েল ম্যাকরে
জন্ম(১৯১২-১২-২৫)২৫ ডিসেম্বর ১৯১২
ক্রাইস্টচার্চ, নিউজিল্যান্ড
মৃত্যু১০ আগস্ট ১৯৮৬(1986-08-10) (বয়স ৭৩)
ক্রাইস্টচার্চ, নিউজিল্যান্ড
উচ্চতা৬ ফুট ৩ ইঞ্চি (১.৯১ মিটার)
ব্যাটিংয়ের ধরনবামহাতি
বোলিংয়ের ধরনবামহাতি মিডিয়াম
ভূমিকাবোলার
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
একমাত্র টেস্ট
(ক্যাপ ৩৭)
২৯ মার্চ ১৯৪৬ বনাম অস্ট্রেলিয়া
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
১৯৩৭/৩৮ - ১৯৪৫/৪৬ক্যান্টারবারি
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ১৭
রানের সংখ্যা ৩৫৪
ব্যাটিং গড় ৪.০০ ১৫.৩৯
১০০/৫০ ০/০ ০/০
সর্বোচ্চ রান ৪৩
বল করেছে ৮৪ ৩৮৬২
উইকেট - ৫৬
বোলিং গড় - ২২.৫১
ইনিংসে ৫ উইকেট -
ম্যাচে ১০ উইকেট -
সেরা বোলিং - ৫/২০
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং -/- ১১/-
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ২৩ মার্চ ২০২০

ডোনাল্ড আলেকজান্ডার নোয়েল ম্যাকরে (ইংরেজি: Don McRae; জন্ম: ২৫ ডিসেম্বর, ১৯১৪ - মৃত্যু: ১০ আগস্ট, ১৯৮৬) ক্রাইস্টচার্চ এলাকায় জন্মগ্রহণকারী নিউজিল্যান্ডীয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার ও ফুটবলার ছিলেন। নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৪৬ সালে সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্যে নিউজিল্যান্ডের পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন।

ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর নিউজিল্যান্ডীয় ক্রিকেটে ক্যান্টারবারি দলের প্রতিনিধিত্ব করেন। দলে তিনি মূলতঃ বামহাতি মিডিয়াম বোলার হিসেবে খেলতেন। এছাড়াও, বামহাতে ব্যাটিংয়ে পারদর্শী ছিলেন ডোনাল্ড ম্যাকরে নামে পরিচিত ডন ম্যাকরে

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট[সম্পাদনা]

১৯৩৭-৩৮ মৌসুম থেকে ১৯৪৫-৪৬ মৌসুম পর্যন্ত ডন ম্যাকরে’র প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবন চলমান ছিল। সবটুকু সময়ই ক্যান্টারবারির সদস্যরূপে খেলেন। দীর্ঘদেহী ডন ম্যাকরে বামহাতে মিতব্যয়ী মিডিয়াম পেস বোলিং করতেন। এছাড়াও, কার্যকরী নিচেরসারির ব্যাটসম্যান ছিলেন। ওতাগোর বিপক্ষে প্রথম খেলায় দ্বিতীয় ইনিংসে ৪৩ রান তুলে দলের শীর্ষ রান সংগ্রাহক হয়েছিলেন। এটিই তার প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে সর্বোচ্চ সংগ্রহ ছিল।

১৯৪৩-৪৪ মৌসুমে নিউজিল্যান্ড একাদশের সদস্যরূপে নিউজিল্যান্ড সার্ভিসেস একাদশের মুখোমুখি হন। প্রথম ইনিংসে বোলিং উদ্বোধনে নামেন। ১৭ ওভারে ৫/২০ লাভ করেন। ১৯৪৪-৪৫ মৌসুমে চারটি আন্তঃপ্রাদেশিক খেলায় অংশ নিয়ে ১৩.২৯ গড়ে ১৭ উইকেট পান। এ পর্যায়ে তাকে নিউজিল্যান্ডের অন্যতম সেরা বোলার হিসেবে বিবেচনা করা হতো।[১]

১৯৪৫-৪৬ মৌসুমে পুণরায় প্লাঙ্কেট শীল্ড প্রতিযোগিতা শুরু হয়। তিন খেলায় ২৩.৬৯ গড়ে ১৩ উইকেট লাভ করেন। সফরকারী অস্ট্রেলিয়া দল ক্যান্টারবারিকে ইনিংস ব্যবধানে পরাজিত করে। ঐ খেলায় তিনি মাত্র একটি উইকেট পেয়েছিলেন। তাসত্ত্বেও, তিন সপ্তাহ পর তাকে টেস্ট দলে রাখা হয়।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট[সম্পাদনা]

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে একটিমাত্র টেস্টে অংশগ্রহণ করেছেন ডন ম্যাকরে। ২৯ মার্চ, ১৯৪৬ তারিখে ওয়েলিংটনে সফরকারী অস্ট্রেলিয়া দলের বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। এটিই তার একমাত্র টেস্টে অংশগ্রহণ ছিল।

১৯৪৫-৪৬ মৌসুমে অস্ট্রেলিয়া দল নিউজিল্যান্ড গমন করে। বিল ব্রাউনের নেতৃত্বে সিরিজের একমাত্র টেস্টে বোলিং উদ্বোধনে নেমে ০/৪৪ এবং ও ৮ রান পান। খেলায় তার দল ইনিংস ব্যবধানে পরাজয়ের মুখোমুখি হয়।[২] এরপর আর তাকে কোন টেস্ট কিংবা প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট খেলায় অংশ নিতে দেখা যায়নি। কাকতালীয়ভাবে তার সর্বশেষ প্রথম-শ্রেণীর খেলাটি অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে নিউজিল্যান্ডের প্রথম টেস্ট খেলা ছিল।

ফুটবলে অংশগ্রহণ[সম্পাদনা]

ক্রিকেট খেলার পাশাপাশি ফুটবল খেলায়ও দক্ষ ছিলেন ডন ম্যাকরে। গোলরক্ষকের ভূমিকায় একটি খেলায় অংশ নেন। ৪ জুলাই, ১৯৩৬ তারিখে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সাত গোল হজম করেন। খেলায় নিউজিল্যান্ড দল ১-৭ ব্যবধানে পরাজয়বরণ করে।[৩] ঐ সময়ে নোম্যাডস ইউনাইটেড দলের পক্ষে ঘরোয়া আসরে ফুটবল খেলতেন।

১০ আগস্ট, ১৯৮৬ তারিখে ৭৩ বছর বয়সে ক্রাইস্টচার্চ এলাকায় ডন ম্যাকরে’র দেহাবসান ঘটে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Norman Preston, "Norman Preston's Diary", The Cricketer, Winter Annual 1945, p. 65.
  2. New Zealand v Australia, Wellington, 1945-46
  3. "A-International Appearances - Overall"। The Ultimate New Zealand Soccer Website। ৭ অক্টোবর ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০০৮-০৭-২৫ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]