গুজরানওয়ালা জেলা

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
গুজরানওয়ালা
گُوجرانوالا
জেলা
গুজরানওয়ালা
পাঞ্জাবের গুজরানওয়ালা জেলার অবস্থান (কমলা দিয়ে চিহ্নিত করা হয়েছে )।
পাঞ্জাবের গুজরানওয়ালা জেলার অবস্থান (কমলা দিয়ে চিহ্নিত করা হয়েছে )।
স্থানাঙ্ক: ৩২°১০′ উত্তর ৭৩°৫০′ পূর্ব / ৩২.১৬৭° উত্তর ৭৩.৮৩৩° পূর্ব / 32.167; 73.833স্থানাঙ্ক: ৩২°১০′ উত্তর ৭৩°৫০′ পূর্ব / ৩২.১৬৭° উত্তর ৭৩.৮৩৩° পূর্ব / 32.167; 73.833
দেশপাকিস্তান
প্রদেশপাঞ্জাব
রাজধানীগুজরানওয়ালা
আয়তন[১]
 • মোট৩৬২২ কিমি (১৩৯৮ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (২০১৭)[২]
 • মোট৫০,১৪,১৯৬
 • জনঘনত্ব১৪০০/কিমি (৩৬০০/বর্গমাইল)
সময় অঞ্চলপিকেটি (ইউটিসি+৫)
তহসিলের সংখ্যা
ভাষা (১৯৮১)৯৭.৬% পাঞ্জাবি[৩]

গুজরানওয়ালা জেলা (পাঞ্জাবি এবং উর্দু: ضِلع گُوجرانوالا‎‎), পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশে অবস্থিত একটি অন্যতম জেলা

জনসংখ্যার উপাত্ত[সম্পাদনা]

১৯৯৮ সালের আদমশুমারীর হিসাব অনুযায়ী, জেলাটির জনসংখ্যা ছিল প্রায় ৩,৪০০,৯৪০ জন এর মত, যার মধ্যে থেকে প্রায় ৫১% শহুরে বসবাসকারী জনসংখ্যা ছিল। বর্তমানে এখানকার জনসংখ্যা প্রায় ৪,৩০৮,৯০৫ জনে পৌছে গেছে।[৪]:২৩[৫]

জেলাটিতে সবচেয়ে ব্যবহৃত সাধারণ ভাষা হচ্ছে পাঞ্জাবী, যেটি ১৯৯৮ সালের আদমশুমারি অনুসারে ৯৭% জনসংখ্যার প্রথম ভাষা মাতৃভাষা ছিল, এছাড়াও অন্যান্য ১.৯% লোজ উর্দু ভাষা ব্যবহার করে থাকে।[৪]:২৭[৬]

প্রশাসন[সম্পাদনা]

গুজরাওয়ালা হচ্ছে বাস্তবে একটি শহরে জেলা। জেলাটি নিম্নলিখিত তহসিল বিভক্ত:

এছাড়াও, এই তহসিলের অধীনে নিম্নলিখিত শহরগুলি রয়েছে:

  • খিয়ালি শাহপুরি শহর
  • অরুপ শহর
  • নন্দিপুর শহর
  • কিলা দিদার সিং শহর
  • ওয়াজিরাবাদ শহর
  • কামোনকি শঞর
  • নওশেরা ভিরকান শহ

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. "Gujranwala | Punjab Portal"। সংগ্রহের তারিখ ১৫ ডিসেম্বর ২০১৬ 
  2. "DISTRICT WISE CENSUS RESULTS CENSUS 2017" (PDF)। www.pbscensus.gov.pk। ২৯ আগস্ট ২০১৭ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৮ মার্চ ২০১৯ 
  3. Stephen P. Cohen (২০০৪)। The Idea of PakistanBrookings Institution Press। পৃষ্ঠা 202। আইএসবিএন 0815797613 
  4. 1998 District Census report of Gujranwala। Census publication। 37। Islamabad: Population Census Organization, Statistics Division, Government of Pakistan। ১৯৯৯। 
  5. "Statistics - Official website of Gujranwala Police"। ১৩ এপ্রিল ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৮ মার্চ ২০১৯ 
  6. "Mother tongue": defined as the language of communication between parents and children and recorded of each individual.

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]