টেড বোলি

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
টেড বোলি
Ted Bowley c1933.jpg
আনুমানিক ১৯৩৩ সালের সংগৃহীত স্থিরচিত্রে টেড বোলি
ক্রিকেট তথ্য
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনলেগ ব্রেক
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক১৩ জুলাই ১৯২৯ বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা
শেষ টেস্ট২১ ফেব্রুয়ারি ১৯৩০ বনাম নিউজিল্যান্ড
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ৫১০
রানের সংখ্যা ২৫২ ২৮৩৭৮
ব্যাটিং গড় ৩৬.০০ ৩৪.৯৪
১০০/৫০ ১/- ৫২/১৪৭
সর্বোচ্চ রান ১০৯ ২৮৩
বল করেছে ২৫২ ৪০৮১৭
উইকেট - ৭৪১
বোলিং গড় - ২৫.৯৮
ইনিংসে ৫ উইকেট - ২৮
ম্যাচে ১০ উইকেট -
সেরা বোলিং - ৯/১১৪
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ২/- ৩৭৩/-
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৭

এডওয়ার্ড হেনরি বোলি (ইংরেজি: Ted Bowley; জন্ম: ৬ জুন, ১৮৯০ - মৃত্যু: ৯ জুলাই, ১৯৭৪) সারের লেদারহেড এলাকায় জন্মগ্রহণকারী বিখ্যাত ইংরেজ আন্তর্জাতিক ক্রিকেট তারকা ছিলেন। ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯২৯ থেকে ১৯৩০ সময়কালে ইংল্যান্ডের পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন। ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর ইংরেজ কাউন্টি ক্রিকেটে সাসেক্সের পক্ষাবলম্বন করেন টেড বোলি। দলে তিনি মূলতঃ আক্রমণধর্মী ডানহাতি উদ্বোধনী ব্যাটসম্যানের দায়িত্ব পালন করতেন।

খেলোয়াড়ী জীবন[সম্পাদনা]

প্রথম বিশ্বযুদ্ধের পূর্বে মাত্র এক মৌসুম নিয়মিতভাবে খেলার সুযোগ ঘটে বোলির। ১৯২০ সালে ক্রিকেট পুণরায় শুরু হলে তখন তার বয়স ৩০-এ চলে যায়। কিন্তু পরবর্তী চৌদ্দ বছর ব্যাটহাতে বিশ্বস্ততার পরিচয় দিয়ে নিজ কাউন্টি দলের পক্ষে রানের ফুলঝুরি ছোটান তিনি।

১৯২৭ থেকে ১৯২৯ সাল পর্যন্ত তিন মৌসুম কাউন্টি দলের পক্ষে বিশাল সংখ্যায় রান সংগ্রহ করেন।

টেস্ট ক্রিকেট[সম্পাদনা]

৩৯ বছর বয়সে ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের সদস্যরূপে মনোনীত হন। ১৯২৯ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে দুই টেস্টে অংশগ্রহণের সুযোগ ঘটে তার। পরবর্তী শীত মৌসুমে হ্যারল্ড জিলিগানের নেতৃত্বাধীন এমসিসি দলের অন্যতম সদস্য হিসেবে নিউজিল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়া সফর করেন।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে চার টেস্টের সিরিজের তিনটিতে মাঠে নামেন। তন্মধ্যে অকল্যাণ্ডে ১০৯ রানের মনোরম ইনিংস উপহার দেন তিনি।

কাউন্টি ক্রিকেট[সম্পাদনা]

সাসেক্সে খেলাকালীন বেশ কিছুসংখ্যক বড় ধরনের জুটি গড়তে অংশ নেন। তন্মধ্যে দুইটি জুটির সংগৃহীত রান অদ্যাবধি কাউন্টি রেকর্ডরূপে টিকে আছে।

১৯২১ সালে নর্দাম্পটনে নর্দাম্পটনশায়ারের বিপক্ষে দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে মরিস টেটের সাথে ৩৮৫ রান তুলেন। ১৯২৯ সালে হোভে গ্লুচেস্টারশায়ারের বিপক্ষে অংশ নিয়ে একদিনে অপরাজিত ২৮০ রান করেন। এ সময়ে প্রথম উইকেট জুটিতে জিম পার্কস সিনিয়রকে সাথে নিয়ে ৩৬৮ রান করেন।

সাসেক্সের এই রেকর্ড চার বছর টিকেছিল। পরবর্তীতে জন ল্যাংগ্রিজের সাথে ৪৯০ রান তুলে নতুন রেকর্ডের জন্ম দেন। প্রথম উইকেট জুটিতে ইংল্যান্ডে এটি তৃতীয় সর্বোচ্চ, সর্বকালের চতুর্থ সর্বোচ্চ ও প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটের যে-কোন উইকেটে অষ্টম সর্বোচ্চ রানের জুটি হিসেবে এটি স্বীকৃত।

হোভে অনুষ্ঠিত মিডলসেক্সের বিপক্ষের ঐ খেলায় বোলি তার ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ২৮৩ রানের ইনিংস খেলেছিলেন। এছাড়াও বোলি কার্যকরী লেগ স্পিনার হিসেবে দলে প্রভূতঃ ভূমিকা রেখেছেন।

অর্জনসমূহ[সম্পাদনা]

প্রতি মৌসুমেই কমপক্ষে ৫০ উইকেট পেয়েছেন তিনি। ১৯২৮ সালে ৯০ উইকেট লাভের পাশাপাশি ২,৩৫৯ রান তুলেন। ১৯৩০ সালে উইজডেন কর্তৃপক্ষ কর্তৃক বর্ষসেরা ক্রিকেটার মনোনীত হন তিনি।[১]

৯ জুলাই, ১৯৭৪ তারিখে ৮৪ বছর বয়সে হ্যাম্পশায়ারের উইনচেস্টারে টেড বোলি’র দেহাবসান ঘটে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Wisden Cricketers of the Year" (ইংরেজি ভাষায়)। CricketArchive। সংগ্রহের তারিখ ২০০৯-০২-২১ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]