কেন্ট্রোসরাস

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন

কেন্ট্রোসরাস
সময়গত পরিসীমা: জুরাসিক যুগের শেষভাগ, ১৫.৪৭–১৫.২১কোটি
Kentrosaurus NT.jpg
কেন্ট্রোসরাস - যেমন দেখতে ছিল
বৈজ্ঞানিক শ্রেণীবিন্যাস
জগৎ: প্রাণী জগৎ
পর্ব: কর্ডাটা
উপপর্ব: ভার্টিব্রাটা
শ্রেণী: সরীসৃপ
মহাবর্গ: ডাইনোসরিয়া
বর্গ: অর্নিথিস্কিয়া
উপবর্গ: থাইরিওফোরা
অধোবর্গ: স্টেগোসরিয়া
গণ: কেন্ট্রোসরাস
আদর্শ প্রজাতি
কেন্ট্রোসরাস ইথিওপিকাস
হেনিখ, ১৯১৫
প্রতিশব্দ
  • কেন্ট্রুরোসরাস হেনিখ, ১৯১৬
  • ডোরিফোসরাস নোপক্সা, ১৯১৬

কেন্ট্রোসরাস (রোমান হরফ - Kentrosaurus) হল অর্নিথিস্কিয়া (পাখির মতো শ্রোনীবিশিষ্ট) বর্গের থাইরিওফোরা (বর্মধারী) উপবর্গের স্টেগোসরিয়া অধোবর্গের অন্তর্গত অধুনা-বিলুপ্ত ডাইনোসরদের একটি গণ। এদের মূল শণাক্তকরণ বৈশিষ্ট্য ছিল পিঠের উপর বড় বড় কাঁটার উপস্থিতি। অন্ত্য জুরাসিক উপযুগের মূলত কিমেরিজিয়ান অধোযুগের (১৫.৭৩ - ১৫.২১ কোটি বছর পূর্বে) দ্বিতীয়ার্ধে[১] আজকের আফ্রিকা মহাদেশে এরা বাস করত। ১৯১৫ সালে জার্মান পুরাজীববিদ এডভিন হেনিখ পূর্ব আফ্রিকায় প্রাপ্ত জীবাশ্ম থেকে এদের প্রথম শণাক্ত করেন ও বিবরণ দেন।

পূর্ণবয়স্ক কেন্ট্রোসরাস লম্বায় হত মোটামুটি ৪.৫ মিটার, ওজন প্রায় ১.১ টন। এরা চারপায়ে ভর দিয়ে হাঁটত; পিছনের পা দু'টি ছিল অপেক্ষাকৃত সোজা। এদের মাথা ছিল দেহের তুলনায় বেশ ছোট ও সামনের দিকে ঝোঁকা; মুখের সামনের দিকে পাখির চঞ্চুর মতো একটি অংশ থাকত, অর্নিথিষ্কিয়া বর্গের ডাইনোসরদের যা ছিল সাধারণ বৈশিষ্ট্য; এর সাহায্যে গাছের পাতা ছিঁড়ে খেতে এদের সুবিধে হত। পিঠের উপর থেকে শুরু হয়ে লেজের আগা পর্যন্ত এদের যতদূরসম্ভব দুই সারিতে সজ্জিত বড় বড় কাঁটা থাকত; যত লেজের আগার দিকে এগোনো যেত, কাঁটার আকার হত তত বড়; এর থেকে আন্দাজ, লেজের কাঁটাগুলি এরা আত্মরক্ষার কাজে সক্রিয়ভাবে ব্যবহার করত। এদের দু'টি বিভিন্ন আকারের উরুর অস্থি (ঊর্বস্থি) আবিস্কৃত হয়েছে, পুরাজীববিদদের দাবি, যার থেকে বোঝা যায় এদের স্ত্রী ও পুরুষের দৈহিক আকার ছিল ভিন্ন।[২]

আবিষ্কার ও নামকরণ[সম্পাদনা]

তানজানিয়ার টেন্ডাগুড়ুতে ১৯০৯ - ১৩ খ্রিস্টাব্দের মধ্যে জার্মান পুরাজীববিদ, ভূতাত্ত্বিক ও গবেষক ভের্নার ইয়ানেশের নেতৃত্বে পরিচালিত এক অভিযানে কেন্ট্রোসরাসের জীবাশ্ম প্রথম আবিষ্কৃত হয়। এর উপর ভিত্তি করে আরেক প্রখ্যাত জার্মান পুরাজীববিদ এডভিন হেনিখ ১৯১৫ খ্রিস্টাব্দে প্রথম এর বিবরণ প্রকাশ করেন। পরবর্তীসময়ে খুঁজে পাওয়া আরও বিভিন্ন নিদর্শনের উপর ভিত্তি করে তিনি ১৯২৫ খ্রিস্টাব্দে একটি বিস্তৃততর বিবরণ প্রকাশ করেন। এদের এরকম অদ্ভূত নামকরণের ভিত্তি হল পুরাতন গ্রিক ভাষার একটি শব্দ কেন্ট্রন ('κέντρον'), যার অর্থ 'ছুঁচলো' বা 'সরু' ও সাউরোস অর্থাৎ 'টিকটিকি'। এই দু'টি শব্দের মিলনেই কেন্ট্রোসরাস নামটির সৃষ্টি।

বিবরণ[সম্পাদনা]

বার্লিনের মুজয়েম ফ্যুর নাটুরকুন্ডে সংগ্রহশালায় রক্ষিত কেন্ট্রোসরাস ইথিওপিকাস-এর পুনর্গঠিত পূর্ণাঙ্গ কঙ্কাল

কেন্ট্রোসরাসরা ছিল স্টেগোসরিয়া অধোবর্গের একটি অপেক্ষাকৃত ক্ষুদ্রাকৃতি ডাইনোসর। তবে দৈহিক গঠনের দিক থেকে এরা ছিল - ছোট মাথা, লম্বা ঘাড়, অপেক্ষাকৃত ছোট সামনের পা, অপেক্ষাকৃত বড় পিছনের পা, লম্বা, আনুভুমিক ও পেশীবহুল লেজ, প্রভৃতি ডাইনোসরদের সমস্ত সাধারণ প্রামান্য বৈশিষ্ট্যেরই অধিকারী। স্টেগোসরিয়া অধোবর্গের সমস্ত প্রাণীদের সাধারণ বৈশিষ্ট্য অনুযায়ী এদেরও মাথা ছিল চ্যাপ্টা, সরু ও সামনের দিকে বাড়ানো; সামনের পাগুলি ছিল খুব শক্তিশালী, পিছনের পাগুলি ছিল অপেক্ষাকৃত বড় ও স্তম্ভাকৃতি; দেহ ছিল বর্মাবৃত ও পিঠ ও লেজের উপরে ছিল সম্ভবত দুই সারিতে সজ্জিত অস্থিগঠিত পাত ও বড় বড় কাঁটা। হেনিখ যখন ১৯২৫ খ্রিস্টাব্দে এদের প্রামান্য প্রজাতি কেন্ট্রোসরাস ইথিওপিকাস-এর বিবরণ প্রকাশ করেন[২], তখন পর্যন্ত এদের একটি মাত্র আস্ত দাঁত আবিষ্কৃত হয়েছিল। কিন্তু পরবর্তী কালে এদের আরও একটি অপরিণত দাঁত ও বেশ কয়েকটি দাঁতের ভাঙা টুকরোও খুঁজে পাওয়া যায়।[৩] তার থেকে বোঝা যায় যে এদের মুখগহ্বরের ভিতরে দাঁতগুলির সজ্জা ও গড়ন ছিল স্টেগোসরাসদের অনুরূপ; এই ধরনের নীচের দিকে ছড়ানো ও চওড়া ও উপরের দিকে কিছুটা খাড়া গঠনের পাঁচটি শৃঙ্গ দ্বারা ঘেরা নীচু উপত্যকা আকৃতির দাঁত স্টেগোসরিয়া অধোবর্গের সমস্ত প্রাণীরই একটি সাধারণ বৈশিষ্ট্য।[৪]

আকার[সম্পাদনা]

এদের প্রামান্য প্রজাতি কেন্ট্রোসরাস ইথিওপিকাস আকারে ছিল স্টেগোসরাস আর্মাটাস বা হেসপেরোসরাস মিওসির তুলনায় ছোট, কিন্তু হুয়ায়াঙ্গোসরাস তাইবাইই এর মোটামুটি সমআকৃতির। বার্লিনের মুজয়েম ফ্যুর নাটুরকুন্ডে সংগ্রহশালায় এদের যে পুনর্গঠিত পূর্ণাঙ্গ কঙ্কালটি রক্ষিত আছে, তার নাকের ডগা থেকে লেজের আগা পর্যন্ত দৈর্ঘ্য ৪.৫ মিটার বা ১৫ ফুট। এর প্রায় অর্ধেক দৈর্ঘ্যই এদের লেজের।[৫] তবে এর থেকেও বড় আকৃতির এই প্রজাতির প্রাণীর আংশিক নিদর্শনও খুঁজে পাওয়া গেছে, যা থেকে বর্তমানে ধারণা করা হয়, এরা ৫.৫ মিটার বা প্রায় ১৮ ফুট পর্যন্ত লম্বা হতে পারত। একটি ৪ মিটার বা প্রায় ১৩ ফুট লম্বা কেন্ট্রোসরাস-এর ওজন ৭০০ কিলোগ্রাম পর্যন্ত হতে পারত।[৬] বার্লিনের মিউজিয়ামে রক্ষিত প্রাণীটির ওজন সেই হিসেবে ১ থেকে ১.৫ টনের মধ্যে হওয়া সম্ভব; তবে লেজে পেশির বাহুল্যর উপর নির্ভর করে এর কিছুটা কমবেশিও হতে পারে।[৭]

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. Holly E. Barden, Susannah C. R. Maidment: "Evidence for sexual dimorphism in the stegosaurian dinosaur Kentrosaurus aethiopicus from the Upper Jurassic of Tanzania." In: Journal of Vertebrate Paleontology. Bd. 31, Nr. 3, আইএসএসএন 0272-4634, 2011, S. 641–651, ডিওআই:10.1080/02724634.2011.557112.
  2. Hennig, E. (1925). "Kentrurosaurus aethiopicus. Die Stegosaurier-Funde vom Tendaguru, Deutsch-Ostafrika". Palaeontographica. Supplement 7 আইএসএসএন 0085-4611 (জার্মান): 101–254.
  3. Hennig, E. (1936). "Ein Dentale von Kentrurosaurus aethiopicus HENNIG" . Palaeontographica. Supplement 7 Part II (জার্মান): 311–312.
  4. Weishampel DB (1984). "Interactions between Mesozoic Plants and Vertebrates: Fructifications and seed predation". N. Jb. Geol. Paläontol. Abhandl. 167: 224–250.
  5. Janensch, W. (1925). "Ein aufgestelltes Skelett des Stegosauriers Kentrurosaurus aethiopicus HENNIG 1915 aus den Tendaguru-Schichten Deutsch-Ostafrikas". Palaeontographica. Supplement 7 (জার্মান): 257–276.
  6. Paul, G.S., 2010, The Princeton Field Guide to Dinosaurs, Princeton University Press, পৃঃ - ২২৩।
  7. Mallison, H. (2011). "Defense capabilities of Kentrosaurus aethiopicus HENNIG 1915". Palaeontologia Electronica. 14 (2): 10.