কেনেথ উইশার্ট

উইকিপিডিয়া, মুক্ত বিশ্বকোষ থেকে
কেন উইশার্ট
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামকেনেথ লেসলি উইশার্ট
জন্ম২৮ নভেম্বর, ১৯০৮
লন্ডন, ইংল্যান্ড
মৃত্যু১৮ অক্টোবর, ১৯৭২
জর্জটাউন, ডেমেরারা, গায়ানা
ব্যাটিংয়ের ধরনবামহাতি
ভূমিকাব্যাটসম্যান, প্রশাসক
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
একমাত্র টেস্ট
(ক্যাপ ৪২)
১৪ ফেব্রুয়ারি ১৯৩৫ বনাম ইংল্যান্ড
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ১৬
রানের সংখ্যা ৫২ ৭০৬
ব্যাটিং গড় ২৬.০০ ২৩.৫৩
১০০/৫০ ০/১ ০/৫
সর্বোচ্চ রান ৫২ ৮৮
বল করেছে
উইকেট
বোলিং গড় - -
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট
সেরা বোলিং -/- -/-
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ০/০ ৭/০

কেনেথ লেসলি কেন উইশার্ট (ইংরেজি: Kenneth Wishart; জন্ম: ২৮ নভেম্বর, ১৯০৮ - মৃত্যু: ১৮ অক্টোবর, ১৯৭২) লন্ডনে জন্মগ্রহণকারী ইংরেজ বংশোদ্ভূত ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার ও প্রশাসক ছিলেন। ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৩৫ সালে সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্যে ওয়েস্ট ইন্ডিজের পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন।[১][২]

ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান ক্রিকেটে ব্রিটিশ গায়ানা দলের প্রতিনিধিত্ব করেন কেন উইশার্ট নামে পরিচিত কেনেথ উইশার্ট। দলে তিনি মূলতঃ বামহাতি ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলতেন।

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেট[সম্পাদনা]

লন্ডনে জন্মগ্রহণকারী কেনেথ উইশার্ট জর্জটাউনের স্বাস্থ্যবিভাগীয় প্রথম চিকিৎসা কর্মকর্তার দ্বিতীয় সন্তান ছিলেন। জর্জটাউনের কুইন্স কলেজে অধ্যয়ন করেন। উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান হিসেবে পর্যাপ্ত জ্ঞানের অধিকারী ছিলেন। ১৯২৮-২৯ মৌসুম থেকে ১৯৪৬-৪৭ মৌসুম পর্যন্ত কেনেথ উইশার্টের প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবন চলমান ছিল।

১৯২৯-৩০ মৌসুমে সফররত ইংরেজ দলের বিপক্ষে ব্রিটিশ গায়ানার সদস্যরূপে উপর্যুপরী দুই খেলায় ৮৮ ও ৭৭ রান তুলেন। তবে, টেস্ট খেলায় অংশগ্রহণের জন্যে তাকে ১৯৩৪-৩৫ মৌসুমে ইংল্যান্ড দলের ক্যারিবীয় অঞ্চলে আগমন পর্যন্ত অপেক্ষার প্রহর গুণতে হয়েছিল।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট[সম্পাদনা]

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে একটিমাত্র টেস্টে অংশগ্রহণ করেছেন কেনেথ উইশার্ট। ১৪ ফেব্রুয়ারি, ১৯৩৫ তারিখে জর্জটাউনে সফরকারী ইংল্যান্ড দলের বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। এটিই তার একমাত্র টেস্টে অংশগ্রহণ ছিল। এরপর আর তাকে কোন টেস্টে অংশগ্রহণ করতে দেখা যায়নি।

১৯৩৫ সালে জর্জটাউনে অনুষ্ঠিত টেস্টে ওয়েস্ট ইন্ডিজের সদস্যরূপে খেলেন। আর. ই. এস. ওয়াটের নেতৃত্বাধীন ইংল্যান্ড দলের বিপক্ষে ঐ টেস্টের প্রথম ইনিংসে দলীয় সংগ্রহ ১৮৪ রানের মধ্যে তার সংগ্রহ ছিল ৫২। রান আউটে বিদেয় নেন তিনি। দ্বিতীয় ইনিংসে তিনি শূন্য রানে বব ওয়াটের বলে এলবিডব্লিউ’র মাধ্যমে বিদেয় হন। কিন্তু, ঐ সময়ে দল গঠনের নীতিমালায় টেস্ট দলে ছয় জন ও বাদ-বাকীদেরকে সংশ্লিষ্ট অঞ্চলের খেলোয়াড়দের নিয়ে একাদশ গঠনের কারণে তাকে আর ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলে খেলতে দেখা যায়নি। তবে, ক্রিকেটবোদ্ধাদের ধারণা যে, তিনি পাঁচ বছর পূর্বেই তার স্বর্ণালী সময় ফেলে রেখে এসেছেন।

প্রশাসনে অংশগ্রহণ[সম্পাদনা]

ক্রিকেট খেলা থেকে অবসর গ্রহণের পর প্রশাসকত্বের দিকে ধাবিত হন। অনেকগুলো বছর ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেটের অন্যতম শীর্ষস্থানীয় প্রশাসকের ভূমিকায় অবতীর্ণ হন। গায়ানার প্রতিনিধি হিসেবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ বোর্ডের সদস্য ছিলেন। ১৯৪৯ থেকে ১৯৭২ সালের শুরুতে অবসর গ্রহণের পূর্ব-পর্যন্ত এ দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৬০-এর দশকের শুরুতে সংক্ষিপ্তকালের জন্যে বোর্ডের সম্পাদক ছিলেন। মৃত্যুকালীন গায়ানা সিএ’র সভাপতি ছিলেন। দৃশ্যতঃ মর্যাদাপূর্ণ জর্জটাউন সিসি-সহ বোর্দার টেস্ট ক্রিকেট মাঠের কর্তৃত্ব তার নিয়ন্ত্রণে ছিল।

গায়ানীয় ব্যবসায়িক জগতে শীর্ষস্থানীয় ব্যক্তিত্বে পরিণত হন। কনিষ্ঠ কেরানি থেকে বুকার্স থেকে অবসর গ্রহণের পূর্বে নির্বাহী পরিচালকের দায়িত্বে ছিলেন। ১৮ অক্টোবর, ১৯৭২ তারিখে ৬৩ বছর বয়সে ডেমেরারার জর্জটাউন এলাকায় কেনেথ উইশার্টের দেহাবসান ঘটে।

তথ্যসূত্র[সম্পাদনা]

  1. List of West Indies Test Cricketers
  2. "West Indies – Test Batting Averages"। ESPNCricinfo। সংগ্রহের তারিখ ৫ মে ২০২০ 

আরও দেখুন[সম্পাদনা]

বহিঃসংযোগ[সম্পাদনা]