বিষয়বস্তুতে চলুন

গজক

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
গজক
ধরনমিষ্টি
প্রকারমিষ্টান্ন
উৎপত্তিস্থলভারত
প্রধান উপকরণতিল, গুড়, চিনাবাদাম
ভিন্নতাগজক, চকলেট গজক, মেওয়া গজক, গজক বরফি

গজক (হিন্দি: "गजक") হলো উত্তর-মধ্য ভারত থেকে উদ্ভূত এক ধরনের মিষ্টি বা মিষ্টান্ন। অনেকে একে গছকও বলেন। এটি তিলের বীজ (তিল) বা চীনাবাদাম এবং গুড় দিয়ে তৈরি একটি শুকনো মিষ্টি।[১] গজক অনেক পুরানো আমলের মিষ্টি। মোঘল আমলের আগের থেকেই গজক তৈরির প্রচলন ছিল। আবার অনেকের মতে ভারতের মধ্যপ্রদেশের প্রাণকেন্দ্র মোরেনা নামক একটি ছোট্ট জেলায় এই মিষ্টি প্রথম তৈরি হয়। অনেকে বলেন, হিন্দু রাজবংশের রাজারা তাদের সৈন্যদের খাবারের জন্য তিল, গুড়, এবং ছানা দিতেন। যুদ্ধের সময় পুষ্টি ও শক্তির উৎস হিসেবে এই গজক ব্যবহারের চল ছিল। এটি উচ্চ পুষ্টির মিষ্টি বলে পরবর্তীকালে সাধারণ মানুষও একই উপকরণ ব্যবহার করে নিজেরাই গজক বানিয়ে নিতে শুরু করেন।

শীতের সময় উত্তর ভারতের বিশেষত রাজস্থান, উত্তরপ্রদেশ, দিল্লি, পাঞ্জাব, হরিয়ানা, এবং বিহারের বিস্তীর্ণ অঞ্চলে গজক তৈরি করা হয়। উত্তর ভারতের এটি একটি জনপ্রিয় শুকনো মিষ্টি। মাঘ মাসের শুরুতে উত্তর ভারতে ‘লোরি’ উৎসবে গজক খাওয়ার প্রচলন আছে। এ সময় নতুন ফসলের পুজো করা হয়। আগুন জ্বালিয়ে তাতে গুড়, চীনাবাদাম, রেওড়ি, গজক, পপকর্ন ইত্যাদি অর্পণ করা হয়ে থাকে। রাজস্থানি গজক স্বাদে অতুলনীয়। অন্য গজকের তুলনায় রাজস্থানে প্রস্তুত গজকগুলি পাতলা ও হালকা হয়।

প্রস্তুতি[সম্পাদনা]

গজক তিল ও গুড় দিয়ে তৈরি করা হয়। গজক সাধারণত আয়তকার হয়। এটি তৈরি করার পদ্ধতিটি বেশ সময়সাপেক্ষ। সাধারণত ৫ থেকে ৮ কিলোগ্রাম গজক প্রস্তুত করতে প্রায় ১০ থেকে ১৫ ঘন্টা সময় লাগে। চিনির রসে তিল মিশিয়ে ভাল করে উত্তপ্ত করে ঘন করার পর একে পাতলা স্তরে জমানো হয়। যতক্ষণ না সমস্ত তিল ভেঙ্গে গিয়ে মণ্ডের মধ্যে তেল ছেড়ে দেয় ততক্ষণ পর্যন্ত মণ্ডটিকে পিটিয়ে পাতলা করা হয়। যা কয়েক মাস ধরে সংরক্ষণ করা যায়।

এক কেজি গজক তৈরি করার জন্য প্রায় ৭৫০ গ্রাম তিল এবং ২৫০ গ্রাম গুড় লাগে।[২] নানা ধরনের গজক তৈরি করা হয়। অনেক সময় গজকে শুকনো ফল অর্থাৎ মেওয়া যোগ করা হয়।[৩]

প্রকারভেদ[সম্পাদনা]

লখনউ-এর গুড় রেওয়ারি (এক ধরনের গজক), একটি ঐতিহ্যবাহী ভারতীয় শুকনো মিষ্টি যা গুড় এবং টুকরো-টুকরো তিলের বীজ দিয়ে তৈরি করা হয়।

উপাদান এবং আকৃতির উপর নির্ভর করে নানা ধরনের গজক হতে পারে। বিভিন্ন উপাদান দিয়ে তৈরি গজকগুলি হলোঃ

  • গুড়-তিল গজক
  • তিল-রেওয়ারি গজক
  • খাস গজক
  • তিল-মেওয়া গজক

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Alter, Stephen (২০০৯)। All the Way To Heaven (ইংরেজি ভাষায়)। Penguin Books India। আইএসবিএন 978-0-14-028552-9 
  2. Reshii, Marryam H. (২০১৭)। The Flavour of Spice (ইংরেজি ভাষায়)। Hachette India। আইএসবিএন 978-93-5009-909-4 
  3. Singh, Rocky; Sharma, Mayur (২০১১)। Highway on my Plate: The Indian guide to roadside eating (ইংরেজি ভাষায়)। Random House India। আইএসবিএন 978-81-8400-219-5